বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

· জুলাই, 2015

গল্পগুলো আরও জানুন ল্যাটিন আমেরিকা মাস জুলাই, 2015

পুয়ের্তো রিকান দ্বীপের সংগ্রাম এবং বিজয়ের ১৩৫ বছরের ইতিহাস

কুলেব্রা প্রতিষ্ঠার ১৩৫ বছর এবং আমেরিকান সৈন্য চলে যাবার ৪০ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষে "কুলেব্রা ১৩৫-৪০" নামের তথ্যচিত্রে কুলেব্রা যুদ্ধের কিছু স্মৃতি সঙ্কলন করা হয়েছে।

সরকার এবং বিরোধীদের মাঝে টানাপড়নে ইকুয়েডোরে হুমকির মুখে গণতন্ত্র

গত কয়েক বছর ধরে দারিদ্রতা হ্রাসের জন্য ইকুয়েডর বারবার প্রশংসিত হয়ে আসছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও দেশটি বর্তমানে আর্থিক বাজেট পূরণের ক্ষেত্রে কঠিন চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছে।

গবেষণায় দেখা গেছে, ইউরোপিয়ানরাই লাতিন আমেরিকায় বেশি হারে অভিবাসন নিয়েছেন

২০১২ সালে ১৮১,০০০ জনের বেশি ইউরোপিয়ান তাদের দেশ ছেড়ে লাতিন আমেরিকায় গেছেন। অন্যদিকে একই সময়ে ১১৯,০০০ জন লাতিন আমেরিকান দেশ ছেড়ে ইউরোপে পাড়ি দিয়েছেন।

ভিডিওর মাধ্যমে ইকুয়েডরের সারাইয়াকু সম্প্রদায়ের আত্মপরিচয় সংরক্ষণ

ইকুয়েডরের সারাইয়াকু সম্প্রদায়ের তরুণরা প্রযুক্তি দিয়ে তাদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সংরক্ষণ করতে চায়।

বিশ্বের সবচেয়ে সহিংস শহরে, দেওয়াল চিত্রশিল্পীরা তাদের ‘অস্ত্র’ ভালো কিছুর জন্য ব্যবহার করছেন

সানপেড্রো সুলা, হন্ডুরাস, চার বছর ধরে পৃথিবীর সবচেয়ে বিপজ্জনক শহরের শিরোনাম অর্জন করেছে। দেওয়াল চিত্র শিল্পীরা স্প্রে পেইন্ট এবং তাদের কল্পনা দিয়ে পরিবর্তনের আশা করেন।

ক্ষুধার্ত, মেক্সিকো সিটিতে আছেন? তাহলে টাকো ঝুড়ির কাছে চলে যান

“বাস্কেট টাকো” মেক্সিকো সিটির প্রতিদিনকার নাগরিক জীবনের প্রতিনিধিত্ব করে। টাকো বিক্রি করে বিপুল পরিমাণ লোকের কর্মসংস্থান হয়। মেক্সিকো সিটিতে এলে এর স্বাদ নিতে ভুলবেন না।

ইকুয়েডরে প্রতিবাদের মঞ্চ হিসেবে ব্যবহৃত ইন্টারনেট হুমকিতে

এ মাসের শুরুর দিকে নতুন উত্তরাধিকার এবং মূলধনী মুনাফা কর আরোপ ইত্যাদি নিয়ে সরকারের প্রস্তাবনার প্রতিবাদে সমগ্র ইকুয়েডর জুড়ে বিভিন্ন শহরে জনগণ বিক্ষোভে ফেটে পড়েছে।

বলিভিয়ার আইকনিক ‘চোলিটা’ আদিবাসী নারীদের জন্য একটি পত্রিকা

নারীদের ক্ষমতায়নের আওতায় নিয়ে আসতে সম্ভবত এটা একটি পরিবর্তনের সময়।