বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

সিরিয়া: ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা মিশরীয় বিক্ষোভকারীদের সমর্থনে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে

এই পোস্টটি ২০১১ সালে মিশরের প্রতিবাদ বিপ্লব সম্পর্কে আমাদের বিশেষ কাভারেজের অংশ

বালাদনা দৈনিকের মূল পাতা হ্যাক হয়ে গেছে। এখানে মিশরীয় বিক্ষোভের সংবাদ পোস্ট করা হয়েছে।

মিশরে রাষ্ট্রপতি মুবারককে ক্ষমতা থেকে অপসারণের জন্য যে বিক্ষোভ, তার পরিমাণ যত বৃদ্ধি পাচ্ছে, ততই সিরিয়ার নাগরিকরা যে ভাবে পারছে, বিক্ষোভকারীদের সাহায্য করার জন্য দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। দামাস্কাস ব্যুরো সংবাদ প্রদান করছে যে হ্যাকাররা বালাদনা ডেইলি নামের দৈনিক পত্রিকার ওয়েবসাইটটি (আরবী ভাষায়) দখল করে নিয়েছে এবং সেখানে এই বার্তা লিখে রেখে গেছে: “মিশরে যা কিছু ঘটছে, তার ক্ষেত্রে আমরা প্রচার মাধ্যমে কোন ধরনের সংবাদ প্রদানে নিষেধাজ্ঞা জারির বিষয়টি কোনভাবেই মানবো না।“

মোউরিচি আয়েক একজন ব্লগার এবং সাংবাদিক। তিনি বিস্ময়ে হতবাক হয়ে যান [আরবি ভাষায়], যখন তিনি আবিষ্কার করেন যে রাষ্ট্রের পয়সায় পরিচালিত দৈনিক সংবাদপত্রগুলো এই বিক্ষোভের উদ্দেশ্য এবং দাবি সম্বন্ধে ভুল তথ্য প্রদান করছে:

عددت البعث جميع مطالب الجماهير (من الاحتجاج على الأوضاع الاقتصادية إلى طرد السفير الاسرائيلي ووقف تصدير الغاز) دون المرور على المطلب الأساس الذي تنادي به الجماهير المحتشدة منذ يومين وهو رحيل الرئيس المصري حسني مبارك.

রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন সংবাদপত্র আল বাথ মিশরীয় জনতার সকল দাবির তালিকা তৈরি করেছে (প্রতিবাদকারীদের অর্থনৈতিক শর্তাবলি থেকে শুরু করে ইজরায়েল-এর রাষ্ট্রদূতের বহিষ্কার এবং প্রাকৃতিক গ্যাস রপ্তানী বন্ধ করার দাবি এই তালিকায় রয়েছে), যেখানে জনতা গত দুদিন ধরে যে মৌলিক দাবির জন্য বিক্ষোভ করে যাচ্ছে, সেই হোসনি মুবারকের পদত্যাগের বিষয়টি উল্লেখ করা হয়নি। বিক্ষোভকারীরা দাবি করে আসছে যে, হোসনি মুবারককে অবশ্যই পদত্যাগ করতে হবে।

বেশ কয়েকজন সিরীয় ব্লগার তাদের ব্লগ সমূহকে [আরবী ভাষায়] বিক্ষোভের সংবাদ প্রকাশের জন্য উৎসর্গ করেছে এবং তাদের মধ্য একদল একত্রিত হয়ে একটি ব্লগ সৃষ্টি করেছে [আরবী ভাষায়], যে ব্লগের একমাত্র উদ্দেশ্য হচ্ছে ২৪ ঘন্টা ধরে মিশরের বিক্ষোভ সংক্রান্ত তাজা যত সংবাদ প্রকাশ হচ্ছে, সেগুলো এই ব্লগে প্রকাশ করা। আহমাদ আবুলখায়ির একটি নির্দেশিকা পোস্ট করেছে [আরবী ভাষায়], যার মাধ্যমে জানা যাবে, কি ভাবে এএইচটিটিপিএস এবং ফায়ারফক্সের এডঅন, যাকে এইচটিটিপিএস-এভরিহোয়ার বলা হয়, তা ব্যবহার করে ফেসবুক এবং টুইটারে বিশেষ ব্যবস্থায় প্রবেশ করা সম্ভব, বিশেষ করে যখন মিশরে সেখানকার সাম্প্রতিক ঘটনাবলি যাতে প্রকাশ না হয়, তার জন্য এই দুটি সাইট বন্ধ করে রাখা হয়েছে।

অবশ্যই টুইটার সমর্থন তৈরি এবং তথ্য আদান প্রদান ও বিক্ষোভ সংক্রান্ত কর্মকাণ্ডের আহ্বান জানানোর ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। ওমর মুসায়েহ সিরিয়ায় করা বেশ কিছু কৌতুহল জনক পরিকল্পনার সংবাদ প্রদান করছে

৫ ফ্রেব্রুয়ারি তারিখে সিরিয়ার একটিভিস্টরা সংসদের সামনে এক বিক্ষোভের আয়োজন করেছে

এবং ইয়াসিন বেশ কাব্যিক ভাবে টুইট করেছে:

আমরা আমাদের জীবনে তিনটি গুরুত্বপূর্ণ মূহুর্তের অভিজ্ঞতাকে গ্রহণ করব। এক সপ্তাহের বৃষ্টির পর সূর্যোদয়, একটি শিশুর জন্ম, এবং একজন স্বৈরশাসকের পতনের স্বাক্ষী হওয়া।

এই পোস্টটি ২০১১ সালে মিশরের প্রতিবাদ বিপ্লব সম্পর্কে আমাদের বিশেষ কাভারেজের অংশ

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .