বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

আস্তুরীয় ভাষা কর্মী ইনাসিউ গ্যালনের সাথে সাক্ষাৎ করুন

ইনাসিউ গ্যালনের ছবি এবং অনুমতি নিয়ে ব্যবহৃত।

ডিজিটাল স্থানে ইউরোপীয় সংখ্যালঘু এবং আঞ্চলিক ভাষা প্রচারকারী কর্মীদের কাজকে তুলে ধরতে আমাদের চলমান ধারাবাহিকের অংশ হিসাবে আমরা উত্তর-পশ্চিম স্পেনের আস্তুরিয়াস থেকে আস্তুরীয় ভাষা প্রচারে ইনাসিউ গ্যালন (@ইনাসিউগ্যালন) কে দেখাতে চাই। এথনোলগের মতে মাতৃভাষা হিসেবে প্রায় ১০০,০০০ এবং আরো ২৫০,০০০ দ্বিতীয় ভাষা হিসেবে এই বিপন্ন ভাষাটিতে কথা বলে।

রাইজিং ভয়েস (আরভি): আপনার নিজের এবং আপনার ভাষা-সম্পর্কিত কাজ সম্পর্কে আমাদেরকে বলুন।

ইনাসিউ গ্যালন (আইজি): আমি একজন সাংবাদিক ও শিক্ষক এবং আমি আমার জীবনের সমস্ত ক্ষেত্রে আস্তুরীয় ভাষা এবং এর ভাষাভাষীদের অধিকারের পক্ষে আমার সক্রিয়তাকে বেঁছে নিয়েছি। আমি একজন সম্পাদক, রেডিও এবং টেলিভিশন উপস্থাপক, নেটওয়ার্কগুলিতে আস্তুরীয় ভাষার প্রচারক হিসাবে কাজ করেছি, আমি আস্তুরীয় ইতিহাসের উপর গবেষণা প্রকাশ করেছি।

আমি ২০১১ সালে ভিক্টর সুয়ারেজের সাথে ঐতিহ্যগত ভাষা হিসেবে ব্যবহৃত সমস্ত অঞ্চলে আস্তুরীয় ভাষাভাষীদের অধিকারের স্বীকৃতি অর্জনের জন্যে কর্মরত বেসরকারি সংস্থা ইনিসিয়েটিভা পোল আস্তুরিয়ানু ফাউন্ডেশন চালু করতে সাহায্য করেছি। আগামী ৬ মে আস্তুরীয় সাহিত্য দিবসে আমি আস্তুরীয় ভাষার একাডেমির সদস্য হিসাবে নিযুক্ত হবো।

আরভি: অনলাইন ও অফলাইন উভয় ক্ষেত্রেই আপনার ভাষার বর্তমান অবস্থা কী?

আইজি: আমাদের ভাষার প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে সম্প্রচারের ক্ষেত্রে ভাঙ্গনের একটা বড় সমস্যা এবং অধিকারের স্বীকৃতির অভাব থাকলেও এর পিছনে ভাষাটিকে বাঁচিয়ে রাখার জন্যে অর্ধ শতাব্দী ধরে কঠোর পরিশ্রম করে চলা একটি খুব সক্রিয় সম্প্রদায় রয়েছে। বিভিন্ন সামাজিক নেটওয়ার্ক ছাড়াও স্কুলের মতো জায়গায় এর উপস্থিতি খুব বিস্তৃত ও বৈচিত্র্যময়।

আরভি: ডিজিটাল স্থানে আপনার ভাষার উপস্থিতি দেখার জন্যে আপনার অনুপ্রেরণাগুলো কী কী?

আইজি: আমি না চাইলেও  আমার ভাষার পরিস্থিতির কারণে আমাকে একজন সক্রীয় কর্মী হতে হয়েছে। ডিজিটাল ক্ষেত্রটিতে তরুণ প্রজন্মের কথা মাথায় রাখলে সহজ উপায়ে অনেক মানুষের কাছে পৌঁছানো সম্ভব। এ কারণেই, আমি যে উদ্যোগগুলি শুরু করেছি তার মধ্যে আস্তুরীয় ভাষায় ইউটিউব এবং পডকাস্ট তৈরি করে ছড়িয়ে দেওয়ার একটি স্থান প্লেপ্রেস্তা রয়েছে।

আরভি: আপনার ভাষাকে অনলাইনে পরিপূর্ণভাবে ব্যবহৃত হতে বাধা দেয় এমন কিছু চ্যালেঞ্জ বর্ণনা করুন।

আইজি: ভাষার স্বীকৃতির অভাবের মানে হলো এটি প্রধান সামাজিক নেটওয়ার্কগুলি বহনের ভাষা নয়। অনেক লোকের স্বেচ্ছাসেবী কাজের কারণে আমাদের কাছে আস্তুরীয় ভাষায় অনেকগুলি বিনামূল্যের সফ্টওয়্যার সরঞ্জাম থাকলেও আমাদের এখনো অনেক দূর যেতে হবে। অবকাঠামোগত শর্তাবলী সংখ্যালঘু ভাষার ব্যবহারকারীদের ক্ষেত্রে একই সময়ে ভাষাটির একাধিক কথ্যরূপ চালু করে।

আরভি: অল্পবয়সীদের আপনার ভাষা শেখা শুরু বা এটির ব্যবহার চালিয়ে যেতে উৎসাহিত করতে কোন কোন দৃঢ় পদক্ষেপ নেওয়া যেতে পারে বলে আপনি মনে করেন?

আইজি: প্রায় চল্লিশ বছর ধরে আস্তুরীয় ভাষায় স্কুল থাকলেও সেখানে ইচ্ছে মতো ভাবে খুব অনিশ্চিত উপায়ে মাত্র কয়েক ঘণ্টার নির্দেশনা দেওয়া সেসব কেন্দ্রগুলোতে বিষয়টিকেই খুঁজে পাওয়া কঠিন এবং শিক্ষকদের অবস্থা খুবই নাজুক। বিষয়টিকে আমরা সাধারণীকরণ করে আরো বেশি সময় দিতে পারলে আমাদের আরো সম্ভাবনা বাড়তো। তবে এটাও যথেষ্ট নয়, আমাদের অল্প-বয়সীদের জন্যে অডিওভিজ্যুয়াল, সঙ্গীত, অ্যাপ্লিকেশন, গেমস আকারে আকর্ষণীয় বিষয়বস্তু তৈরি করতে হবে। আমাদের ভাষাটিকে ভবিষ্যতের কর্মসংস্থানের জন্যে উপযোগী, বক্তাদের পছন্দসই এবং জীবনের জন্যে মজাদার করে তুলতে হবে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .