বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

তাইওয়ানঃ গৃহকর্মীর উপর নির্যাতনের দায়ে অভিযুক্ত কূটনীতিকের প্রতি নেট নাগরিকদের প্রতিক্রিয়া

বিদেশি শ্রমিকদের উপর অত্যাচারের জন্য তাইওয়ান কুখ্যাত হয়েছে, যার জন্যে ধীরগতির, অনিচ্ছুক আইনপ্রণেতা এবং “কিছু” নির্দয় কর্মচারীদের ধন্যবাদ। যা হোক, এরকম নির্মম ও কদর্য ঘটনা এবার তাইওয়ানে নয়, ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে এক তাইওয়ানিজ কূটনীতিকের বাসায়।

আজ তাইওয়ানের প্রধান পত্রিকার শিরোনাম ছিল ফিলিপিনো গৃহকর্মীকে নিম্ন বেতন, সীমিত চলাচল এবং দৈনিক ১৬ থেকে ১৮ ঘন্টা কাজ করতে বাধ্য করার দায়ে ক্যানসাস শহরে তাইপে অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক কার্যালয়ের প্রধান পরিচালক সিয়েন-সিয়েন লিউ (劉珊珊) এর গ্রেফতার। যুক্তরাষ্ট্রের সাথে তাইওয়ানের কোন কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই, সিয়েন সিয়েন তাইওয়ানিজ সরকারের একজন অঘোষিত কূটনীতিক।

বেশিরভাগ মাধ্যম এখন তাইওয়ান-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কের অবনমন নিয়ে আলোচনা করছে। ক্ষমতাসীন কিউমিংট্যাং (কেএমটি) ও বিরোধীদল ডেমোক্র্যাটিক প্রোগ্রেসিভ পার্টি উভয় দলের রাজনীতিবিদরাই তাইওয়ানের সার্বভৌমত্ব ও লিউর কূটনৈতিক মুক্তির ব্যাপারে সরকারকে কঠোর হতে বলেছেন। এমনকি এই নির্যাতনকারী এনবিসি নিউজকে বলেছেন যে যেহেতু তাইওয়ান সার্বভৌম রাষ্ট্র নয় তাই লিউ এরকম কোন সুবিধা পাবেন না।

তাইওয়ানিজ রাজনৈতিক অঙ্গনে যখন নির্যাতিত গৃহকর্মীর অধিকারের বিষয়টি পুরো অনুপস্থিত ছিল, তখন টুইটার ব্যবহারকারীরা বৈদেশিক শ্রমের প্রতি তাইওয়ানিজ দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরেন। @ancorena বলেন:

我猜想在許多人心目中,美國一向都是世界人權的燈塔。可是到了今天這種時候,台灣人可能還要靠美國人的過激手段裡才能學習正確對待外籍勞工,實在是場難以形容的荒謬劇情。

আমার মনে হয় অনেক লোকই ভাবছে, যুক্তরাষ্ট্র বৈশ্বিক মানবাধিকার আদর্শকে তুলে ধরছে। কিন্তু এই মুহূর্তে যুক্তরাষ্ট্রের বৈধ আইন থেকে তাইওয়ানিজরা এখনো শিখতে পারে নি যে বৈদেশিক শ্রমিকদের প্রতি কিরূপ আচরণ করতে হয়। এটি বর্ণনার বাইরে একটি অবিশ্বাস্য রকম উদ্ভট নাটক।

জিজে! তাইওয়ান, একটি ভীতিকর কাল্পনিক খবরের টুইটার অ্যাকাউন্টও এ খবর প্রকাশ করেছে:

外電報導,我駐美國密蘇里州堪薩斯台北經濟文化辦事處處長劉姍姍,讓菲傭超時工作,涉嫌壓榨虐待,且未依契約,只給對方1/3薪水,涉嫌詐欺,遭FBI探員逮捕拘留。外交部長楊進添昨證實此事,但表達嚴正抗議;因為劉姍姍所為不過是台灣雇主傳統,美方應予尊重。

বৈদেশিক প্রতিবেদন অনুযায়ী ক্যানসাস শহরে তাইপে অর্থনৈতিক এবং সাংস্কৃতিক কার্যালয়ের মহাপরিচালক সিয়েন সিয়েন লিউ তার ফিলিপিনো গৃহকর্মীকে নির্যাতন, অতিরিক্ত কাজ করতে বাধ্য করা এবং তাকে তার পারিশ্রমিকের মাত্র এক-তৃতীয়াংশ প্রদানের অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছেন এবং ফলশ্রুতিতে এফবিআই কর্তৃক গ্রেফতার হয়েছেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী চিন তিয়েন ইয়াং এ ঘটনা স্বীকার করেছেন এবং মৌন প্রতিবাদ করেছেন। যেহেতু লিউ কর্মীদের প্রতি তাইওয়ানিজদের ঐতিহ্য অনুযায়ী কাজ করেছেন, সেহেতু যুক্তরাষ্ট্রের সম্মান করা উচিত।

টরেন্ট পিয়েন এই ঘটনায় আরো বিস্তারিত জানতে চেয়েছেন:

劉姍姍的外傭說是公務雇用,但合約每個月薪資1240美金,但外傭只實拿450,中間的790跑哪去了啊,劉處長要不承認私人雇用,要不承認貪汙

বলা হয়েছে যে লিউর গৃহকর্মীকে সরকারি কাজের জন্য নিযুক্ত করা হয়েছিল, তাকে ৪৫০ মার্কিন ডলার বেতন দেয়া হয়েছিল, কিন্তু তাকে মাসিক ১২৪০ মার্কিন ডলারে নিযুক্ত করা হয়েছিল, তাহলে বাকি ৭৯০ ডলার কোথায় গেল? লিউকে যে কোন একটি বিষয় স্বীকার করতে হবে যে হয় তিনি তাকে ব্যক্তিগতভাবে নিযুক্ত করেছেন না হয় তিনি দুর্নীতি করেছেন।

book686 মন্তব্য করেছে:

[外交官被逮事件] 目前為止幾位總統候選人都只在主權問題上表態,卻沒人在(勞動)人權問題上發言~~

[গ্রেফতারকৃত কূটনীতিকের এই মামলায়] এখন পর্যন্ত রাষ্ট্রের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা শুধু তাইওয়ানের সার্বভৌমত্ব বিষয়ের উপরই চাপ প্রয়োগ করছেন কিন্তু কেউ মানবাধিকার বিষয়ে বলছেন না।

অ্যাঞ্জেল স্মাইল বলেছে:

像這種廢人,我覺得就讓美國去整治她最好;不然弄這垃圾回國,就算查出是貪汙,還不是又全身而退。

যুক্তরাষ্ট্রের উচিত এরকম জঘন্য ঘটনায় শাস্তি দেয়া; নতুবা আমরা যদি এই উচ্ছিষ্টকে ফেরত পাই, তাহলে সে দুর্নীতি করলেও পার পেয়ে যাবে।

উইংকাইমত দিয়েছেন:

我覺得劉珊珊應該要申請台灣的國賠,因為是台灣政府長久放任國人苛刻'使用'外籍雇傭,才會讓劉大公務員誤以為可以那麼作

আমি মনে করি তাইওয়ান সরকারের কাছে লিউর ক্ষতিপূরণের আবেদন করা উচিত, যা জনগণকে বিদেশি গৃহকর্মীদের নিকৃষ্টভাবে “ব্যবহার” করতে উদ্বুদ্ধ করবে। সেজন্যই লিউ ভুল কিছু করেন নি।

আপনি তাইওয়ান ও শ্রম বিষয়ে প্রতিবেদন এখানে, এখানে, এবং এখানে দেখতে পারেন। উল্লেখ্য, তাইওয়ানে এখনো বিদেশি গৃহকর্মী ও পরিচারিকাদের ছুটির কোন অধিকার নেই।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .