বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ইরান: কারাগারে আটক ব্লগার শিভা নজর আহারিকে ৫০০,০০০ ডলারের বিনিময়ে জামিন প্রদান করা হয়েছে

এতদিন ধরে জেলে বন্দী থাকা মানবাধিকার কর্মী ও ব্লগার শিভা নজর আহারিকে গতকাল ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

বেশ কিছু সংবাদপত্রের ওয়েবসাইট অনুসারে জানা গেছে শিভাকে ৫০০,০০০ মার্কিন ডলারের বিনিময়ে জামিন দেওয়া হয়। সেপ্টেম্বরের শুরুতে তাকে হাতকড়া পরিয়ে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হয় এবং তার বিরুদ্ধে ইরানের পিপলস মুজাহিদিন নামক দলটির সাথে যুক্ত থাকার অভিযোগ আনা হয়।

কয়েক বছর ধরে এই দলটির সাথে ইসলামিক ইরান প্রজাতন্ত্রের লড়াই চলছে এবং তাদের সাথে যে কোন ভাবে যুক্ত থাকা ব্যক্তির বিরুদ্ধে সরকার স্রষ্টার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা বা মোহারেবহ নামক অভিযোগ তৈরি করে।

সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে শিভার সমর্থনে বেশ কিছু প্রতিবাদ প্রদর্শিত হয়।

১০ সেপ্টেম্বর শুক্রবারে জার্মানীতে মাদারান সোল ডর্টমুন্ড ( শান্তির জন্য ডর্টমুন্ডের মায়েরা) নামক দল যাদের পুরুষেরাও সমর্থন করে, তারা হাতে শিভার ছবি নিয়ে রাস্তায় দাঁড়িয়ে ছিল (উপরে ছবি দেখুন)। ইরানের শোকার্ত মায়েদের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করার জন্য তারা সপ্তাহের শনিবারে একত্রিত হয়। তাদের ব্লগের আরো কিছু ছবি দেখুন।

শিভাকে নিয়ে ফেসবুকে এই দলের যে প্রচারণা তা এখানে রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে লোকজন এই ঘটনায় বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে। একজন মানবাধিকার কর্মী আহমাদ বেতাবী এই ভিডিওতে শিবার বিষয়ে কথা বলেছেন। তিনি বলছেন শিভা কেবলই এক মানবাধিকার কর্মী, যে কখনই রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিল না।

উই আর অল শিভা (আমরা সকলেই শিভা) একটি অনলাইন প্রচারণা। সেটি শিভার সমর্থনে কানাডা থেকে ইরান পর্যন্ত বিভিন্ন কর্মকাণ্ড অনুষ্ঠানের পরামর্শ প্রদান করেছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .