বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

শান্তি প্রতিষ্ঠায় প্রযুক্তির ব্যবহারঃ একটি অনলাইন ডাটাবেইস

দ্যা বিল্ড পিস ডাটাবেইস তৈরির লক্ষ্য হচ্ছে, শান্তি প্রতিষ্ঠা এবং সারা বিশ্ব জুড়ে নতুন নতুন প্রযুক্তির মাঝখানে সমন্বয় করা। এ জন্য যোগাযোগ, নেটওয়ার্কিং এবং বিভিন্ন গেমিং প্রযুক্তির  উপর মনোযোগ দেওয়া হবে।

দু’টি উপায়ে তথ্যগুলোকে সাজানো হয়ঃ বিভিন্ন তালিকাভুক্ত সংস্থা এবং প্রকল্পের মানচিত্র ব্যবহার করে এবং একটি সার্চ ফিল্টার ব্যবহার করে একটি বিশাল টেবিলের সাহায্যে তথ্যগুলোকে সাজাতে।

প্রকল্পগুলোর যেটি যে শান্তি প্রতিষ্ঠা কার্যক্রমের এলাকার অধীনে পড়েছে এবং সে এলাকায় তাদের কাজের খাতিরে তারা কোন প্রযুক্তিগুলো ব্যবহার করছে, তাঁর উপর ভিত্তি করে প্রকল্পগুলোকে বিভিন্ন ভাগে ভাগ করা হয়েছে। উদাহরণস্বরূপ, নিম্নলিখিত ভাগে প্রকল্পগুলোকে ভাগ করা হয়েছেঃ

  • যোগাযোগ এবং সহযোগীতাঃ এ সকল উদ্যোগ একটি সংঘাতপূর্ণ পরিবেশে বিরাজমান বিভিন্ন দলের মাঝে সহযোগীতাকে লালন করে। এ বিষয়টি প্রায়শই শান্তি প্রতিষ্ঠা কার্যক্রমের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হিসেবে বিবেচিত হয়। হয়তোবা এই উদ্যোগগুলো শুধুমাত্র বিভিন্ন দলের মাঝখানে যোগাযোগের একটি সুযোগ। পরস্পর সম্বন্ধযুক্ত যারা আছে তাদের মাঝে এ ধরনের যোগাযোগের ফলে আন্তঃদলীয় নেটওয়ার্ক তৈরি হতে পারে। শান্তির বার্তা পৌঁছে দিতে এবং দ্বন্দ্ব প্রতিরোধে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করতে এই নেটওয়ার্ক বেশ সমর্থন যোগায়।
  • আচরণ পরিবর্তনঃ একটি সংঘাতপূর্ণ পরিবেশে “অন্যদের” প্রতি করা আচরণ এবং ব্যবহার প্রায়শই শান্তিপূর্ণ পরিবর্তনের জন্য একটি সংকটপূর্ণ বাঁধা হিসেবে কাজ করে। অনেক শান্তি প্রতিষ্ঠা কার্যক্রম, বিরাজমান আচরণকে চ্যালেঞ্জ করতে এবং স্বভাবগত পরিবর্তনকে উৎসাহিত করতে কাজ করে থাকে। এ কার্যক্রমগুলো অন্যদের সম্পর্কে জানার এবং আন্তঃদলীয় সম্পর্ক সম্বন্ধে নতুন কাহিনী তৈরি করারসুযোগ প্রদান করার মাধ্যমে কাজ করে থাকে।

কয়েকটি তালিকাভুক্ত প্রকল্প সম্পর্কে নিচে উল্লেখ করা হলঃ

পিসটিএক্সটি একটি গণ এসএমএস প্রচারাভিযান প্রকল্প। কেনিয়াতে আচরণগত পরিবর্তন আনা এটির লক্ষ্য। এ প্রকল্পে সংঘাত প্রতিরোধে গ্রাহকের তালিকাটি আরো বড় করতে এক গুচ্ছ এসএমএস পাঠানো হয়। বিশেষকরে, যখন উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতি তৈরি হবে বলে মনে হয়, সে সময় জুড়ে এই এসএমএসগুলো পাঠানো হয়।

ক্র্যাক ইন দ্যা ওয়াল হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে ফিলিস্তিনি এবং ইসরাইলীদের মাঝে কথপোকথন এবং প্রকাশ্য অথবা লিখিত অঙ্গীকারের জন্য একটি মঞ্চ। ফেসবুকে “ইন দ্যা ওয়াল” সাইটটিতে যোগ দেয়ার মাধ্যমে ওয়েব ব্যবহারকারীরা একটি প্রকাশ্য আলোচনাস্থলের সাথে সংযুক্ত হতে পারেন। এটি হিব্রু এবং আরবি ভাষায়ও অনুবাদ করা হয়।

সারা বিশ্বজুড়ে ২৭ টি দেশের শিক্ষার্থীদের একটি লিংক হচ্ছে কানেক্ট প্রোগ্রাম। ভিডিওকনফারেন্সের মাধ্যমে এই লিংকে সংযুক্ত হওয়া যায়। একটি সহজতর সংলাপ কার্যক্রমের মাধ্যমে তাদেরকে সংযুক্তকরতে এটি সাহায্য করে। প্রতিদিনের জীবন নিয়ে এবং বিতর্কিত বিষয়গুলো নিয়ে আরো উন্নতি হল কিনা, সে কথা আলোচনার মধ্যদিয়ে এটি শুরু হয়।

যদি আপনি কোন প্রকল্পে সহযোগীতা করতে চান, তবে তাদের ওয়েবসাইটে পাওয়া ফরমটি ব্যবহার করুন। শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য প্রযুক্তি ব্যবহারের তত্ত্ব সম্পর্কে আরো নতুন নতুন ধারণা দেয়ার জন্য সুইস শান্তি ফাউন্ডেশনের তৈরি করা এই রিপোর্টটি দেখুন।

বিল্ড পিস ডাটাবেইস ওয়েবসাইটের লোগোর স্ক্রিনশটটি একটি সিসি বিওয়াই-এসএ ৩.০ লাইসেন্সের অধীনে পুনরায় প্রকাশ করা হল। 

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .