বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

এক মিউজিক ভিডিওর মাধ্যমে, ব্রাজিলে স্বাগত জানানোর জন্য শরণার্থীরা দেশটিকে ধন্যবাদ জানাচ্ছে

Screenshot from YouTube.

ইউটিউব থেকে গ্রহণ করা স্ক্রিনশট

ব্রাজিলের সাওপাওলো নগরীতে বাস করা একদল শরণার্থী তাদের জন্য ব্রাজিলের দ্বার উন্মুক্ত করে দেওয়ায় দেশটিকে ধন্যবাদ জানাতে গান লিখে তাতে সাথে সুর বেঁধে এক মিউজিক ভিডিওতে তৈরী করেছে, পাশাপাশি এই ভিডিওর উদ্দেশ্য শরণার্থী বিষয়ে স্থানীয় পর্যায়ে সচেতনতা সৃষ্টি করছে।

এই মিউজিক ভিডিওতে বিশ্বের প্রায় ৩০টি দেশের ভিন্ন ভিন্ন জাতির নাগরিক অংশগ্রহণ করেছে, যার অর্থায়ন করেছে গ্লোবাল ইয়োথ ইনিসিয়েটিভ ফান্ড, এটি ইউনাইটেড নেশনস রিফিউজি এজেন্সির (ইউএনএইচসিআর) এক কর্মসূচি, যা তরুণ শরণার্থীদের গ্রহণ করা প্রকল্পকে সমর্থন করে।

তারা সাওপাওলোর বিখ্যাত ভবনগুলোর পাশ দিয়ে হেঁটে যায়, এতে অংশ গ্রহণ করা ব্যক্তিদের মধ্যে অন্যান্যদের সাথে রয়েছে নাইজেরিয়া,সিরিয়া এবং বাংলাদেশের নাগরিক। গানের মধ্যে দিয়ে তার তুলে ধরেছে তারা কেন তাদের স্বদেশ ত্যাগ করল তার কারণ এবং ব্রাজিলে এসে তারা যে সমস্ত ভ্রান্ত ধারণার মুখোমুখি হয়েছে সে সম্বন্ধে। নীচে গানটির ইংরেজি ভাষায় তৈরী সাবটাইটেলের এই ভিডিওটি দেখুন:

বর্তমানে ব্রাজিলে শরণার্থীদের আশ্রয় গ্রহণের হার বিগত চার বছরে ১২০০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে, যা একই সাথে ব্রাজিলের নাগরিকদের দিক থেকে কৌতূহল এবং বৈষম্যের সৃষ্টি করেছে। ব্রাজিলিয়ান ন্যাশনাল কমিটি ফর রিফিউজি (কোনারে)–এর সংবাদ অনুসারে, ব্রাজিলে বর্তমানে বৈধ ভাবে ৮১টি দেশের ৭,৭০০ নাগরিক শরণার্থী মর্যাদা নিয়ে বাস করছে, যাদের বেশীর ভাগ এসেছে সিরিয়া, কলম্বিয়া এবং গণ প্রজাতন্ত্রী কঙ্গো থেকে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .