বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মাইক্রোওয়েভে জ্যান্ত বিড়াল ঢুকিয়ে দিয়েছে এক লেবানিজ

A Lebanese man microwaved a cat, while his friend filmed the process. Blogger Joey Ayoub tracks down the culprits

লেবাননের এক যুবক মাইক্রোওয়েভের ভিতরে বিড়াল ঢুকিয়ে দিয়ে চালু করে দিয়েছে। আর তার বন্ধু সেটার ভিডিও করছে। ব্লগার জোয়ি আইয়ুব অপরাধীদের ধরার চেষ্টা করেছেন।

লেবাননের এক তরুণের মাইক্রোওয়েভের ভিতরে জ্যান্ত বিড়াল দেয়ার ভিডিও অনলাইনে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। ভিডিও-তে দেখা গেছে, এক তরুণ মাইক্রোওয়েভের ভিতরে বিড়াল দিয়েছে আর অন্যজন তার বন্ধু সেটার ভিডিও করছে। পরে এই ভিডিও ফেসবুকে আপলোড করে তারা। ব্লগার জোয়ি আইয়ুব অপরাধীদের পরিচয় উদ্ধার করতে একটি ব্লগ পোস্ট করেছেন। সেখানে তাদের খুঁজে পাবার বিষয়টি তদারক করছেন:

আশা করি বিড়ালটির খুব কম অংশই পুড়ে গেছে। মারা যায় নি। বিড়ালটি পাওয়া মাত্রই আমি ভিডিওটি মুছে দিবো। আমার পোস্ট দেয়ার একমাত্র কারণ, বিড়ালটি পেতে এনজিও'রা যুবকটিকে খুঁজছে। বিড়ালের যথাযথ যত্ন দরকার। […]

আপনি যদি জানেন তারা কোথায়, তাহলে আমাদের জানান।

আইয়ুব অপরাধীদের নাম ধরে বলেছেন:

মোহাম্মদ জাল্লাদ আর হাসান হাম্মুদ, আপনারা যদি এই পোস্টটি পড়ে থাকেন, তাহলে আপনাদের বলবো, বিড়ালটিকে বৈরুত ফর দ্যা এথিক্যাল ট্রিটমেন্ট অব অ্যানিমাল (বিইটিএ) (৭০-২৪৮৭৬৫) এবং অ্যানিমালস লেবানন (০১-৭৫১৬৭৮) এর মতো কোনো একটি এনজিও'র হাতে তুলে দিন। তাদের সাথে যোগাযোগ করা খুব সহজ। বললেই তাদের কেউ একজন এসে বিড়ালটি নিয়ে যাবে। সেটা যদি না করেন, তাহলে আপনারা যা করেছেন কোনোভাবেই জাস্টিফাই করতে পারবেন না। অসুস্থ এবং ভয়ংকর কাজ এটা।

তিনি আরো যোগ করেন:

দেখে মনে হচ্ছে বিড়ালটি বোধহয় বেঁচে যাবে। আর দুর্ভাগ্যজনকভাবে আপনাদের নাম অতি দ্রুত ছড়িয়ে যাবে- তা যদি এখনো নাও যায়- সবচে’ বাজে ধরনের অপরাধ ধর্ষকামিতার সাথে আপনাদের নাম জড়িয়ে যাবে। জীবজন্তুকে কষ্ট দেয়ার মধ্যে মানুষকে কষ্ট দেয়ার মজা যে টের পাওয়া যায়, আমি সেই কুখ্যাত যোগাযোগের কথা বলছি। এটা দেখতে মোটেও শোভন নয়।

আইয়ুবের বক্তব্য অনুসারে, হাম্মুদ বিড়ালকে মাইক্রোওয়েভের ভিতরে দিয়েছিলেন। আর জাল্লাদ সেই সময়ে সেটার ভিডিও করেছিলেন।
একজন পাঠক মন্তব্য করেছেন:

ভিডিও দেখার দরকার নেই। লেবাননের সোশ্যাল মিডিয়ার প্রথমবারের মতো জীবজন্তু'র নির্যাতনকারীর নাম প্রকাশ পেল। প্রাণি অধিকার রক্ষার জন্য এটা বড়ো একটা অগ্রগতি। আমরা যারা পশু-পাখি ভালোবাসি, তাদের পক্ষ থেকে আপনার প্রতি কৃতজ্ঞতা!

নেটিজেনরা টুইটারে ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন:

আহমাদ ইয়াসিন লিখেছেন:

আমি ভিডিও দেখেছি। একজন লোক তার বিড়ালটিকে মাইক্রোওয়েভের ভিতরে দিচ্ছে। #লেবাননে তরুণ অপরাধীর সংখ্যা বাড়ছে। তাকে যতো দ্রুত সম্ভব থেরাপি দেয়া দরকার!

ফিলিপ ফারা পুলিশকে পদক্ষেপ নেয়ার আহবান জানিয়েছেন:

মোহাম্মদ জাল্লাদ এবং হাসান হাম্মুদকে গ্রেফতার করার জন্য আমি পুলিশকে আহবান করছি। মাইক্রোওয়েভে বিড়াল ঢুকিয়ে জঘন্য কাজ করেছে তারা।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .