বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

সমপ্রেমের প্রসঙ্গ থাকায় সিঙ্গাপুরে গানের ভিডিও’র সম্প্রচার নিষিদ্ধ

Screenshot from Jolin Tsai's music video 'We're All Different, Yet The Same'

জলিন টিসাইয়ের ‘আমরা সবাই ভিন্ন, আমরা অভিন্ন’ শিরোনামের গানের ভিডিও’র স্ক্রিনশট।

আপডেট: সরকারের মিডিয়া ডেভেলপমেন্ট অথরিটি ‘সমপ্রেমের অনুষঙ্গ’ থাকার কথা বলে সিঙ্গাপুরের সকল স্থানীয় সম্প্রচারকারী প্রতিষ্ঠানকে এই গানের ভিডিওটি প্রচার না করার পরামর্শ দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

সম্প্রতি প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানা গেছে, তাইওয়ানের পপ সংগীতশিল্পী জলিন টিসাইয়ের ‘আমরা সবাই ভিন্ন, আমরা অভিন্ন’ শিরোনামের গানের ভিডিও’র সম্প্রচার সিঙ্গাপুরে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

সিঙ্গাপুরের মিডিয়া ডেভেলপমেন্ট অথরিটি দেশের সব টেলিভিশন ও রেডিও স্টেশনকে এই গান এবং গানের ভিডিও সম্প্রচার না করার জন্য নির্দেশ জারি করে। একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গানের কথায় সমলিঙ্গের বিবাহকে উৎসাহিত করা হয়েছে, যা সিঙ্গাপুরের রাষ্ট্রীয় আইনের সাথে সাংঘর্ষিক। উল্লেখ্য, গানের ভিডিওতে এক লেসবিয়ান দম্পতিকে দেখানো হয়েছে, যারা গত তিন ধরে একসাথে বসবাস করছেন।

সিঙ্গাপুরে সমকামী অধিকার নিয়ে যথেষ্ট বিতর্ক রয়েছে। সেখানকার রাজনৈতিকরা প্রায়শই বলে থাকেন, দেশের সাধারণ মানুষ সমকামীদের অধিকার মেনে নিতে এখনো প্রস্তুত নয়। তাছাড়া দণ্ডবিধি ৩৭৭এ ধারাকে চ্যালেঞ্জ করলেও দেশটির সুপ্রিম কোর্ট তা খারিজ করে দিয়েছে। উল্লেখ্য, ওই ধারাটিতে সমলিঙ্গের বিয়ে-কে অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হয়েছে।

গানের ভিডিও নিষিদ্ধ করাকে সিঙ্গাপুরের অনেকেই সমর্থন করেছেন। এরা সবাই পিংকডটের মতো সমকামী অধিকারের পক্ষে আন্দোলনকারী সংগঠনের বিপক্ষে কথা বলে থাকেন। ভিডিও নিষিদ্ধের প্রতি সমর্থন জানিয়ে আদি আসজর সিঙ্গাপুরে আমরা সবাই পিংকডটের বিরুদ্ধে শীর্ষক ফেসবুক পেজে লিখেছেন:

What is the purpose of this marriage? To be happy for today? To satisfy their needs for today? What about tomorrow? Who will take care of their old age needs being childless (don't talk about adoption cos the child is the offspring of a man and wife). What about the next generation – same sex marriage means, simply put, the end of the road for them. Marriage is about procreation, about a system of family with children, about education, about the future of mankind. Marriage between man and woman is the foundation of the future of mankind. This IS the core value people must NOT forget.

এই ধরনের বিয়ের উদ্দেশ্য কী? আজকে সুখী থাকা? আজকের চাহিদা পূরণে সন্তুষ্ট থাকা? তাহলে কালকে কী হবে? ছেলেমেয়ে না থাকায় বৃদ্ধ বয়সে তাদের কে দেখাশোনা করবে (গর্ভপাত নিয়ে কিছু বলতে আসবেন না। কারণ সন্তান গর্ভে আসে স্বামী ও স্ত্রী’র মিলনের মাধ্যমে)? ভবিষ্যৎ প্রজন্মের বিষয়ে কী হবে- যেখানে সমলিঙ্গের বিয়ের মানেই হলো বংশানুক্রমের অবসান। বিয়ে হলো এমন একটি ব্যবস্থা, যেখানে পরিবার থাকবে, ছেলেমেয়ে থাকবে, তাদের শিক্ষা দেয়ার ব্যবস্থা থাকবে, মানব জাতির ভবিষ্যৎযাত্রাও উন্মুক্ত থাকবে। তাই মানবজাতির ভবিষ্যৎ ভিত্তির জন্যই বিয়ে হতে হবে নারী ও পুরুষের মধ্যে। মানুষকে এটি ভুলে গেলে চলবে না।

সিঙ্গাপুর যেদিন ‘সমপ্রেমের অনুসঙ্গ’ থাকায় গানের ভিডিও নিষিদ্ধ করে, সেদিনই খবর বেরোয়, আয়ারল্যান্ডে সমলিঙ্গের বিয়ের অনুমতি দিয়েছে। তাই সিঙ্গাপুরের অনেকেই হতাশা প্রকাশ করেন:

আমি মনেপ্রাণে কামনা করি মিডিয়া ডেভেলপমেন্ট অথরিটি কর্তৃক নিষিদ্ধ গানের ভিডিওটি সবাই দেখুক। কারণ এই নিষেধাজ্ঞা খুবই হাস্যকর। তাছাড়া গানের ভিডিওতে মহৎ বার্তা রয়েছে।

সমকাম বিষয়ে দেশের এই জঘন্য অবস্থান আমাকে ক্রুদ্ধ করে। ২০১৫ সালে স্বঘোষিত বৈশ্বিক শহরের দাবীদার আমরা। যদিও আমরা এখনো সংকীর্ণ মনের অধিকারী হয়েই আছি।

কেমন বিদ্রুপাত্মক ব্যাপার! যেদিন সিঙ্গাপুর ‘সমপ্রেমের অনুসঙ্গ’ থাকায় গানের ভিডিও নিষিদ্ধ ঘোষণা করলো, সেদিনই আয়ারল্যান্ড তাদের অধিকারের পক্ষে ভোট দিলো।

মিডিয়া ডেভেলপমেন্ট অথরিটি’র সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে ব্লগার এলজিবিটি অধিকার আন্দোলনকর্মী অ্যালেক্স এইউ লিখেছেন:

By contrast, the MDA’s move is not just regressive, it is risibly petty and self-defeating. Like many people, I had never heard of this song before. But now, it is being shared by many on social media. I am pretty sure Pink Dot organisers are thinking of a way to weave it into this year’s event.

Do they think Singapore can remain exactly where we are while the world moves on?

মিডিয়া ডেভেলপমেন্ট অথরিটি’র পদক্ষেপ শুধু পশ্চাদমুখীই নয়, এটি হাস্যকর রকমের ছোটমনের একটি পদক্ষেপ। আরো অনেকের মতো এই গান আমি আগে শুনিনি। কিন্তু এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই শেয়ার করছেন। আমি নিশ্চিত যে, পিংকডটের আয়োজনকারীরা এই বছরের অন্যান্য আয়োজনে আলোচনায় থাকার জন্য এই পদ্ধতি চিন্তা করে দেখবে।

তারা কি মনে করে, বিশ্ব যেখানে এগিয়ে যাচ্ছে, সেখানে সিঙ্গাপুর এক জায়গায় দাঁড়িয়ে থাকতে পারবে?

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .