বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

চীনঃ স্বতন্ত্র প্রার্থীতা বিষয়ক তাজা সংবাদ

৮ জুন ২০১১-এ, ন্যাশনাল পিপলস কংগ্রেসের সংসদ বিষয়ক মুখপাত্র বিবৃতি দিয়েছেন যে [ চীনা ভাষায়] তৃণমূল পর্যায়ে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া পিপলস কংগ্রেসের জন্য যে নির্বাচন তাতে স্বতন্ত্র প্রার্থীতার কোন আইনগত ভিত্তি নেই।

তিনি জানান, “তৃণমূল পর্যায়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী” হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিতে গেলে যে কোন প্রার্থীর একটি রাজনৈতিক দলের অথবা গণ সংগঠনের নিবন্ধন থাকতে হবে। মূলত মে ২০১১-তে লিউ পিং স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচন করার কথা ঘোষণা করার পর “স্বতন্ত্র প্রার্থী” নামক আন্দোলন চাঙ্গা হয়ে উঠে। এই বিবৃতি তৃণমূল পর্যায়ে অংশ নিতে যাওয়া স্বতন্ত্র প্রার্থীদের জন্য এক আঘাত স্বরূপ।

চীনা কমিউনিস্ট পার্টির এক নিজস্ব পত্রিকা স্টাডি টাইমস [চীনা ভাষায়]। যেখানে এই বিবৃতির পর এক ধারাভাষ্য প্রকাশ করে যেখানে যুক্তি প্রদান করা হয় যে “স্বতন্ত্র প্রার্থীতা” বৈধ কারণ “মনোনয়ন লাভের অধিকার” চীনা সংবিধানে সংরক্ষিত। এই ঘটনার পর ধারণা করা হচ্ছে যে তৃণমূল পর্যায়ে গণতন্ত্রের চর্চা শুরু করা নিয়ে চীনা কমিউনিস্ট পার্টির নেতাদের এবং সরকারের নিজের মধ্যে দ্বন্দ রয়েছে।

তৃণমূল পর্যায়ের সাধারণ নির্বাচন, জেলা বা কাউন্টি এবং মফস্বল বা টাউনশিপ উভয় স্তরে পিপলস কংগ্রেসের প্রতিনিধিত্ব করে, যা এখন থেকে শুরু হয়ে ২০১২ সালের শেষ পর্যন্ত চলবে। দুটি নির্বাচনের মধ্যে দিয়ে প্রায় ২০ লক্ষ জনতার প্রতিনিধিকে নির্বাচিত করা হবে যা ২,০০০ জেলার এবং ৩০,০০০০ মফস্বলের সরকার নির্বাচিত করবে। চীনাভাষী সংবাদ সাইট বক্সাম একটি সূত্রের কথা উল্লেখ করেছে [চীনা ভাষায়] যেটি জানাচ্ছে যে ৭ জুন ২০১১, পর্যন্ত স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ১২৭ জন ব্যক্তি নিজেদের নাম নিবন্ধণ করেছে।

২০ লক্ষ আসনের বিপরীতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সংখ্যা অতি ক্ষুদ্র হওয়া সত্বেও তৃণমূল পর্যায়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে অংশ গ্রহণের ক্ষেত্রে যে স্বতঃস্ফুর্ত মনোভাব তৈরি হয়েছে কর্তৃপক্ষ তা কঠোর হস্তে দমন করতে চায়।

কাও তিয়ান এক আবাসন ব্যবসায়ী, লেখক এবং ১৯৮৯ সালের এক প্রাক্তন রাজনৈতিক বন্দী। তিনি তার ব্লগে ঘোষণা করেন যে তিনি এই নির্বাচনে ঝেংঝু শহরের মেয়র প্রার্থী পদে লড়বেন। এই ঘোষনার পর পরই স্থানীয় এক কর্মকর্তা তাকে এই বলে হুমকি দেয় যে “প্রথম যে পাখি পাখা মেলে উড়ার চেষ্টা করবে, সেই হবে প্রথম পাখি, যাকে গুলি করে মারা হবে।”।

চায়না ডিজিটাল টাইমস তার পোস্টের অনুবাদ করেছে:

কর্মকর্তা: যদি আপনি এর মধ্যে নাক গলান তাহলে আপনি খুব ভায়াবহ বিপদের মধ্যে পড়বেন। আপনি কি এই নিশ্চয়তা প্রদান করতে পারেন যে আপনার প্রতিষ্ঠান এবং পরিবারের কেউ কোন ভুল করেনি?! খুব শীঘ্রই আপনি আবিষ্কার করবেন যে মা ওয়াং ইয়ে [মা ওয়াং ইয়ে হচ্ছে এক তাও দেবতা, যার তিনটি চোখ। এখানে মা ইয়াং বলতে চীনা কমিউনিস্ট পার্টিকে বোঝানো হচ্ছে]-এর কতগুলো চোখ রয়েছে।

কাও: এখন থেকে ২০ বছর আগে আমি জেনেছি যে মা ওয়াং ইয়ের ঠিক কতগুলো চোখ রয়েছে। এমনকি আমি ইয়ান ওয়াং-এর ক্ষুদ্র প্রাণীদের অনুসন্ধানের ঘটনার বিষয়ে আরো বিস্তারিত জানি। কিন্তু এখানে একটা বিষয় রয়েছে যা আমি সবসময় চাই, সেটি হচ্ছে লেটস দি বুলেট ফ্লাই-নামক ছবির মাফিয়া কাউন্টি চিফ যা উচ্চারণ করেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, তার সরকার এখানে তিনটি বিষয় নিশ্চিত করতে এসেছে: সততা, সততা, এবং অবশ্য এক সততা।

কর্মকর্তাঃ আপনি সততা নামক বিষয়টি চান, তাই তো? এর মানে আসলে আপনি, আপনার হাতে হাতকড়া পড়াতে চাইছেন! আপনি কি গতকালের সংবাদটি দেখেননি? জাতীয় কংগ্রেসের সংবিধান বিষয়ক কমিশন বলেছে যে তথাকথিত “স্বতন্ত্র প্রার্থীতার” [কোন নির্বাচনে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে] কোন আইনগত বৈধতা নাই। আসলে এর মানে হচ্ছে আপনাদের মত ব্যক্তিরা সরকারের জন্য সমস্যার সৃষ্টি করতে যাচ্ছে। কাজেই আপনাদের রক্ষার জন্য কোন আইনের ধার ধারা হবে না।

[…]

কর্মকর্তাঃ আপনি যা বলছ তার হয়ত একটা অর্থ রয়ছে, কিন্তু বাস্তবতা খানিকটা ভিন্ন, প্রথম যে পাখিটা পাখা মেলার চেষ্টা করবে তাকে গুলি করা হবে। আপনি, স্বয়ং এক মর্যাদা সম্পন্ন ব্যক্তি। আপনার শহীদ হবার কোন প্রয়োজন নেই। আপনি কি মনে করেন যে আপনার নেতৃত্ব ছাড়া ইতিহাস কি উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাবে না?

বেইজিং এর মানবাধিকার কর্মী এবং বেইজিং-এর প্রাক্তন স্বতন্ত্র পিপলস কংগ্রেস প্রতিনিধি ঝু ঝিয়ংও স্বতন্ত্র প্রাথীদের কর্মকাণ্ডের উপর দমন নিপীড়ন চালানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। ১৮ জুনে পাঠানো এক টুইটারের মাধ্যমে সে এই বিষয়টি নিশ্চিত করে

针对独立候选人的打压开始了。昨天被带走除了不准教育平等征集签名,另外就是不准推动人大选举,我说,如果连这么基层的民主都要假到底,都不给人民任何践行宪法权利的机会,你们将是历史的垃圾.

স্বতন্ত্র প্রার্থীদের দমন করার কাজটি শুরু হয়ে গেছে, গতকাল আমাকে সরিয়ে অন্য জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয় কারণ আমি সমান শিক্ষা সুযোগ নিয়ে এক স্বাক্ষর অভিযান শুরু করেছিলাম। তারা যথারীতি আমাকে বলেছে আমি যেন পিপলস কংগ্রেস নির্বাচনে এই প্রচারণা না চালাই। আমি তাদের উত্তরে বললাম, যদি তারা তৃণমূল পর্যায়ে নির্বাচনে অংশ নেবার সাংবিধানিক অধিকার কেড়ে নেবার সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে, তাহলে তারা ইতিহাসের পাঠ্যে তারা এক অবর্জনায় পরিণত হবে।

বেশ কিছু সুপরিচিত স্বতন্ত্র প্রার্থী রাজনৈতিক হয়রানীর শিকার হয়েছে। এদের মধ্যে একজন হচ্ছেন কাও তিয়ান, যিনি মেয়র পদে নির্বাচন করার ইচ্ছে প্রকাশ করার এক সপ্তাহের মধ্যে ঝেংঝু এলাকা ত্যাগ করতে হয়।

সিনো ওয়েবো ব্যবহারকারী হ্যাভেন ব্লিস চায়না এ ১৭ জুনে একটা মন্তব্য করেছে [চীনা ভাষায়]:

民间参选市长第一人曹天在刚刚宣布参选郑州市市长一周后,即被当地多个部门关照。由公安、国土资源、税务组成调查组,对其所在公司及其个人进行全面调查。曹天被迫离开郑州,去向不明。微评:也许这也是其他独立参选人的下场,参选市长,没经过领导同意能行吗?我不说不让你选,我仅仅是查查你而已。

কাও তিয়ান হচ্ছেন প্রথম ব্যক্তি যিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে শহরের মেয়র পদে নির্বাচন করার কথা ঘোষণা দেন। এই ঘোষণার এক সপ্তাহের মধ্যে সরকারের বেশ কয়েকটি দপ্তর তার সম্বন্ধে খোঁজ খবর নেওয়া শুরু করে। পুলিশ, ভূমি ও সম্পদ মন্ত্রণালয় এবং আয়কর বিভগের এক তদন্ত দল গঠিত হয়। যারা কাও এবং তার প্রতিষ্ঠানের সকল কিছু সম্বন্ধে খোঁজ নেওয়া শুরু করে। কাও তিয়ানকে জোর করে ঝেংঝু ত্যাগে বাধ্য করা হয় এবং এখন পর্যন্ত কেউ জানে না, সে কোথায় আছে। এক কথায় বলা যায়: অন্য সব স্বতন্ত্র প্রার্থীদের বেলায়ও একই ঘটনা ঘটবে। নেতাদের অনুমতি ছাড়া কেউ মেয়র পদে নির্বাচন করতে পারবে না। তারা আপনাকে নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করা থেকে বিরত রাখবে না, তারা কেবল আপনার বিরুদ্ধে তদন্ত করবে।

জিয়াংশি থেকে নির্বাচনে দাঁড়ানো স্বতন্ত্র প্রার্থী লি শিহুয়ার বিরুদ্ধে স্বাক্ষর জাল করার অভিযোগ আনা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ বলছে লির মনোনয়ন পত্রে যে ২০০ টি স্বাক্ষর রয়েছে তার মধ্যে ৫ টি স্বাক্ষর জাল। যদিও মাত্র ২০ টি স্বাক্ষর জোগাড় করতে পারলে যে কেউ নির্বাচন করতে পারবে, কিন্তু এই অভিযোগে লির প্রার্থীতা বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে। লি তার ওয়েবো একাউন্টের মাধ্যমে পরিস্থিতির ব্যাখ্যা দিচ্ছে [চীনা ভাষায়]:

6月17日省人大向市人大批转了我的申诉书,使市、区人大再也不能说是省人大认定我跨选区被推荐非法无效了。于是,市、区、街办、村委四级紧急行动,赶赴我的推荐人所在的西合村,采用种种手段给推荐人做笔录,证明我们的推荐存在冒名代签,涉嫌破坏选举罪。我刚去了村里,村民说只有亲属间的委托代签。

১৭ জুনে, প্রাদেশিক পিপলস কংগ্রেস আমার প্রার্থীতার বিষয়টি শহর পর্যায়ের পিপলস কংগ্রেসে পাঠায়। কিন্তু শহর বা জেলা পর্যায়ের কোন পিপলস কংগ্রেস বলতে পারেনি যে সংবিধান অনুসারে জেলা পর্যায়ে এই ধরনের মনোনয়ন অবৈধ। এরপর, শহর, জেলা, রাস্তা, এবং গ্রাম পর্যায়ে সকল অফিসের লোকের গ্রামের সকল প্রার্থীর বাসায় যায়, প্রার্থীদের নিজেদের সম্বন্ধে বিস্তারিত লিখতে বলে যাতে প্রার্থীদের সব তথ্য লিখিত আকারে পাওয়া যায়। সেখানে তারা প্রার্থীরা যে মনোনয়ন পত্রে ভুয়া নাম দিয়েছে তা প্রমাণ করার জন্য সকল কিছু ব্যবহার করে, এরপর তারা আমার বিরুদ্ধে নির্বাচনে মিথ্যা তথ্য দেবার অভিযোগ আনে। আমি গ্রাম থেকে ফিরে এলাম। গ্রামবাসীরা জানায় যে তাদের মধ্যে কয়েকজন যে তারা জেলায় বাস করা ভ্রাতাদের তরফে মনোনয়ন পত্রে স্বাক্ষর করেছিলেন।

ওয়েবো ব্যবহারকারী উশিনকুয়াইউয়ু স্মরণ করিয়ে দেন যে [ চীনা ভাষায়], সকল প্রার্থী যেন নিজে নিজেকে রক্ষা করে:

友情提示:独立候选人参选人大代表征集签名时,拍照、录音、摄像手段最好全都用上。

বন্ধুত্বপুর্ণ ভাবে স্মরণ করিয়ে দিতে চাই: যখন মনোনয়ন জমা দেবার জন্য স্বাক্ষর সংগ্রহ করবেন, তখন যেন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা তাদের কাজের প্রক্রিয়া সমূহের ছবি তুলে রাখে অথবা অডিও বা ভিডিও ধারণ করে রাখে।

সকল ধরনের রাজনৈতিক হয়রানী সত্ত্বেও, অনেক নেট নাগরিক তাদের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে এবং তৃণমূল পর্যায়ে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে। “গ্রাসরুট ইলেকশন” (তৃণমূল নির্বাচন) নামক ট্যাগের মাধ্যমে সিএইচআরডি প্রার্থীদের তালিকার উপর নজর রাখছে [চীনা ভাষায়]।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .