বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

“বুদ্ধিমান” সেন্সরশিপ বিষয়ক আলোচনার ভেতরেই ফেসবুক অবরুদ্ধ রাখার ঘোষণা দিল ইরান

A user logs onto Facebook from their phone. Photo from Flickr User: Maria Elena (CC: AT)

একজন ব্যবহারকারী তার ফোন থেকে ফেসবুকে লগ ইন করেছেন। ছবিঃ ফ্লিকার ব্যবহারকারি মারিয়া ইলেনা (সিসি: এটি)

ইরানে “বুদ্ধিমান” ফিল্টারিং ইন্টারনেট নীতির বাস্তবায়ন সংক্রান্ত আলোচনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। “বুদ্ধিমান” ফিল্টারিং হচ্ছে এমন একটি প্রক্রিয়া যেখানে তারা সমগ্র সাইটে ফিল্টারিং না করে বরং শুধু সামাজিক যোগাযোগ প্ল্যাটফর্মের কিছু নির্বাচিত বিষয়বস্তু ফিল্টার করে থাকেন। আমাদের সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, ইন্সটগ্রামেও এই অভিযান বিস্তৃত হয়েছে। “বুদ্ধিমান” ফিল্টারিং এর আলোচনার জবাবে অপরাধ বিষয়বস্তু নির্ধারণে দায়িত্বপ্রাপ্ত কমিটির (সিসিডিওসি) একজন উপদেষ্টা আব্দুলসামাদ খোরামাবাদি গত ৫ মে তারিখে তাবনাক নিউজ’কে বলেছেন, “অবশ্যই ফেসবুক এই ধরনের [স্মার্ট] ফিল্টারিং এর আওতাভুক্ত থাকবে না, বরং সম্পূর্ণরূপে বন্ধ থাকবে।”

গত ১৪ মে তারিখে এই নীতির ব্যাপারে মন্তব্য করতে গিয়ে নিউ ইয়র্ক ভিত্তিক ইরানের মানবাধিকার বিষয়ক আন্তর্জাতিক প্রচারাভিযান বলেছে,

ফেসবুকে নিষেধাজ্ঞার এই ধারাবাহিকতায় এটাই প্রতীয়মান হয় যে ইরানী কর্মকর্তারা সামাজিক মিডিয়া নেটওয়ার্ককে গভীরভাবে ভয় পান, যা ইরানে অতিশয় জনপ্রিয় বলে প্রমানিত হয়েছে। বিশেষকরে, তরুণ প্রজন্মের মধ্যে।

ফেসবুকর মতো এইচটিটিপিএস প্রোটোকল ব্যবহারকারি নেটওয়ার্কে সরকার কিভাবে এই প্রোগ্রাম বাস্তবায়ন করবে, সে ব্যাপারে সামাজিক নেটওয়ার্কিং সাইটে “বুদ্ধিমান” ফিল্টারিং সম্পর্কে ইরানের পূর্ববর্তী আলোচনা কখনই তা খোলাসা করেনি। এনক্রিপশনবিহীন (উন্মুক্ত) ইন্সটগ্রামে এপিআই মাধ্যমেই কেবল এই কার্যক্রমের বাস্তবায়ন হয়েছে বলে জানা যায়।

এই ঘোষণা সম্পর্কে আরও তথ্যের জন্য মানবাধিকার বিষয়ক আন্তর্জাতিক প্রচারাভিযান এর সাম্প্রতিক প্রতিবেদন দেখুন: “ইরানী কর্মকর্তারা পুনরায় দৃঢ়তার সাথে ঘোষণা দিয়েছেন যে ইরানে ফেসবুক সম্পূর্ণরূপে অবরুদ্ধ থাকবে।” “বুদ্ধিমান” ফিল্টারিং সম্পর্কে প্রযুক্তিগত তথ্য বোঝার জন্য, ফ্রেডেরিক জ্যাকব এর ইন্সটগ্রাম টেস্টিং এবং গিটহ্যাব এর বিশ্লেষণ দেখুন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .