বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

সৌদী আরব: তাবুক মেয়ের বিয়ে

বাবা তাঁর অপ্রাপ্ত বয়স্ক কন্যাকে বৃদ্ধ ব্যক্তির সংগে বিয়ে দিতে চান – এমন ঘটনা বিশেষতঃ সৌদী আরব ও ইয়েমেনে নতুন কিছু নয়। সামাজিক প্রচার মাধ্যমের কল্যাণে “তাবুকের মেয়ের” বিতর্কিত গল্প বিগত কয়েকদিন ধরেই শোনা যাচ্ছে।

সংবাদ মাধ্যমগুলোর সাইটে বলা হয়েছে মেয়েটি ১৭ বছর বয়সী যদিও সামাজিক নেটওয়ার্ক সাইট #তাবুকমেয়ে বলছে মেয়েটি ১৪ বছর বয়স্ক। বয়স বড় কথা নয়, যদি মেয়েটির চাচা বাধা না দিত তবে মেয়েটির বাবা তাঁকে হয়ত ৬০ বছর বয়স্ক লোকের সাথে বিয়ে দিত। তাঁর চাচা তাঁর বাবার বিরুদ্ধে বিয়ে বন্ধের জন্য আদালতে মামলা করে, আগামী অক্টোবরে আদালতের সিদ্ধান্ত প্রদানের আগে আদালত বিয়ে বন্ধ রাখার নির্দেশ জারী করে।

Graphic work by Kuwaiti Artist Mohammed Sharaf condemning what happened to the girl of Tabuk.

তাবুকের মেয়ের কি হয়েছে সে বিষয়ে কুয়েতি শিল্পী মোহাম্মদ সারাফ-এর গ্রাফিক কর্ম

টুইটারের একাধিক প্রতিক্রিয়ার মধ্যে আইমি রাশ নামের একজন সৌদী এম এ পর্বের ছাত্র (@আইমিরাশ) তাঁর দেশকে নিচের প্রশ্নগুলো করেন:

@আইমিরাশ: বাবা-মা এবং অভিভাবকরা যাতে তাঁদের মেয়েদের জোর করে বিয়ে দিতে না পারেন এবং ১৮ বছর বয়সের নিচে যাতে বিয়ে নিষিদ্ধ করা হয় এসব বিষয়ে আমাদের আইন প্রণয়ন করা প্রয়োজন।

পিএইচডি ছাত্র মাহা আল-জায়ের(@মালজায়ের১৮০) ও একই দাবি তোলেন

احنا لازم نقدم خطاب بنص قانون لا لزواج القاصرات

@মালজায়ের১৮০: অপ্রাপ্ত বয়স্কদের বিয়ে বন্ধের বিষয়ে আমাদের একটি আইনের প্রস্তাব করা উচিত

সৌদী টুইটার ব্যবহারকারী আইমান (@আইমন১৯৮৪) নারী ও শিশুদের অধিকারকে যারা সম্মান করেন না তাঁদের আক্রমণ করেন:

من يقصي المرأة ولا يعترف بحقوقها ومن لا يصرخ من اجل حماية الطفولة هو ليس من البشر مهما كانت جنسيته ومهما كان دينه

@আইমন১৯৮৪: ধর্ম ও জাতিয়তা নির্বিশেষে যারা নারীদের তাঁদের অধিকার থেকে বঞ্চিত করে এবং শিশুকাল রক্ষার দাবিতে সোচ্চার হয় না তাঁরা মানুষ নয়।

ডানা কাদৌরা ( ডানাকিউভি) তাবুকের মেয়েটির কি ঘটেছিল সে বিষয়ে বলেন:

@ডানাকিউভি: আমি দুঃখিত, আমি আন্তরিকভাবেই আমার নিজের মেয়েকে তাঁর দাদার বয়সী একজনের হাতে ছেড়ে দিতে পারিনা

বিয়েতে মেয়েটি সম্মত ছিল কি না সে বিষয়ে খলিল জুবরান (থার্ড_পয়েন্ট) ভিন্নমত পোষণ করেন:

الطفله طفله وافقت ام رفضت الزواج مايحصل جريمة ضد الانسانيه وكل الاطراف اب وزوج وماذون ومفتي وشاهد وصامت شركاء بالجريمه

@থার্ড_পয়েন্ট: শিশুরা শিশুই, বিয়েতে তাঁর সম্মতি আছে কি নেই সেটা বিষয় নয়। যা ঘটেছে সেটা মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ, সব দিক বিবেচনায় তাঁর বাবা, কাজী, সাক্ষী এবং যারা নিশ্চুপ ছিলেন তাঁরা প্রত্যেকেই এ অপরাধ সংগঠনে অংশগ্রহণ করেছেন।

সৌদী সমাজের পুরুষতান্ত্রিকতার ছবির প্রতিফলন কিভাবে তাবুকের মেয়েটির গল্পে উঠে এসেছে সে বিষয়ে সৌদী ব্লগার জাকি সাফার (@ জাকি_ সাফার) তুলে ধরেছেন:

@ জাকি_ সাফার: সৌদী রাজতন্ত্র: যেখানে পুরুষের যৌন প্রবণতার মাপকাঠিতে ধর্ম নিয়ন্ত্রিত হয়

তাঁর নিজের রাষ্ট্রে এ ধরণের ঘটনা ঘটায় একজন সৌদী আমর দুলাইমি ( @ আমর_ ডি) তাঁর লজ্জা ব্যক্ত করেন:

@আমর_ ডি: # তাবুক মেয়ে কি অবাস্তব গল্প? আমরা এখন #২০১১ তে! শিশুদের প্রতি যৌন আকর্ষণ বোধ করা মুথা ফুকার সাথে একই পাসপোর্ট ধারণ করে আমি লজ্জিত

সৌদী সাংবাদিক আব্দুল্লাহ হায়েদহাহ (@আব্দুল্লাহহায়েদহাহ) [আরবি] মেয়েটির চাচার সাথে গৃহিত সাক্ষাতকারের কিছু বিষয় টুইট করেন:

في لقاء أجرته الزميلة غادة محمد.. وسينشر لاحقا بإيلاف.. عم فتاة تبوك يوضح أنه تعرض للتهديد من أخيه حال وقف تزويج الفتاة

@আব্দুল্লাহহায়েদহাহ: আমার সহকর্মী ঘাদা মোহাম্মেদ সাক্ষাতকার গ্রহণ করেন, যা পরবর্তীতে ইলাফ সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়, তাবুকের মেয়ের চাচা তাঁকে জানান বিয়ে যদি বন্ধ হয়ে যায় তাহলে তাঁর ভাই তাঁকে দেখে নেবেন মর্মে হুমকী প্রদান করে।

আরেকজন মহিলা সৌদী টুইটার ব্যবহারকারী আরুব আলুফি (@আরুবএম) এ বিয়ের বিষয়ে বিরক্তি প্রকাশ করে টুইট করেন:

@আরুবএম: অপ্রাপ্ত বয়স্কদের বিয়ে করা আপনাকে # শিশুদের প্রতি যৌন আসক্ত ব্যক্তিতে পরিণত করবে। আপনারা অসুস্থ বেজন্মারা ছোট্ট মেয়ে চান স্ত্রী নয়।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .