বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

যুক্তরাষ্ট্র: অভিবাসন আইনের সংস্কার, এক অসম্পূর্ন সমাধান

রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা অভিবাসন সংস্কার বিষয়ে এক ঘোষণা প্রদান করেছেন, তিনি নির্বাহী আদেশ বলে এই আদেশ জারি করেন। এই ঘোষণা একদিকে যেমন ল্যাটিন আমেরিকার নাগরিকদের মাঝে স্বস্তি এনে দিয়েছে, তবে অন্য দিকে এই বিষয়ে অসন্তোষের আওয়াজ শোনা যাচ্ছে। সোনিয়া তেজাদা ব্যাখ্যা করছে যে, এর ফলে কাগজ নেই এমন অভিবাসীদের তিন বছরের চাকুরীর অনুমতি প্রদান করা হবে, তবে এই পদক্ষেপ যদিও পঞ্চাশ লক্ষ নাগরিককে সুবিধা প্রদান করতে যাচ্ছে, কিন্তু এটি তাদের বৈধ অভিবাসী হবার সুযোগ কিংবা নাগরিকত্বের সুবিধা প্রদান করছে না। সোনিয়ার মতে, বৈধ কাগজপত্রহীন দুই ধরনের অভিবাসী সৃষ্টির লক্ষ্যে এই পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে, যারা প্রথমে এই শর্ত সাপেক্ষ সুবিধা লাভ করবে এবং যাদের দেশটির অভিবাসন মন্ত্রণালয়ের দয়ার উপর নির্ভর করে থাকতে হবে। এই আইনের সুবিধা পেতে হলে:

[…] los inmigrantes deben haber residido en el país por cinco años, tener niños, sean ciudadanos estadounidenses o residentes legales, y, por supuesto, no haber delinquido.

[…] […] অভিবাসীদের অবশ্য পাঁচ বছর দেশটিতে বসবাস করতে হবে, তাদের ছেলেমেয়ে থাকতে হবে, যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক হতে হবে অথবা বৈধ বাসিন্দা হতে হবে, এবং অবশ্যই তাদের কোন অপরাধমূলক কাণ্ডের রেকর্ড থাকা চলবে না।

সোনিয়া একই সাথে ওবামার ভাষণের সমালোচনা করে, তার মতে যা অভিবাসনকে শাস্তি দেওয়া:

Obama habló incesantemente de que los EE. UU. es una nación de leyes, y de que los inmigrantes por haber cometido “el crimen” de entrar al país sin documentos ni autorización, deben expurgar su culpa.

ওবামা বার বার বলে আসছে যে যুক্তরাষ্ট্র হচ্ছে একক আইন মেনে চলা এক জাতির রাষ্ট্র এবং বৈধ কাগজপত্র না থাকা কিংবা কোন ধরনের অনুমোদন ছাড়া দেশটিতে অভিবাসীর প্রবেশকে “অপরাধ” হিসেবে চিহ্নিত করার বিষয়টিকে অবশ্যই সংশোধন করতে হবে।

এই পদক্ষেপ নিছক এক অসম্পূর্ণ সমাধান, এই আইনের দ্বারা যারা সুবিধাপ্রাপ্ত হবে, সেই সমস্ত অভিবাসীদের বৈধ কাগজপত্র ছাড়াই দেশটিতে থাকতে হবে, যদিও তাদের খানিকটা কাজ করার সুযোগ থাকবে। এদিকে ৬০ লক্ষ অবৈধ অভিবাসীর ক্ষেত্রে তাদের বৈধ হওয়ার বিষয়টি ঝুলেই রইল।

আপনি টুইটারে সোনিয়া তেজাদেকে অনুসরণ করতে পারেন

এই ব্লগটি লুনেসডেব্লগজিভি (সোমবারে জিভিতে ব্লগ লেখা) নামক প্রকল্পের অধীনে ত্রিশতম পোস্ট যা ২৪ নভেম্বর ২০১৪-এ পোস্ট করা হয়েছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .