বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

নেটনাগরিক প্রতিবেদন: কাশ্মীরে এখনো ইন্টারনেট বন্ধ চলছে

কাশ্মীরের বৃহত্তম শহর শ্রীনগরে ২০১৭ সালে আরোপিত নিষেধাজ্ঞার সময় সামনে এগুতে বাধা দেয়া একজন পুলিশ সদস্যের মুখোমুখি কাশ্মীরি মহিলা প্রতিবাদকারী। ইশান ওয়ানির ছবি, অনুমতি নিয়ে ব্যবহৃত।

অ্যাডভক্স নেট-নাগরিক প্রতিবেদন বিশ্বজুড়ে ইন্টারনেট অধিকারগুলির ক্ষেত্রে বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতা, সমস্যা থেকে উত্তরণ এবং উদীয়মান প্রবণতাগুলির একটি আন্তর্জাতিক আলোকপাত উপস্থাপন করে। এই প্রতিবেদনটিতে ২০১৯ সালের আগস্ট মাসের ৯ থেকে ২১ তারিখের বিভিন্ন সংবাদ এবং ঘটনা কাভার করা হয়েছে।

ভারত সরকার ভারতীয় অংশের কাশ্মীরের বিশেষ স্বায়ত্তশাসিত অবস্থান প্রত্যাহারের পর গত ৫ আগস্ট থেকে এই অঞ্চল যোগাযোগের অন্ধকারে রয়েছে।

এর প্রতিক্রিয়া হিসাবে প্রতিবাদগুলো বিক্ষোভকারী এবং রাস্তায় সক্রিয়ভাবে টহলরত ভারতীয় সামরিক ও পুলিশ কর্তৃপক্ষের মধ্যে সহিংস সংঘাতের জন্ম দিয়েছে। ৫ আগস্ট থেকে শত শত বিক্ষোভকারী এবং এই লড়াইয়ে জড়িয়ে পড়া আরো অনেককে আটক করা হয়েছে।.

৪ আগস্ট তারিখে ইন্টারনেট সেন্সর গবেষণা গোষ্ঠী নেটব্লকস ইতোমধ্যে গুরুতর নেটওয়ার্ক বিঘ্ন চলার অভিযোগ করেছে:

জরুরী: সন্ধ্যা ৬টা থেকে বৃহদাকারে ভারতীয় ব্যাকবোন অ্যাক্সেস বিচ্ছিন্নতাসহ #শ্রীনগর, #কাশ্মীরে তীব্র ইন্টারনেট বিঘ্ন নিবন্ধিত; তথ্যের অন্ধকার তাৎক্ষণিকভাবে ব্যক্তিবর্গের সুরক্ষা এবং অধিকারের ঝুঁকি সৃষ্টি করেছে; ঘটনা চলমান #এটা_চালু_রাখুন

ইন্টারনেট বিভ্রাট কাশ্মীরীদের জন্যে নতুন কিছু নয় – এই অঞ্চলটি ২০১৮ এবং ২০১৯ সালে বিশ্বের যে কোন অঞ্চলের তুলনায় বেশি পরিমাণ ছোট থেকে শুরু করে মাঝারি মেয়াদী ইন্টারনেট বন্ধ থাকার কুখ্যাত শিরোনাম নিয়ে গর্ব করে।

কিন্তু যোগাযোগের অন্ধকার ইন্টারনেট অ্যাক্সেসের চেয়ে অনেক বেশি সীমানা ছাড়িয়েছে।  টানা ১২ দিন ধরে মোবাইল এবং এমনকি ল্যান্ডলাইন টেলিফোনের পরিষেবা বন্ধ কাশ্মীরীদের পাশের অঞ্চলসহ বিশ্বের অন্যান্য অংশ থেকে পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছিল। এএফপির একটি প্রতিবেদনে বর্ণনা করা হয়েছে এই অঞ্চলের বৃহত্তম শহর শ্রীনগরের কাশ্মীরীরা কীভাবে জনপ্রতি দুই মিনিট বাইরে ফোন করে কথা বলার জন্যে সরকারী অফিসে ঘন্টার পর ঘন্টা লাইন দিয়ে দাঁড়িয়েছিল।

কাশ্মীরে ইন্টারনেট অ্যাক্সেস সীমার বাইরে থাকলেও অনেক পাকিস্তানি কাশ্মীরের পরিবর্তনের নিন্দা করার জন্যে টুইটারে এসেছে। তবে তারাও সেন্সরের আওতায় রয়েছে। সাংবাদিক, রাজনৈতিক কর্মী এবং এমনকি পাকিস্তানি সরকারী কর্তৃপক্ষগুলোও কাশ্মীরীদের অধিকারের সমর্থনে টুইট করা বা এই অঞ্চলে ভারতীয় সরকারের পদক্ষেপের সমালোচনা করার পরে অনেক অ্যাকাউন্ট স্থগিত করার কথা জানাচ্ছে।

১২ আগস্ট তারিখে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কাশ্মীরে “ভুল তথ্য ও গুজব ছড়িয়ে শান্তি ও স্থিতি বিঘ্নিত” করার জন্যে আটটি অ্যাকাউন্ট “স্থগিত” করতে টুইটারকে বলেছে। ২০ শে আগস্ট তারিখে পাকিস্তানের টেলিযোগযোগ কর্তৃপক্ষ টুইটারের কাছে ভুলভাবে এবং দৃশ্যত (পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষের মতে) কাশ্মীরের সাথে সংহতি প্রকাশের বার্তা টুইট করার পরে  ২০০টি অ্যাকাউন্ট স্থগিত করা হয়েছে দাবি করে একটি অভিযোগ দায়ের করেছে

আলজেরিয়া সামাজিক মাধ্যম ও গুগল পরিষেবা অবরুদ্ধ করেছে

১৮ আগস্ট তারিখে আলজেরিয়ায় গুগলের দেওয়া ইউটিউব এবং অন্যান্য পরিষেবার সংযোগ কয়েকঘণ্টার জন্যে অন্ধকারে ছিল। মনে হচ্ছে এই বিঘ্নটি সামরিক জেনারেল আহমেদ গাইদ সালাহের গণক্ষমতাচ্যুতির প্রতি সমর্থন প্রকাশক বার্তা মনে করা প্রাক্তন প্রতিরক্ষামন্ত্রী খালেদ নেজারের সেনাবাহিনীকে “জনগণের দাবী আদায় করা”র আহ্বান জানানো একটি ভাইরাল ভিডিওর প্রতিক্রিয়া। মার্চ মাসে আলজেরিয়ায় শুরু হওয়া বিক্ষোভের ফলে দীর্ঘদিনের শাসক আবদেলাজিজ বুতেফ্লিকার পদচ্যুতি ঘটে।

সামাজিক মাধ্যমে প্রতিবাদের ডাক দেওয়ার পর নাইজেরীয় রাজনৈতিক কর্মীগ্রেপ্তার

অপশাসনের বিরুদ্ধে দেশব্যাপী বিক্ষোভের ডাক দেওয়ার পর নাইজেরিয়ার নিরাপত্তাবাহিনী বিশিষ্ট মানবাধিকার কর্মী ও অনুসন্ধানী সংবাদ সাইট সাহারা রিপোর্টারসের প্রকাশক ওমোয়েলে সোভোরেকে ৩ আগস্ট তারিখে গ্রেপ্তার করেছে। #এখনি_বিপ্লব হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে সোভোরে দেশে একাধিক সশস্ত্র সংঘাত এবং বেসামরিক নাগরিকদের জন্যে তাদের মারাত্মক পরিণতির দিকে ইঙ্গিত করেছেন। “রাষ্ট্র হিসেবে নাইজেরিয়া ব্যর্থ হয়েছে এবং যতক্ষণ না আমরা বড়মাপের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ [সমন্বিত প্রতিবাদ আন্দোলন] গ্রহণ করি … নাইজেরিয়া তার সম্ভাবনাগুলো অর্জন করতে পারবে না।”

তাকে ২০১১ সালের সন্ত্রাসবাদ আইনের আওতায় আটক করা হয়েছে। আইনটি অনুসারে নাইজেরিয়ার রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা পরিষেবার একটি অংশ রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা বিভাগ (ডিএসএস)-কে “সহিংস কর্মকাণ্ড” পরিকল্পনা করা যে কাউকে আটক করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ এনে তাকে দোষী সাব্যস্ত করা গেলে সোভোরের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড বা জরিমানা অথবা উভয়ই হতে পারে। তাকে গ্রেপ্তার করা হলেও চারটি রাজ্যে এবং রাজধানী আবুজাসহ দেষের চারটি প্রদেশ জুড়ে এখনও বিক্ষোভ চলছে।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত মৌরিতানীয় ব্লগারের মুক্তি লাভ

সংবাদপত্র অ্যাক্লামে এর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত মতামত প্রবন্ধে ধর্মদ্রোহিতার কারণে ২০১৪ সালে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত মৌরিতানীয় ব্লগার মোহাম্মদ শেখ উলদ মাখাইতিরকে গত ৩০ জুলাই তারিখে কারামুক্ত করা হয়েছে।  কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছিল যদি আবেদনের কারণে ২০১৭ সালে তার সাজা কমানো হলেও তার আসল গ্রেপ্তারের দিন থেকে তিনি কারাগারে বন্দি ছিলেন। নিরাপত্তার কারণে এরপরে তাকে অন্য আরেকটি দেশে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।

উলদ মাখাইতির তার নিবন্ধে মৌরিতানিয়ার বৈষম্যমূলক বর্ণ ব্যবস্থাকে ন্যায়সঙ্গত করার জন্যে ধর্মের ব্যবহারের সমালোচনা করার ক্ষেত্রে নবী মুহাম্মদের জীবদ্দশার উদাহরণ দিয়েছিলেন। মৌরিতানিয়ার বর্তমান রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ উলদ গাজৌনির উদ্বোধনীর ঠিক দুদিন আগে তাকে মুক্ত করা হয়েছে।

চীনা কর্তৃপক্ষ মূল ভূখণ্ডের সীমান্তে হংকংবাসীদের ফোন অনুসন্ধান করছে

২০১৯ সালের জুলাই মাসের প্রথম দিক থেকে হংকংয়ের বাসিন্দারা সামাজিক মাধ্যমে মূল ভূখণ্ড চীন ভ্রমণ করার সময় তাদের মোবাইল ফোন পরীক্ষা করার অভিযোগ করছে। সীমান্ত পুলিশ কর্মকর্তারা প্রত্যর্পণবিরোধী ছবি, ভিডিও এবং গ্রুপ চ্যাট পরীক্ষা করার জন্যে ডিভাইস স্ক্যান করছে বলে মনে হচ্ছে। বিক্ষোভে যোগদানের প্রমাণ দেখানো ভ্রমণকারীদের আরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। কিছু কিছু লোককে ভবিষ্যতে প্রতিবাদে অংশ না নেয়ার আশ্বাসের চিঠি লেখার জন্যে চাপ দেওয়া হয়েছে। অন্তত একটি ক্ষেত্রে, পুলিশ সক্রিয় প্রতিবাদকারী হিসাবে চিহ্নিত এক ব্যক্তিকে ডিএনএ নমুনা দিতে বলেছিল।

নতুন আইন কিউবার বৃহত্তম স্থানীয় অঞ্চলের নেটওয়ার্ক বন্ধ করে দিতে পারে

কিউবার যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের দুটি নতুন রেজুলুশন স্থানীয় অঞ্চল নেটওয়ার্ক – ল্যান নামে পরিচিত বৈশ্বিক ইন্টারনেটের সাথে সংযুক্ত না হওয়া সম্প্রদায়ের তৈরী আইপি-ভিত্তিক নেটওয়ার্ক – গুলির ক্ষেত্রে সুরক্ষিত অবস্থান নিয়েছে। রেজুলুশন ৯৮ এবং ৯৯  এই ধরনের প্রযুক্তির ক্ষেত্রে কঠোর বিধিনিষেধ স্থাপন করেছে যার ফলে কেউ এর সাথে যুক্ত হতে চাইলে তাকে প্রথমে রাষ্ট্রের দেয়া অনুমতি নিতে হবে।

স্বাধীনভাবে পরিচালিত ১৫ বছর ধরে চালু হাভানায় আনুমানিক ৪০,০০০ জনকে  সেবা প্রদানকারী কিউবার বৃহত্তম ল্যান এসএনইটিসহ সারাদেশে স্থানীয়ভাবে পরিচালিত কয়েক ডজন নেটওয়ার্ককে এই নিয়মগুলির কারণে বন্ধ হয়ে যেতে বাধ্য হতে পারে। মূলত গেমার এবং তরুণ কম্পিউটার বিজ্ঞান শিক্ষার্থীদের  তৈরী নেটওয়ার্কটিতে এখন স্থানীয়ভাবে জন্ম নেওয়া সামাজিক মিডিয়ার বিভিন্ন সাইট, ব্লগ, পণ্য কেনা-বেচার জন্যে জায়গা এবং উইকিপিডিয়ায় একটি স্থির সংস্করণ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

এসএনইটি দীর্ঘদিন ধরে কম্পিউটার আছে এমন সবার সহজ প্রবেশযোগ্য ছিল। তারা রাস্তার উপর দৃশ্যমান একটি অ্যাপার্টমেন্টের বিল্ডিংয়ের সাথে আরেকটিকে সংযুক্ত করা ভূমির উপর দিয়ে চলা কেবলের মাধ্যমে এসব নেটওয়ার্কের যে কোনটির সাথে যুক্ত হতে পারে। তবে নতুন নিয়মগুলির কারণে কিউবার ইন্টারনেট সংযোগের অভাব ঘোচানো অনন্য সম্প্রদায় পরিচালিত এই সমাধানটি হয়তো আর টিকে থাকতে পারবে না।

রাশিয়া গুগলকে ‘অবৈধ’ প্রতিবাদী ভিডিও প্রচার বন্ধ করতে চাপ দিচ্ছে

রাশিয়ার মিডিয়া নিয়ন্ত্রক বিভিন্ন পুশ বিজ্ঞপ্তি এবং তাদের মতে অবৈধ বিক্ষোভসমূহের ভিডিও এবং লাইভ স্ট্রিমগুলি প্রচার করা অন্যান্য বৈশিষ্ট্যগুলি বন্ধ করার জন্যে গুগলকে চাপ দিচ্ছে। ১০ আগস্ট তারিখে একটি আসন্ন ভোট থেকে বেশ কয়েকজন বিরোধী প্রার্থী অযোগ্য ঘোষিত হওয়ার পরে নাগরিকরা অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে মস্কো জুড়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছিল।

তথ্য নিয়ন্ত্রণের উদ্বেগ সত্ত্বেও গুগল মিশরে তার দরজা খুলেছে

অভ্যুত্থানের মাধ্যমে রাষ্ট্রপতি ও প্রাক্তন সামরিক সেনানায়ক আবদেল ফাত্তাহ আল সিসি ক্ষমতায় আসার পর গুগল তার মিশর অফিস ২০১৪ সালে দুবাইয়ে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কয়েক বছর পর আবার খুলতে যাচ্ছে। কোম্পানিটির চীনা অধ্যায়ের  মতো এখানেও কোম্পানিটির কর্মকাণ্ড ও কর্মচারীরা সরকারী চাপে ঝুঁকির মুখে পড়তে পারে রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের এমন উদ্বেগ সত্ত্বেও দেশটি রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ফিরে পেয়েছে মনে করেই এই অফিসটি পুনরায় খোলা হবে।

তুর্কি কর্তৃপক্ষ যেভাবে টুইটারের ‘দেশের মধ্যে বিষয়বস্তু স্থগিতকরণ’ নীতি কাজে লাগাচ্ছে

আঙ্কারার একটি আদালত টুইটারকে জাতীয় সুরক্ষা এবং জনশৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে চারজন ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট স্থগিত করার নির্দেশ দিয়েছে। অ্যাকাউন্টগুলির মালিক একজন বিরোধীদলীয় রাজনীতিবিদ, একটি সংগীত দল এবং গেজি পার্ক প্রতিবাদ আন্দোলনের সাথে যুক্ত দুটি সত্তা।

টুইটার এখনও এর সাথে সঙ্গতি বিধান করেনি। তবে এটা না করলে তারা তুরস্কে অবরুদ্ধ হওয়ার ঝুঁকিতে পড়তে পারে। ব্যবহারকারীরা একটি দুর্নীতির তদন্তে  তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী রেসেপ তাইয়িপ এরদোয়ানের কাছের মানুষদের জড়িত করা একটি অডিও রেকর্ড ছড়িয়ে দেয়ার কারণে ২০১৪ সালে তুর্কি সরকার টুইটার অবরুদ্ধ করেছিল। সেসময় সরকার বলেছিল যে আদালত স্থানীয় আইন লঙ্ঘন করা কিছু লিঙ্ক অপসারণের করার আদেশ দিলেও টুইটার তার প্রতি সাড়া দেয়নি।

টুইটার হংকংয়ে ‘বিবাদ বপণে’ সচেষ্ট চীনভিত্তিক কিছু অ্যাকাউন্ট বাদ দিয়েছে

১৯  আগস্ট তারিখে টুইটার চলমান প্রত্যর্পণবিরোধী আন্দোলনের সাথে সম্পর্কযুক্ত হংকংয়ে “রাজনৈতিক বিভেদের বীজবপণের প্রচেষ্টারত” চীনা মূল ভূখণ্ড থেকে উদ্ভুত ৯৩৬টি অ্যাকাউন্ট স্থগিত করেছে। অ্যাকাউন্টগুলির ক্রিয়াকলাপ তদন্তের পর টুইটার এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছিল যে তথ্য অভিযানটি রাষ্ট্র-সমর্থিত এবং একাধিক মঞ্চনীতি লঙ্ঘন করেছে। সংস্থাটি তার ঘোষণার অংশ হিসাবে অ্যাকাউন্টগুলির বার্তার ইতিহাসসহ সম্পূর্ণ নথি উপস্থাপন করেছে।

সংস্থাটি ব্যাখ্যা করেছে যে ২০০৯ সাল থেকে চীনে টুইটার অবরুদ্ধ থাকা সত্ত্বেও উল্লিখিত কয়েকটি অ্যাকাউন্ট চীনা মূল ভূখণ্ড থেকে উদ্ভুত নির্দিষ্ট অবরোধহীন আইপি ঠিকানা থেকে টুইটারে প্রবেশ করেছিল। উপরন্তু এই ৯৩৬টি অ্যাকাউন্ট ছিল অভিযানের অংশ হিসাবে তৈরি প্রায় ২ লক্ষ অ্যাকাউন্টের বৃহৎ নেটওয়ার্কের মধ্যে সবচেয়ে সক্রিয়।

টুইটার *কিছু* রাষ্ট্রীয় মাধ্যমকে বিজ্ঞাপন কিনতে বাধা দেবে

হংকং-সম্পর্কিত কার্যক্রমের জন্যে কয়েকশো-বেইজিংপন্থী অ্যাকাউন্ট স্থগিত করার খুব অল্প সময়ের পরেই তার মঞ্চে রাষ্ট্রীয় মদদপুষ্ট বিভিন্ন মিডিয়া সংস্থার বিজ্ঞাপন কেনা নিয়ন্ত্রণের পরিকল্পনা ঘোষণা করেছে টুইটার। সংস্থাটি বলেছে যে নতুন নীতি এধরনের প্রচারমাধ্যমকে টুইট করা থেকে বিরত রাখবে না – এটি কেবল তাদের বিজ্ঞাপন কিনতে বাধা দেবে।

এই বিধানে কোন ধরনের মিডিয়া সংস্থাগুলি প্রভাবিত হবে? একটি প্রাতিষ্ঠানিক বিবৃতিতে জোর দিয়ে বলা হয়েছে যে নীতিটি “স্বাধীন পাবলিক সম্প্রচারকসহ করদাতাদের পয়সায় পরিচালিত সংস্থাগুলির ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে না”, তবে এটি “সংবাদমাধ্যম সত্তাগুলির ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে যেগুলো আর্থিক বা সম্পাদকীয়ভাবে রাষ্ট্র দ্বারা নিয়ন্ত্রিত।” হয়তো এটি কিছু সংস্থাকে আইনী ধূসর অঞ্চলে ছেড়ে দিতে এবং সরকারিভাবে অর্থায়নকৃত সত্তাগুলির বক্তব্যের ন্যায় নির্ণয়ের ক্ষেত্রে বেসরকারি ইন্টারনেট সংস্থাগুলির ভূমিকাকে আরও প্রশ্নবিদ্ধ করতে পারে।

নেটনাগরিক প্রতিবেদনের গ্রাহক হোন

 

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .