বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মৌরিতানিয়া: আল কায়েদা প্রদত্ত মৃত্যুদণ্ডে বিতর্ক

১২ই মে তারিখে মৌরিতানিয়ার আল আখবার ওয়েবসাইটে পোস্ট করা [আরবী ভাষায়] একটি ইউটিউব ভিডিও মৌরিতানীয়দের ক্ষুদ্ধ করেছে। ভিডিওটিতে একজন ৪০ বছর বয়েসী মৌরিতানীয় লোককে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে আল কায়েদা সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে দেখা যাচ্ছে। পরবর্তীতে মৌরিতানীয় গোয়েন্দাদের পক্ষে কাজ করার স্বীকারোক্তি দেয়ার পরে তার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর [ভিডিওতে দেখানো হয়নি] করা হয়।

লোকটি তার সাথে কাজ করা কয়েকজন সামরিক এবং গোয়েন্দা নেতার নাম উল্লেখ করে দাবি করেন যে তারা তার কাজ পরিদর্শন করতেন। তিনি আরো উল্লেখ করেন যে গবেষণা এবং নথিবদ্ধকরণ (বৈদেশিক তদন্ত) বিভাগের পরিচালক জেনারেল মোহাম্মদ উলদ মাক্ত তাকে নিয়োগ দিয়েছিলেন।

এলেগকম ব্লগ আল কায়েদার দেয়া মৌরিতানীয় লোকটির মৃত্যুদণ্ডের এবং আল কায়েদা ও মৌরিতানীয় গোয়েন্দাদের সঙ্গে তার কাজের ইতিহাস বিষয়ে বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এছাড়াও এটি বিষয়টি নিয়ে একটি তদন্ত চালুর দাবি করেছে [আরবী ভাষায়]:

مستمرون في تجنيد شبان موريتانيين وتقديمهم قرابين لشيطان الأوهام بشمال مالي… حتي الآن ذبح 9 وهنالك العشرات يدفعون دفعا في اتجاه الموت المحقق مقابل دريهمات زهيدة تدفعهم الفاقة لاقتناصها ويكونون الضحية الأقل حظا فيها ويتم تجاهل أسرهم من بعدهم أويقدم لهم شىء على أنه هدايا وهبات وهولايساوى شعرة فى مفرغ الرأس… ولأن الموضوع حيوي ويتعلق بحياة الناس وبأمن البلاد وبقضايا لا يمكن السكوت عليها فإن التحقيق في ملابساته يكون أضعف الإيمان.
আমরা এখনো তরুণ মৌরিতানীয়দের নিয়োগ করে উত্তর মালিতে [যেখানে মৌরিতানীয়রা আল-কায়েদার সঙ্গে যুদ্ধ করছে] বিভ্রান্তির শয়তানের কাছে উৎসর্গের জন্যে পাঠাচ্ছি। এখন পর্যন্ত নয়জনকে হত্যা করা হয়েছে এবং মাত্র কয়েক দিরহামের বিনিময়ে দারিদ্রের গ্রাসাচ্ছাদিত আরো কয়েক ডজনকে নিশ্চিত মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হচ্ছে। তারা হতভাগ্য শিকারে পরিণত হচ্ছে এবং তাদের পরিবারগুলোকে উপেক্ষা করা অথবা উপহারের মতো তুচ্ছ ক্ষতিপূরণ দেওয়া হচ্ছে। কারণ সমস্যাটিসহ এটা জনগণের জীবনের পাশাপাশি জাতীয় নিরাপত্তার সঙ্গে সম্পর্কিত অতীব গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় যা উপেক্ষা করা সম্ভব নয়। ন্যূনতম আমরা যা করতে পারি সেটা হলো একটি তদন্ত চালু করা।

আল কাশিফ ব্লগ বিষয়টি সম্পর্কে লিখেছে [আরবী ভাষায়]:

أم الفضائح اليوم هي قصة ذالك العميل المسكين الذي آمن ذات يوم أن له وطن يفديه بروحه فأرتمى في أحضان الجنرال محمد ولد مكت، الذي أحاله إلى الرائد أحبيبي ولد الدلول، قام العميل بعدة أنشطة في خدمة موريتانيا وقدم عدة معلومات هامة قبل اكتشافه من قبل القاعدة التي صورت فيديو التحقيق معه آخذة تفاصيل الخدمات التي قدمها لبلد دون مقابل الحماية المتوجبة على المسؤولين عنه قبل أن تعمد إلى قتله حسب الأخبار.
আজকের সবচেয়ে বড় কেলেংকারিটা হলো এই দরিদ্র এজেন্টের গল্পটি। নিজেকে উৎসর্গ করার যোগ্য তার একটি স্বদেশ আছে বিশ্বাস করে তিনি একদিন জেনারেল মোহাম্মদ উলদ মাক্তের সঙ্গে আলিঙ্গনের জন্যে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন, যিনি তাকে মেজর আহাবিবি উলদ আল দালুলের কাছে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন। মৌরিতানিয়ার সেবা করার জন্যে এই এজেন্ট বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করেছিলেন এবং আল কায়েদার কাছে সনাক্ত হবার আগে কিছু গুরুত্বপূর্ণ গোয়েন্দা তথ্য পাঠিয়েছিলেন। অনুযায়ী আল আখবার অনুসারে, আল কায়েদা তাকে হত্যা করার আগে সরকারি সুরক্ষা ছাড়াই দেশের জন্যে তার নেয়া সমস্ত সেবার বিস্তারিত জেনে নিয়ে তাকে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের চিত্র ধারণ করেছিল।

অ্যাক্টিভিস্ট মোহামেদ আব্দো মন্তব্য করেছেন:

@মেদআব্দু الإستخبارات الموريتانية تتلاعب بالعملاء الصغار، ارواحهم على المحك وأجورهم ضئيلة وبعد الوفاة يتنكرون لهم
মৌরিতানীয় গোয়েন্দা বিভাগ কনিষ্ঠ এজেন্টদের নিয়ে খেলা করছে। কম মজুরির কারণে তাদের জীবন সঙ্গীন এবং মৃত্যুর পর তাদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করা হয়।

তিনি আরো বলেছেন:

@মেদআব্দু قادة الإستخبارات هم من ضمن ألئك الجنرالات أصحاب الكروش الذين لا يفيدون إلا ف “تزواز اللقمة” قوم يحكمون بفكر حجري وعقلية متسلطة ونفسية مريضة

 গোয়েন্দা বিভাগের প্রধানেরা সাধারণতঃ বড় ভুড়িওয়ালা যারা শুধু তসরুপ করতে পটু; তারা প্রস্তর যুগের চিন্তাভাবনানিয়ে শাসন করেন,   উদ্ধত মানসিকতার এবং অসুস্থ ব্যক্তিত্বের অধিকারী।

অ্যাক্টিভিস্ট মোহামেদ উলদ যেদু লিখেছেন:

@মোহদযেদু يدعوهم القائد المصاب بالتخمه وهم ينثنون على انفسهم من الجوع ويقول لهم الوطن بحاجتكم يموتون لتكون جماجمهم نياشين تزين صدره. اي ظلم هذا

উদরপূর্তি হওয়া নেতারা বুভুক্ষুদের বলে যে তাদের প্রয়োজন এই দেশের এবং তার মরলে তাদের খুলি তাদের বুকে শোভা পায়। এই অবিচার কেন?

অ্যাক্টিভিস্ট আহমেদ উদ আবদাল্লাহ এই বিষয় নিয়ে অনেক টুইট বার্তা পাঠিয়েছেন। তিনি বলছেন:

@আহমেদবাহ لقد قتلت القاعدة أبنائنا، وجنرالاتنا لاهون مع عاهراتهم، ولياليهم الحمراء
@আহমেদবাহআল কায়েদা আমাদের ছেলেদের হত্যা করেছে আর আমাদের জেনারেলরা তাদের পতিতাদের সঙ্গে নিয়ে তাদের রাত কাটাচ্ছেন।

তিনি যোগ করেছেন:

@আহমেদবাহ مسكين ذالك العميل، المواطن الذي قتل على الحدود بعد التحقيق معه تحت فوهات البنادق وكشف للقاعدة الحقيقة كلها. ‎‫#عميل‬‏-مسكين
সেই হতভাগ্য এজেন্টটি সীমান্তে বন্দুকের নলের মুখোমুখি জিজ্ঞাসাবাদে আল কায়েদাকে পুরো সত্যটি প্রকাশক করে দিয়ে নিহত হওয়া একজন নাগরিক।

এছাড়াও আহমেদ উলদ আব্দাল্লাহ প্রাক্তন ফরাসি প্রেসিডেন্ট সারকোজির সুবিধার জন্যে মৌরিতানিয়ার এই যুদ্ধে জড়িত হওয়ার সমালোচনা করেছেন:

@আহমেদবাহ ولأن ساركوزي لا يستطيع أن يغامر بأرواح عملائه، تذكر أن له دين عند الجنرال عزيز فقدمه لحرب لا ناقة لنا فيها ولا جمل..!
এবং সা্রকোজি তার নিজের এজেন্টদের জীবনের ঝুঁকি নিতে না পেরে তার মনে হয় যে জেনারেল আজিজের [মৌরিতানিয়ার প্রেসিডেন্ট] কাছে তার কিছু পাওনা রয়েছে। এবং (তাই তিনি) তাকে একটি যুদ্ধ দিয়েছেন যেটা নিয়ে মৌরিতানিয়ার করার কিছুই নেই।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .