বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

সমকামী জাপানিরা দিন দিন প্রকাশ্যে বেড়িয়ে আসছেন

lgbt japan

শিরোনামঃ ১৩ জনে ১ জন এলজিবিটি (যৌন সংখ্যালঘু) হিসেবে চিহ্নিত। স্ক্রিনক্যাপ সৌজন্য এনএইচকে

আন্তর্জাতিক জনসংযোগ এবং অন্যতম শীর্ষ বিজ্ঞাপনী সংস্থা দেন্তসু পরিচালিত একটি অনলাইন জরিপে দেখা গেছে, ২০ বছর থেকে ৫৯ বছর বয়সী প্রতি ১৩ জন জাপানীর মাঝে ১ জন করে সমকামী নারী, সমকামী পুরুষ, উভকামী অথবা লিঙ্গ পরিবর্তনকারী (এলজিবিটি) হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেন। জাপানি ভাষায় পরিচালিত জরিপটির মূল ফলাফল এখানে পাওয়া যাবে।

২০১২ সালের দেন্তসু সমীক্ষার ফলাফলের তুলনায় এই সংখ্যা বেড়েছে। সে সমীক্ষায় প্রতি ১৯ জন উত্তরদাতার মাঝে ১ জন করে এলজিবিটি হিসেবে সনাক্ত হয়েছিলেন।

জাপানে বেশ কয়েকটি শহরে সমকামী নাগরিক ইউনিয়ন’কে স্বীকৃতি দেয়ার পর এবং জাপানি শিক্ষা মন্ত্রণালয় জাপানি সমাজে বৈচিত্র্য বাড়াতে নতুন পাঠক্রম চালু করতে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করার মাত্র এক মাসের মধ্যে ২০১৫ সালের এপ্রিল মাসে পরিচালিত এই জরিপের ফলাফল প্রকাশিত হল।

২০১৫ সালের এপ্রিল মাসে প্রকাশিত আরেকটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বিজ্ঞাপনী সংস্থা দেন্তসু সনাক্ত করেছে যে জাপানে ভোক্তাদের একটি ক্রমবর্ধমান প্রভাবশালী জনসংখ্যা হয়ে উঠছে এলজিবিটি সম্প্রদায়। এ সম্প্রদায় বছরের ৫ দশমিক ৯৪ ট্রিলিয়ন ইয়েন (আনুমানিক ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার) খরচ করে থাকে।

২০১৫ সালের ৭ এবং ৮ এপ্রিল দেন্তসু ইন্টারনেটে ৭০ হাজার লোকের উপর সমীক্ষাটি চালিয়েছে। ফলাফলে দেখা যায়, জাপানিদের শতকরা ৭ দশমিক ৭ শতাংশ লোক সমকামী। বয়সের ভিত্তিতে ফলাফলটি জানানো হয়েছেঃ

自分が当事者かもしれないと気付いた時期については、「13歳から15歳」が最も多く18.6%、次いで6歳以下が17.2%、「10歳から12歳」が16%、40歳を過ぎてからという人も9.8%いました。一方で、当事者であることを誰にも明らかにしていないと答えた人は56.8%に上っていました。

জরিপে উত্তরদাতাদের জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল যে কোন বয়সে তাঁরা প্রথম নিজেদের সমকামী পুরুষ, সমকামী নারী, উভকামী অথবা লিঙ্গ পরিবর্তনকারী হিসেবে বুঝতে পারেন? তাদের শতকরা ১৮ দশমিক ৬ শতাংশ (বেশিরভাগ উত্তরদাতা) এর উত্তর ছিল ১৩ থেকে ১৫ বছর বয়সের মাঝে। পরবর্তী শতকরা ১৭ দশমিক ২ শতাংশ উত্তরদাতা বলেছেন, ৬ বছর বয়সের মাঝেই তাঁরা নিজেদের এলজিবিটি হিসেবে সনাক্ত করতে পেরেছেন। উত্তরদাতাদের শতকরা ১৬ শতাংশ বলেছেন, তাঁরা ১০ থেকে ১২ বছর বয়সে নিজেদের এলজিবিটি হিসেবে চিহ্নিত করতে পেরেছেন। শতকরা ৯ দশমিক ৮ শতাংশ উত্তরদাতা জানিয়েছেন যে তাঁরা ৪০ বছর বয়সের পর নিজেকে এলজিবিটি হিসেবে চিহ্নিত করেছেন। তবে বাকি শতকরা ৫৬ দশমিক ৮ শতাংশ উত্তরদাতা কখন তাঁদের নিজেদের প্রথম এলজিবিটি হিসেবে সনাক্ত করতে পেরেছেন তা প্রকাশ করতে চাননি।

একই সময়ে ফুমিনো সুগিয়ামা খবরে মন্তব্য করেছেন, টোকিওর শিবুয়া ওয়ার্ডে সমকামী ইউনিয়নগুলোকে স্বীকৃতি জানাতে সার্টিফিকেট ইস্যু শুরু করা হবে। উল্লেখ্য, তিনি জাতীয় মহিলা দলের সাবেক অসিক্রীড়ক। তিনি তার লিঙ্গ পরিবর্তন করে পুরুষে পরিণত হয়েছেন। জাপানের বিদেশী প্রতিনিধি ক্লাবে গত ২৩ এপ্রিল তারিখে সংবাদ সম্মেলনে সুগিয়ামা বলেছেনঃ

性的少数者が自分たちの隣にもいることを知ってほしい

আমি সবাইকে জানাতে চাই যে এখানে কিছু সংখ্যক লোক এলজিবিটি (“যৌন সংখ্যালঘু, 性的少数者”) হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেন, তাঁরা আমাদের আশেপাশের পরিচিতজন।

সুগিয়ামা একজন নারী হিসেবে জন্মেছেন। তিনি বলেছেন, কিন্ডারগার্টেনে পড়াশুনা করার সময় থেকে তিনি নিজেকে একজন পুরুষ হিসেবে চিন্তা করতে শুরু করেন এবং শিশু বয়স থেকেই তিনি স্কার্ট পড়তে চাইতেন না বলে কাঁদতেন। সুগিয়ামা একজন সফল উদ্যোক্তা, ফ্যাশন মডেল, বিনোদনকারী এবং জাপানের এলজিবিটি সম্প্রদায়ের মুখপাত্রে পরিণত হয়েছেন।

সুগিয়ামার মন্তব্য সম্বলিত সম্পূর্ণ এফসিসিজে সংবাদ সম্মেলনটি এখানে দেখা যাবেঃ

জাপানের বিদেশী প্রতিনিধি ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন – ফুমিনো সুগিয়ামা।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .