বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

চীন: সরকারি নগ্নতা

সিচুয়ানের এক পৌর এলাকার সরকারি প্রশাসনকে “চীনের প্রথম সম্পূর্ণ নগ্ন প্রশাসন” হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। পৌর কর্তৃপক্ষ তাদের বেতন এবং ব্যায় ইন্টারনেটে প্রকাশ করার পর তারা এই খেতাব পায়। নগ্নতার বা পুরোপুরি স্বচ্ছতার উল্লেখ সম্প্রতি চীনের অনেক প্রকাশনায় পাওয়া যায়, যা স্থানীয় প্রশাসনের অভূতপূর্ব স্বচ্ছতার নিদর্শন।

উত্তরপূর্ব সিচুয়ানের বাইমিয়াও মফ:স্বল শহরের সরকারি প্রশাসন তার প্রস্তাবিত ব্যয়ের হিসাব ১২ মার্চ, ২০১০-এ প্রকাশ করে। তার সাথে তারা স্থানীয় কর্মকর্তাদের বেতন এবং ২০০৯ সালের ব্যয়ের হিসাব প্রকাশ করে। সাউদার্ন উইকএন্ড এই সংবাদ জানায়।

সিচুয়ান ডেইলি পোস্টের মতে, অনলাইনে যে সমস্ত তথ্য রয়েছে তার মধ্যে গাড়ি, বিনোদন এবং খাবারের খরচ থেকে শুরু করে কাগজের কাপ, দ্রব্যসামগ্রী এবং খাম রয়েছে। পৌর প্রশাসনের যে নিজস্ব ওয়েবসাইট রয়েছে, এইসব তথ্য সেখানে পোস্ট করা হয়েছে।

চীনের সকল স্তরের সরকারি কর্মচারীদের বেশি টাকা বিল করার ব্যাপারে সুনাম রয়েছে যখন তারা অতিথি হিসেবে কিছু জয় করতে এবং খাবারে খেতে যায়, এবং উচ্চ পদস্থ সরকারি কর্মকর্তাদের এ সুনাম রয়েছে। চীনা প্রচার মাধ্যমে সূত্রানুসারে, এই স্বচ্ছ অবস্থান কর্তৃপক্ষের ব্যয়ের অভ্যাস কেমন তা পর্যবেক্ষণে স্থানীয় নাগরিকদের সহায়তা করবে।

এই বিষয়টি এমন এক সময় ঘটলো যখন সারা দেশে একই ধরনের এক পদ্ধতি পরীক্ষামূলকভাবে শুরু করা হচ্ছে, যে পদ্ধতিতে সরকারি কর্মকর্তাদের পরিবারের আয় এবং বিনিয়োগের হিসেবে দেবার প্রয়োজন হবে। জানুয়ারি, ২০০৯-এ শিনজিয়াং-এর ওয়েস্টার্ন প্রভিন্সের (পশ্চিম প্রদেশের) আলতাই জেলায় সরকারি কমকর্তাদের উপর আয়ের তথ্য জানানোর নীতি প্রয়োগ করা হয়।

কিন্তু বাইমিয়াও পৌর কর্তৃপক্ষ দেশটির মধ্যে প্রথম সরকারি প্রশাসন, যারা তুলনামূলক বাৎসরিক খরচের বিবরণ পোস্ট করেছে, এর মধ্যে দিয়ে তারা “সম্পূর্ণরূপে নগ্ন শাসক” উপাধি লাভ করেছে। অনলাইনের মতামত অনুসারে, এ ধরনের কাজ, অন্য সব পৌর প্রশাসক বা সরকারের উচ্চ স্তরের কর্মকর্তাদের ব্যয়ের তথ্য জানানো এবং কাজের স্বচ্ছতা তুলে ধরার জন্য চাপ প্রদান করবে। অনেকে এই কাজটিকে উত্তেজনা তৈরির একটি বিষয় হিসেবে চিহ্নিত করেছে।

কিঙ্গমিঙ্গ এবং গুইয়ুতে পোস্ট করা লেখায় “নগ্ন সরকার”-এর কাজটিকে অনেক সাহসী বলে অভিহিত করা হয়েছে, যদিও সংস্কারের মাধ্যমে এ বিষয়ে আরো অনেক কিছু করার প্রয়োজন আছে বলে মনে করা হচ্ছে।

尽管脱的不彻底,但是笔者还是要为白庙乡的勇气喝一声彩。无论如何,敢于把招待上级官员的烟酒费用都公布出来,如果这也叫作秀,那么我倒真希望这样作秀的官员多一些。

যদিও তারা নিজেদের পুরোপুরি দিগম্বর করেনি, তারপরেও লেখক বাইমিয়াও-এর প্রশাসকদের সাহসিকতার প্রশংসা করেছে। যে কোন ভাবে জনতার কাছে উচ্চ স্তরের সরকারি কর্মকর্তার বিনোদনের খরচের পরিমাণ জানানোকে যদি উত্তেজনা তৈরি নামে অভিহিত করা হয়, তা হলে আমি আশা করবো এ রকম আরো অনেক উত্তেজনা সরকারি কর্মকর্তা জন্য থাকবে।

ব্লগার কাও রংশিয়াং সরকারের এরকম স্বচ্ছতার দিকে এগিয়ে যাওয়ায় খুশি। লেখক অন্য এলাকার স্থানীয় প্রশাসনকেও একই উদাহরণ পালন করার আহ্বান জানিয়েছেন, কিন্তু তিনি বলেছেন সংস্কারপন্থী হতে তাদের অনীহা রয়েছে।

除了为白庙乡政府的大胆之举叫好之外,也想疾呼全国所有的乡政府都公开自己的财务,以真正推进“三公”的治理。但细想之下,事情也不尽然。白庙乡政府之所以敢于详细公开自己的公务花费,是因为有“四气”,而这“四气”是否在全国各地、各级政府都具备,则不尽然。

বাইমিয়াও প্রশাসনের সাহসী পদক্ষেপকে করতালি প্রদান করার বদলে, আমি সারাদেশের স্থানীয় বিভিন্ন পৌর প্রশাসনগুলোর কাছে দ্রুত আবেদন রাখব, যেন তারা তাদের অর্থ ব্যয়ের হিসাব জনসম্মুখে প্রকাশ করে, যা সত্যিকার অর্থে দুর্নীতিপরায়ণ প্রশাসনের ব্যায় নিয়ন্ত্রণের একটি উপায়। কিন্তু বাইমিয়াও প্রশাসন জনতার সামনে তাদের ব্যয়ের বিস্তারিত ঘোষণা প্রদান করার মত সাহসী, কারণ তারা তা অর্জন করেছে [চারটি আবেগকে]। সামগ্রিক ভাবে পুরো দেশের ক্ষেত্রে, প্রশাসনের সকল স্তরের লোকেরা হয়ত এই [এই সমস্ত আবেগের] অধিকারী নয়।

লেখক এই আবেগগুলোর তালিকা করেছেন, সেগুলো হচ্ছে, রাগ, দমন, শক্তি ও সাহস, এবং তিনি বলছেন, সম্প্রতি জনতার দরবারে হিসেব উন্মোচন, স্থানীয় সরকারের এই সমস্ত বিষয়ে হতাশা এবং জনতার শক্তিকে উপলব্ধি করার ফল।

গাওইয়ুয়ান ঝিশিনের একটি পোস্ট বলছে যে, বাইমিয়াও পৌরসভার এই সংস্কার, প্রশাসন ও জনতার মাঝে বোঝাপড়া বাড়াতে সাহায্য করবে।

…政府没有勇气公示这些内容,加强群众监督也就成了一句空话…政府公开自己的事务,主动接受群众的监督,不但有利于拉近与群众的距离,而且在遇到一些问题时,也能够得到群众的理解和支持…

এই সমস্ত তথ্য জনসম্মুখে প্রকাশ করার মত সাহস সরকারের নেই। জনতার পর্যবেক্ষণকে শক্তিশালী করা একটা শূন্য প্রবাদে পরিণত হয়েছে…সরকার তার কর্মকাণ্ডের কথা এবং জনতার পর্যবেক্ষণকে সক্রিয়ভাবে গ্রহণ করার বিষয়ে খোলাখুলি ঘোষণা দিলে তা কেবল [সরকার] এবং জনতার মধ্যে দুরত্ব কমাতে সাহায্য করবে না, যখন সরকার কোন সমস্যার মুখোমুখি হবে, তখন তারা জনতার উপলব্ধি এবং সমর্থন লাভ করবে।

তবে অনলাইনের সকল মতামত এতটা আশাবাদী ছিল না। ব্লগার লিয়ু চ্যাঙ্গফেঙ্গ বাইমিয়াও- এর সরকার যে স্বচ্ছতার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে, সে ব্যাপারে সন্দিহান।

你说它是作秀没问题,当然了,除了质疑其是作秀外,你还完全可以怀疑这份明细表的真实性。也即是说,这份明细表可能不过是经过处理晒出来给大家看的,真实的数据也许并非完全如此。

এটাকে একটা “উত্তেজনা সৃষ্টি” বলে অভিহিত করার ক্ষেত্রে কোন সমস্যা নেই। তার বদলে উত্তেজনা তৈরি প্রচেষ্টাকে সন্দেহ করার মধ্য দিয়ে কেউ একজন বিস্তারিত বিবরণ প্রকাশের মত বুদ্ধিমত্তার উপর সন্দেহ করতে পারে। কেউ একজন এ কথাও বলতে পারে যে, এটা সবাইকে দেখানোর জন্য তৈরি করা প্রক্রিয়া এবং সুশৃঙ্খল কর্মকাণ্ডের প্রদর্শন ছাড়া আর কিছুই নয়, সত্যিকারের তথ্য হয়ত এ রকম নয়।

একই ধরনের এক লেখায় সাউদার্ন উইকএন্ডের এক প্রবন্ধে বলা হচ্ছে বাইমিয়াও প্রশাসন বিনোদন এবং খাবারের জন্য যে পরিমাণ অর্থ খরচ হয়েছে বলে দাবি করে অনলাইনে হিসেব প্রকাশ করেছে তা প্রস্তাবিত ব্যয়ের মাত্র এক শতাংশ। সংখ্যাটি যারা সরকারি কর্মকর্তাদের খাবার ব্যয়ের সাথে পরিচিত তাদের ক্ষেত্রে ভ্রূকুটির সৃষ্টি করেছে।

চীনে সংস্কার প্রায়শই: অনেক পিছিয়ে পড়া এক প্রক্রিয়া। গৃহস্থালী বিষয়ক দায়িত্ব পদ্ধতি (হাউসহোল্ড রেসপন্সিবিলিটি সিস্টেম) যা সম্প্রদায়গত চাষবাষের সাথে যুক্ত হয়ে শেষ হয়, এবং যা প্রচণ্ড ফসল ফলছে এমন এক যুগের সূচনা করে, এই উদ্যোগের শুরু হয় ১৯৭৮ সালে কৃষকদের দ্বারা, যা কেবল কেন্দ্রীয় সরকারের ১৯৮১ সালের এক আইনের মাধ্যমে লিখিত হয়। শিনজিয়াং, ঝেইজিয়াং এবং হুনান প্রদেশে সম্প্রতি কর্মকর্তাদের আয়ের ব্যাপারে তথ্য দেবার উপর এক পরীক্ষামূলক কাজ শুরু করা হয়েছে, যেখানে পুরো দেশের সরকারি কর্মকর্তারা এই ধরনের নীতি প্রয়োগে অনিচ্ছুক।

চীনের প্রধান প্রধান সব প্রচারমাধ্যমের মনোযোগ আকর্ষণ করা এবং জনতার মাঝে এর সমর্থন বাড়তে থাকা, বাইমিয়াওয়ের “নগ্ন সরকার” স্থানীয় নিম্ন পর্যায়ের প্রশাসনের মাধ্যমে মাঠপর্যায়ের এক ধারার পূর্ব লক্ষণকে তুলে ধরছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .