বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

আমেরিকায় প্রথম মুক্ত আফ্রিকান শহর দেখতে চান? মেক্সিকোতে যান

Statue of Gaspar Yanga. Photo by Erasmo Vasquez Lendechy via Wikipedia. Used under a Creative Commons license

গাস্পার ইয়াঙ্গার ভাস্কর্য। উইকিপিডিয়ার জন্য ছবি তুলেছেন ইরাসমো ভাসকুয়েজ। ক্রিয়েটিভ কমন্স লাইসেন্সের আওতায় ব্যবহার করা হয়েছে।

লুপিতানিউজে পোস্টটি প্রথম প্রকাশিত হয়েছে।

গাছপালা ঘেরা ছায়া সুনিবিড় সুন্দর একটি শহর। সবাই একে ইয়াঙ্গা নামেই চেনে। এর অবস্থান মেক্সিকান উপসাগর বরাবর দক্ষিণ-পূর্বে ভেরাক্রুজে। একদা একসময়ে আফ্রিকা থেকে অভিবাসীরা এসে এখানে যে বসতি স্থাপন করেছিল, তার জানান দেয় এই শহর।

আমাদের গন্তব্য ছিল পোর্ট অব ভেরাক্রুজ। কিন্তু পথে আমরা ইয়াঙ্গা শহরে থেমেছিলাম। শহরের চারপাশে রাশি রাশি আখ আর ভুট্টা ক্ষেত। তবে কফি ক্ষেতও ছিল কিছু। আর ছিল ক্রান্তীয় আবহাওয়া, যা আমাদের সাদর অভ্যর্থনা জানিয়েছিল।

শহরের অধিবাসীরা দাবি করে থাকেন, ১৬৩১ সালের ৩ অক্টোবর আমেরিকায় প্রথম মুক্ত আফ্রিকান শহর হিসেবে ইয়াঙ্গা প্রতিষ্ঠিত হয়। আফ্রো-মেক্সিকানরা খুব গর্ব করে শহরটি কীভাবে প্রতিষ্ঠিত হলো, তার গল্প বলে থাকেন। ১৫৭০ সালের দিকে গ্যাবনের ইয়াং-বারা গোত্রের এক যুবরাজ স্প্যানিশদের হাত থেকে তাদেরকে মুক্ত করতে সাহায্য করেছিল।

শহরের একটি প্লাজার সামনে তার ভাস্কর্য আছে। সেখানে তাকে একজন গর্বিত মানুষ হিসেবে উপস্থাপন করা হয়েছে।

শহরের দোকানপাট, বাড়িঘর, গির্জা মেক্সিকোর অন্যান্য শহরের মতোই। বেশ শান্ত, সৌম্য একটি পরিবেশ চারপাশে। কয়েকশ'বছর ধরে মানুষজন এখানে বসবাস করে আসছেন। আবার এখানেই সমাহিত হয়েছেন। আর এসব কিছুই তাদের ইতিহাসের অংশ করেছে।

1 টি মন্তব্য

  • মনি

    প্লাজার সামনের ভাস্কর্যটি দেখতে খুব সুন্দর দেখাচ্ছে। আমাদের দেশে হলে ভালো হত। ধন্যবাদ এরকম একটি তথ্য দেওয়ার জন্যঅ

আলোচনায় যোগ দিন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .