বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

রেল ক্রসিং এর সামনে ট্রেন চলে যাওয়ার অপেক্ষার সময় নাগরিকেরা কি নিয়ে টুইট করে?

Shakuji Park Crossing, Seibu Ikebukuro Line, Tokyo. Screencap from YouTube user hitorikamonen channel.

সাকুজি পার্ক-এর রেল ক্রসিং, সেইবু ইকেবুকারো লাইন,টোকিও। স্ক্রিনশট ইউটিউব ব্যবহারকারী হিতোরিকামোনেন-এর।

বেশ কয়েকটি উৎস থেকে জানা গেছে যে জাপানের টোকিও নগরকে ঘিরে রেখেছে ৩,০০০ কিলোমিটারের রেললাইন, যার কারণে জাপানের রাজধানী শহর বিশ্বের সর্বোচ্চ ঘনত্বের রেললাইনের নগরীতে পরিণত হয়েছে।

যখন টোকিওর বাসিন্দাদের জন্য বিষয়টি রেল যোগাযোগকে সহজ এবং গ্রহণযোগ্য করে তুলেছে, তখন টোকিওর ৩৪,০০০ টি রেলক্রসিং (ফুমুকিরি, 踏切,), গাড়ির আরোহী, সাইকেল চালক এবং পথচারীদের জন্য কখনো কখনো দীর্ঘ অপেক্ষার কারণ হয়ে দাড়ায়।

জাপানের মাটামো নাভেরা নামক প্রখ্যাত ইন্টারনেট মেমে শেয়ার করা সম্প্রদায়ের এক সদস্য, রেল ক্রসিং এর সামনে ট্রেন অতিক্রম করার অপেক্ষায় রত নাগরিকেরা কি ধরণের টুইট করে, সে বিষয়ে এক জনপ্রিয় পোষ্ট সংগ্রহ করেছে। এইগুলো রাজধানীর বিভিন্ন ব্যক্তির সবচেয়ে বিস্তারিত ভাবে শেয়ার করা অভিজ্ঞতা।

তাহলে, আপনার ট্রেন আপনাকে আজ কতক্ষণ অপেক্ষা করে রেখেছিল?

রেলক্রসিং এর সামনে ট্রেন অতিক্রম করে যাওয়ার অপেক্ষায় থাকা অবস্থায় কিছু ব্যক্তি অস্বাভাবিক/ অন্যরকম ও মজাদার কিছু কাহিনী তুলে ধরে, সাধারণত যা তারা আশেপাশে দেখে থাকে।

রেলক্রসিং-এর সামনে ট্রেন অতিক্রম করে যাওয়ার অপেক্ষায় থাক এক ব্যক্তি খুব বিনয়ের সঙ্গে এক ঘোড়ার পেছনে লাইন ধরে দাঁড়িয়ে আছে।

রেল ক্রসিং-এর সামনে ট্রেন যাওয়ার অপেক্ষায় থাকার সময়টা অনেককে আশেপাশের বিষয়ের প্রতি আরো নিবিড় ভাবে পর্যবেক্ষণ করার সুযোগ প্রদান করে।

রেলক্রসিং এর সামনে ট্রেন অতিক্রম করে যাওয়ার অপেক্ষার সময়, আমি দেখতে পেলাম আমার পাশে একটা বেড়াল এসে উদয় হল…

অন্যরা সাধারণত এই ধরণের পরিস্থিতি এড়াতে বইয়ের মধ্যে মাথা গুজে থাকে।

ট্রেনের সময়সূচী একবারে এলোমেলো হয়ে গেছে আর ১৫ মিনিট সময় ধরে রেলক্রসিং-এর গেট খুলছে না। তাই আমি এক বইয়ের মধ্যে ডুবে গেছি।

আর অন্যেরা আশেপাশের লোকজনের প্রতি মনোযোগ প্রদান করে।

লেভেলক্রসিং (রেলক্রসিং)-এ একটি ট্রেন থেমে রয়েছে, যার ফলে এর গেট বন্ধ হয়ে আছে। গেটের ফ্ল্যাগে ক্যারাতের ভঙ্গিতে আঘাত করে এক প্রবীণ ব্যক্তি তার সময় কাটাচ্ছে।

ট্রেন অতিক্রম করে যাওয়ার জন্য অপেক্ষায় রত এক ব্যক্তি উঠবস ব্যায়ামের অনুশীলন করছে।

এই সাধারণ এবং সময় ক্ষেপন করা প্রতিবন্ধকতা এড়িয়ে পার হয়ে যাওয়ার বিষয়টি অনেক সময় ট্রেনের অতিক্রম করার অপেক্ষার চেয়ে আরো বেশী যন্ত্রণাদায়ক হয়।

লেভেল ক্রসিং-এর গেট নেমে গেছে, কাজে আমার মনে হয় আমার বিকল্প পথ গ্রহণ করা উচিত। তবে আমি ভয়াবহ ভাবে ব্যর্থ হয়েছি, আর এখন আমার পায়ের আঙ্গুলের চামড়া ছিলে গেছে। আমার মনে হয় পরের বার আমার কোন ভাবে দেওয়ালে চড়ার চেষ্টা না করাই ভাল।

সাধারণত যখন আমি লেভেল ক্রসিং সামনে অপেক্ষা করার বদলে লম্বা বিকল্প পথ গ্রহণ করার চেষ্টা করি, তখন প্রতিবার আমি পথ হারাই।

কখনো কখনো অপেক্ষায় রত ব্যক্তিরা দূর্লভ ট্রেনের মুখোমুখি হয়:

এই ঘটনায় কখনো কখনো কোন ব্যক্তি তাদের চারপাশের সৌন্দর্য্য অবলোকন করতে পারে।

এখন সকাল বেলা, আমি ক্রসিং এর সামনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছি এবং আমি এই মিষ্টি পায়ের ছাপ আবিস্কার করেছি।

きのうの踏切越しの虹。

A photo posted by @kotobano_aya on

গতকাল আমি লেভেল ক্রসিং-এর উপরে রংধনু দেখতে পেয়েছিলাম

(জাপানী ভাষায় লেখা) আরো কিছু টুইট এখানে পাঠ করতে পারেন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .