বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

চীন: গুজব পরিষ্কার করতে গিয়ে গুগল আরো বেশি গুজব তৈরি করছে

গুগলে হচ্ছেটা কি? চীনের লক্ষ লক্ষ নেটবাসী বিস্মিত।

গুগল চায়নার ‘ব্লাকবোর্ড’ একটি চীনা-ভাষী ব্লগ, যা চালায় গুগল.সিন। সেখানে একটি লেখা পোস্ট করা হয়েছে, যার শিরোনাম ‘গুজবের ডালপালা পরিষ্কার কর’। এখানে বর্ণনা করা হয়েছে:

过去几天里,我们看到有很多关于谷歌中国以及谷歌员工的不真实的传言,一 些报道称我们已经关闭了在中国的办公室,还有一些报道称我们在中国的员工已经接到通知将于近期离职。这些都是不真实的。目前,谷歌中国的员工同过去一样在 办公室正常工作,讨论产品开发,与客户进行沟通。尽管谷歌总部管理层近期宣布他们将会在未来的几个星期与中国政府就一些事宜进行商讨,谷歌中国的员工们仍 在一如既往地努力向我们的用户和合作伙伴提供最好的产品和服务,用户和合作伙伴对谷歌是非常重要的

কত কয়েকদিন ধরে গুগল চীন এবং তার স্থানীয় কর্মচারীদের সম্বন্ধে অনেক গুজব শোনা যাচ্ছে। অনেক জানায় যে, চীনে গুগলের অফিস বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে অনেকে দাবি করেছে যে গুগল চীনের কর্মচারীরা ভবিষ্যৎে তাদের চাকুরি হারাতে যাচ্ছে। এইসব কথা ঠিক নয়! গুগল.সিন-এর কর্মচারীরা যথারীতি তাদের কাজকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। তারা পণ্যের মান উন্নয়ন নিয়ে আলোচনা করছে। কর্মচারীরা তাদের গ্রাহকদের সাথে কথাবার্তা চালিয়ে যাচ্ছে। যদিও গুগলের প্রধান কর্তা ব্যক্তিরা ঘোষণা দিয়েছেন যে তারা চীনা সরকারের সাথে কিছু বিষয়ে আলোচনা করছেন, তারপরে চীনে গুগলের কর্মচারীরা আগের মতই কঠোর পরিশ্রম করে তাদের সেরা মান দিয়ে আমাদের গ্রাহক এবং অংশীদারদের কাজ তৈরি করছে। তারা গুগল.সিএন জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি। ১৯শে জানুয়ারির খবর।

গত সপ্তাহে গুগল তার নিজস্ব ব্লগে বিস্ময়করভাবে ঘোষণা দেয় যে, এখন থেকে তারা তাদের চীনা ওয়েবসাইটে কোন কিছু সেন্সর করবে না বা আটকাবে না। অনেকের কাছে এটা গুগলের এক হুমকি বলে মনে হয়েছে। অনেকে ধরে নিয়েছে, যদি চীনের বাজার থেকে তাদের চলে যেতে হয়, তার প্রেক্ষাপটে চীনকে এটা তাদের এক ধরনের হুমকি প্রদান। এটি চীনের নেটবাসীদের ক্ষেত্রে অনেক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করে। তাদের বেশিরভাগই এই কাজের প্রতি সমর্থন প্রকাশ করে।

তবে লোকজন যা ভাবছে বিষয়টি তার চেয়ে জটিল। গুগলের প্রকৃত উদ্দেশ্য নিয়ে ইন্টারনেটে দ্রুত গুজব ছড়িয়ে পড়ে। গুগলের সম্ভাব্য চীন ত্যাগ করার গুজবে, ভিন্ন ভিন্ন মানে এবং দৃষ্টিভঙ্গি তৈরি হয় এবং এই বিষয়ে বিতর্ক এখনো বন্ধ হয় নি।

ঘরের ভেতরে গোয়েন্দা

শোনা গেছে গুগল তার সাইট হ্যাক বা ছিনতাই হবার বিষয়ে নিজস্ব কর্মচারীদের কাজের বিষয়ে তদন্ত করছে। রয়টার্সের এক প্রবন্ধে জানা যায়:
স্থানীয় প্রচার মাধ্যম এক অজানা সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছে, জানুয়ারির ১৩ তারিখের পর গুগলের কিছু চীন কর্মচারীকে অফিসে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। সেখানকার বেশ কিছু চীনা কর্মচারীকে ছুটি কাটাতে পাঠানো হয়েছে। অন্যদের গুগল প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের অন্য অফিসে বদলি করে পাঠানো হয়েছে।

চলুন মূল চীন সংস্করণটি দেখি, যার কথা ইন্টারনেটে বহুল পরিমাণে উদ্ধৃত করা হয় এবং প্রচুর মানুষ যেখানে প্রবেশ করে থাকে।

Google总部在声明退出中国之后,立刻取消了所有中国工程师访问Google代码服务器的权限。
他们都是在上班后发现服务器的home目录进不去了。事先根本没有通知。

যখন গুগলের কেন্দ্রীয় অফিস সিদ্ধান্ত নেয় যে তারা চীন ছেড়ে চলে আসবে, তখন থেকে গুগল চীনের চীনা ইঞ্জিনিয়ারদের অফিসে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। অগ্রিম কোন নোটিশ বা খবর ছাড়াই তারা আবিষ্কার করে, যখন তারা কাজ করতে চাইছে, তখন তারা মূল সার্ভারে প্রবেশ করতে পারছে না।

如果Google是有预谋的撤离,为什么要采取这种手段?他完全可以让员工继续工作,做一些善后工作。为什么Google突然那么不信任中国这边的团队?

যদি গুগলের চলে যাওয়া, তার কোন পরিকল্পনার অংশ হয়, তা হলে তারা কেন এত দ্রুত প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করল? চীনে যারা রয়েছে প্রতিষ্ঠানটি তার কাজে এদের রেখে দিত এবং চলে যাওয়ার প্রক্রিয়ার ক্ষেত্রে তাদের এইসব চীনা কর্মচারী তাদের সাহায্য করতে পারত। কেন হঠাৎ তারা আর তাদের এই চীনা দলটির প্রতি আস্থা রাখতে পারছে না?

唯一的原因就是,Google内部的技术人员中被安插了党的特务(就 在Google上海办公处)事实真相就是,这个人在受到党的派遣,应聘Google成功之后,就把Gmail的关键代码down下来然后上交给了组织。而 这个组织破解gmail系统的目的就是为了获取“人权团体”的邮件,这些在Google官方的声明都有

এর একমাত্র কারণ হতে পারে, দলের মধ্যে লুকানো কোন গুপ্তচর রয়েছে, যা দলটির সংবাদ অন্য কাউকে দিয়ে দিচ্ছে। গুগল সাংহাই অফিস আবিষ্কার করেছে, একদল টেকনিশিয়ান (মিস্ত্রি) এই কাজটি করেছে। যখন তাদের কাজে লাগানো হয়, তখন তারা জিমেইলের মূল কোড (সঙ্কেত) চুরি করে নিয়ে নেয় এবং সেটিকে চীনা কর্তৃপক্ষের কাছে দিয়ে দেয়। এর উদ্দেশ্য ছিল জিমেইল হ্যাক বা ছিনতাই করা এবং মানবাধিকার সংস্থার ইমেইল পাঠানো ব্যাহত করা। গুগলের ঘোষণায় এই লক্ষ্যটি ধরা পড়ে।

这 样一来会暴露gmail系统的所有漏洞,而且Google官方不能承认这个事情,否则他在国际上的声誉会大受影响。特工这次的窃密行动,使Google有 面临全面破产的危险(Google官方博客也说了,牵涉到知识产权的问题),说白了,再在中国呆下去,可能要威胁到整个公司的生存,所以才如此仓促的把中 国部门的一切工作全部停掉

গুগল কিছুতেই এই তথ্য প্রকাশ করতে পারে না। কারণ এটি জিমেইলে ত্রুটিগুলো প্রকাশ করে দেবে এবং একটি নিরাপদ সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে তার সুনাম মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এই গোয়েন্দাগিরি গুগলের জন্য এক বিশেষ হুমকি, এ কারণে গুগল বলছে যে ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি বা বুদ্ধিগত সম্পত্তির বিষয়-এর সাথে জড়িত। নিশ্চিতভাবে গুগল বিশ্বাস করে যে প্রতিষ্ঠানের টিকে থাকা হুমকির মুখে পড়ে যাবে, যদি তারা এরপর চীনে থেকে যায়। কাজেই গুগল চীনে তার কাজকর্ম বন্ধ করে দিচ্ছে।

এর পরবর্তী সময়ে আরো দাবি করা হয়েছে যে মোট তিনজন গুপ্তচর ছিল, যাদের সকলে দলের বা পার্টির কাজের সাথে যুক্ত। তবে ঘটনার পরবর্তীতে কিছু প্রতিক্রিয়া ছিল বেশ হাস্যকর যা কিছু উত্তেজক ধারণার নির্মাণ করে।

একটি যৌক্তিক সিদ্ধান্ত

বক্সান.কম-এ, এক সাংবাদিক গুগল চীনের বাজারে প্রবেশের পর থেকে তারা যে সমস্ত সমস্যায় পড়েছে তার এক সারাংশ তৈরি করেছে।

2006年2月 牌照门
2006年11月 辞职门
2007年2月 地图门
2007年4月 词库门
2007年5月 抄袭门
2007年6月 报告门
2007年7月 流氓软件门
2007年8月 恶搞门
2007年10月 税务门
2008年3月 抄袭门2.0
2008年3月 漏税门
2008年6月 捐款门
2008年6月 泄密门
2008年11月 广告门
2009年1月 低俗门
2009年4月 低俗门2.0
2009年6月 涉黄门
2009年10月 版权门
2009年12月 涉黄门2.0

আংশিক অনুবাদ:

২০০৭/২ গুগলের মানচিত্রে একটি চীন শহরকে এক বিশেষ নামে চিহ্নিত করা হয়। জাপানী দখলের সময় শহরটি সেই নামে পরিচিত ছিল।
২০০৯/১ অশ্লীলতার দায়ে সরকার গুগলের সমালোচনা করে।
২০০৯/১০ স্বত্বাধিকারী বা কপিরাইট ভঙ্গের দায়ে গুগলকে অভিযুক্ত করা হয়।
২০০৯/৬ গুগলে নোংরা লেখা বা উপাদান পাওয়া যায়।

试想,有哪一个跨国公司架得住如此频繁的折腾?据统计Google在中国的收入大概是其全球总收入的1%,即使退出中国市场也不影响Google的整体业绩,损失不大,丢脸的是中共独裁政府。

একবার ভাবুন, কোন আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান এতগুলো সমস্যাকে ধারণ করতে পার? চীনে গুগলের আয় তার মোট আয়ের মাত্র ১ শতাংশ। কাজেই যদি গুগল এই বাজার ছেড়ে যায় সেটি তার আয়ের উপর তেমন কোন প্রভাব ফেলবে না। কিন্তু চীনা সরকার তার মুখরক্ষা করতে পারবে না। তার ফলে অনেকে বিশ্বাস করছে যে, গুগলের চলে যাবার হুমকি কেবল চীনে তার বাণিজ্যিক ব্যর্থতা ঢাকার এক কাহিনী মাত্র।

ব্লগার ইমিংঝু ধারণা দিচ্ছে, গুগল চীন ছেড়ে যাবার সুযোগ নিচ্ছে তার বাণিজ্যিক ব্যর্থতা ঢাকার জন্য।

一另种说法是谷歌退出中国,采取这样高调的方式是为了掩饰其在中国的商业失败,从数据上讲,谷歌在中国是属于典型的叫好不叫座,赢得美誉度,没有得到实惠,还投入巨大的成本,从商业上讲,对股东要有交代,退出不是不可以解释。

অন্য আরেক দল বলছে যে, গুগলের এইভাবে শোরগোল তৈরি করে চলে যাওয়া, চীনে তার বাণিজ্যিক ব্যর্থতা ঢাকার চেষ্টা। কারণ গুগলের সুনাম এখানে অনেক বেশি লাভ এনে দিতে পারে নি। এখানে তার যে পরিমাণ ব্যয় হচ্ছে, তাতে এদেশ থেকে তার ব্যবসা গুটিয়ে নেবার বিষয়টি অনুধাবন করা যায়।

গুগল এখন পর্যন্ত মূল চীনের দ্বিতীয় প্রধান সার্চ ইঞ্জিন বা খোঁজ যন্ত্র। চীনের ৩০ শতাংশ বাজার তার দখলে। এই বিষয়ে প্রথম স্থানে রয়েছে বাইডু। চীনের ৬০ শতাংশ বাজার বাইডুর দখলে। মা ইয়ুন ((马云)অতি পরিচিত আলিবাবা.কমের প্রধান। আলিবাবা.কম একটি ই-কমার্স বা ইন্টারনেট বাণিজ্যের ওয়েবসাইট। তিনি গুগলের সমালোচনা করেছেন:

他说,谷歌在美国的成功是一种创业者精神的成功,是一种永不放弃的精神的成功。而进入中国市场后,则变成了以为可以用钱去改变市场,忽略了过去用脚踏实地、用梦想去改变别人的精神。

গুগল যুক্তরাষ্ট্রে বাণিজ্যে সফল এবং তার কারণের মধ্যে দিয়ে সেখানে সে ধারাবাহিক সফল অবস্থায় রয়েছে। তবে চীনে এটা অনেকটাই দিবাস্বপ্ন যে, টাকা দিয়ে বাজার ধরা সম্ভব। এখানে তারা এই বাস্তবতাকে উপেক্ষা করেছে, এই মাটিতে তাদের দাঁড়াতে হবে, অন্যদের ধীরে ধীরে বদলাতে হবে।

এছাড়াও তিনি গুগলের এই হঠকারী সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে ইয়াহুর সমর্থনের আহ্বান জানান।

রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র

গাওরেন মনে করেন গুগলের এভাবে চলে যাবার পেছনে রাজনীতি রয়েছে। সম্ভবত যুক্তরাষ্ট্র সরকার এতে মদদ দিয়েছে।

Google 是在中国政府的网络监察制度更严格的时候进入中国市场,希望在中国市场分得一羹。在中国政府的网络监察制度越 来越宽松的情况下退出市场,但站出来高调批评网络监察制度,这本身就是滑稽的,也是站不住脚的。至少表明Google和其声明中的道德是格格不入的。 Google只不过是利用政治作为撤出中国市场的遁词。

গুগল এমন এক সময় চীনের বাজারে প্রবেশ করেছিল, যখন দেশটি ইন্টারনেটের উপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা জারি করে রেখেছিল এবং তারা এই বিশাল বাজারের সিংহভাগ দখল করার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু আজ তারা এই বাজার ছেড়ে চলে যাচ্ছে, যখন এদেশে ইন্টারনেটের উপর নিষেধাজ্ঞা শিথিল হয়ে এসেছে। এখন বিষয়টি বিচিত্র এই কারণে যে, বর্তমানে নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়া এবং তার সমালোচনা করা। সে তার বিবৃতি প্রদানের ক্ষেত্রে নৈতিক অবস্থান বজায় রাখেনি এবং চীনের বাজার থেকে বিদায় নেবার ক্ষেত্রে কেবল রাজনৈতিক অজুহাত প্রদান করছে।

按照Google自己的高调标准,Google本身是一个高举道德大 旗的魔鬼。2008年印度22岁的IT专业人士 RahulKrishnakumarVaid因为在Orkut网站写下“我恨索尼娅甘地(IhateSoniaGandhi)”而遭逮捕。 Orkut是Google在印度的一个社交网络网站。Google立即向印度警方提供了Vaid的Gmail电子邮件信息。

বাস্তবতা হচ্ছে তার নিজের অবস্থানের কারণে সে নিজে সে এক শয়তানে পরিণত হয়েছে। রাহুল কুমার বেদকে ভারত সরকার গ্রেপ্তার করে, কারণ সে লিখেছিল, ‘আমি সোনিয়া গান্ধীকে ঘৃণা করি’। সে সোশাল বা সামাজিক ওয়েব সাইট অর্কুটে এই কথা লিখে রাখে। সাথে সাথে সেখানকার পুলিশ যখন অনুরোধ জানায়, তখন গুগল রাহুলের জিমেইলের সকল তথ্য তাদের প্রদান করে।

2010年1月7号,国务卿希拉里.克林顿 (HillaryClinton)在国务院请吃饭。这是一场小规模的晚宴,规 模虽小,来客却都是通讯科技界的重量级人物。客人名单上有谷歌首席执行官埃里克.施密特(EricSchmidt)、Twitter联合创始人杰克.多 尔西(JackDorsey)、微软首席研究与战略官克瑞格.蒙迪(CraigMundie),以及MobileAccord总裁James Eberhard,Cisco的行销总裁SusanBostron,纽约大学教授ClayShirky,Personal个人民主组织创始人 AndrewRasiej等。这是美国国务院利用信息技术来推进美国外交目标的努力的一部分。

没过几天,在2010年的1月12日Google就跳出来。Google是否在为美国政府的政治目的服务呢?大家拭目以待。如果Google成为美国政府的政治打手,那中国政府对其政治约束是完全必要和合理的。

৭ জানুযারি,২০১০-এ যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন তথ্য প্রযুক্তির বেশ কয়েকটি বিখ্যাত ব্যক্তিকে এক ভোজ সভায় আমন্ত্রণ জানায়। এদের মধ্য ছিলেন, এরিক স্মিডট (গুগল), জ্যাক ডোরসে (টুইটার), ক্রেইগ মুন্ডিও (মাইক্রোসফট), জেমস এবারহার্ড, সুসান বোস্ট্রন (সিসকো), ক্লে শিরকেই (নিউ ইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক), এন্ড্রু রাসিজ (মানবাধিকার সংস্থা)-এর মত ব্যক্তিরা। এটাকে যুক্তরাষ্ট্রের এক উদ্যোগের অংশ হিসেবে দেখা হচ্ছে, যে উদ্যোগের মাধ্যমে দেশটি তার তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে কূটনৈতিক লক্ষ্য পুরণ করবে।
এর কয়েকদিন পরই গুগলের চীন ছেড়ে যাওয়ার মানে কি যুক্তরাষ্ট্র সরকারে উদ্দেশ্য পূরণ করা? এখন অপেক্ষা করা ও পর্যবেক্ষণ করা ছাড়া আর কিছু করার নেই। কিন্তু এটা যদি আমেরিকার রাজনৈতিক পরিকল্পনার একটা অংশ হয়, তা হলে চীনা সরকারের পুরো দায়িত্ব পরে পরিস্থিতিকে উন্নত করার।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .