বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

দক্ষিণ কোরিয়ান ফিগার স্কেটার ইউনা কিমের “ডাকাতি হয়ে যাওয়া” সোচি স্বর্ণ পদকটি ফটোশপে রূপান্তরিত

বিস্তারিত বিভিন্ন পোস্ট থেকে শুরু করে অবিশ্বাসের প্রতিক্রিয়া এবং পুরাদস্তুর অভিশাপ দেয়া, ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা কোন কিছুই বাদ রাখেননি। এদের মাঝে শুধু দক্ষিণ কোরিয়ার নাগরিকেরাই আছেন, তা নয়। ফিগার স্কেটিং’এ দক্ষিণ কোরিয়ার জীবন্ত কিংবদন্তি ইউনা কিমকে হারিয়ে দিয়ে রাশিয়ান ফিগার স্কেটার এডেলিনা সোতনিকোভা যখন সোচিতে অনুষ্ঠিত মহিলাদের মুক্তভাবে স্কেটিং খেলায় সোনা জিতলেন, তখন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা একেবারে রাগে ফেটে পড়েছেন। 

ফলাফল ঘোষণার কিছুক্ষণের মধ্যেই সোতনিকোভাকে বিজয়ী করা নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন। এমনকি এই প্রতিযোগীতার ভিতরের একজন লোক জোর দিয়ে বলেছেন যে প্রতিযোগীতাটি পাতানো ছিল। তারপর থেকেই মহিলাদের মুক্তভাবে স্কেটিং প্রতিযোগীতার বিচারকদের নিয়ে খবর প্রকাশ হওয়া শুরু হল। বিচারক কমিটিতে চারজন সদস্য ছিলেন। তাদের সবাই পূর্ব ইউরোপ (রাশিয়া, ইউক্রেন এস্তোনিয়া এবং স্লোভাকিয়া) থেকে এসেছেন। রাশিয়া থেকে আগত বিচারক চমৎকারভাবে রাশিয়ার ফিগার স্কেটিং ফেডারেশনের সাবেক সভাপতি এবং বর্তমান প্রধানের জীবনসঙ্গী। ইউক্রেন থেকে আসা বিচারকের ভোট বাণিজ্যের সাথে জড়িত থাকার অপরাধে এক বছরের জন্য বরখাস্ত হওয়ার মতো লজ্জাজনক অতীত রেকর্ডও আছে।  

অনেক নেটিজেনের কাছে ঘটনাটি এমনভাবে আবির্ভূত হয়েছে যেন, দক্ষিণ কোরিয়ার প্রিয় ফিগার স্কেটিং রাণীর স্বর্ণ পদকটি চুরি হয়ে গেছে। ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের কেউ কেউ আবার পেশাদার কর্মপরায়ণ পথ অবলম্বন করেছেনঃ একটি অনলাইন আবেদনের মাধ্যমে নম্বর প্রদানের সিদ্ধান্তের উপর তদন্ত করার দাবি জানানো হয়েছে। দুই দিনেরও কম সময়ের মধ্যে ফলাফলের সিদ্ধান্ত পুনরায় বিবেচনার দাবিতে ১.৯ মিলিয়ন স্বাক্ষর ইতোমধ্যে সংগৃহীত হয়েছে। অন্যরা রসিকতা করে রাশিয়ান খেলোয়াড়ের জন্য বাঁধা [কোরিয়ান] তৈরি করতে বিভিন্ন রকম দৃশ্যে তাঁর ফটোশপ করে ছবি দিয়ে ঠাট্টা করার উপায় জানিয়ে রাগ ঝেড়েছেন।    

আমার মনে হয় আমি তাকে একটি বি-বয় নাচ প্রতিযোগীতায় দেখেছি। 

[নকল শুদ্ধিকরণ অনুরোধ] আমি শুনেছি এই মহিলা এক্সো’র [কে-পপ বয় গ্রুপ] কভার নৃত্যশিল্পী। দয়া করে আপনাদের ভুল পোস্টটি সরিয়ে নিন। 

অনেকেই অলিম্পিক ২০১৮ তে সম্ভাব্য প্রতিশোধ নিয়ে কৌতুক করেছেন। কেননা অলম্পিকটি দক্ষিণ কোরিয়ার পিয়েংচ্যাং শহরে অনুষ্ঠিত হবেঃ 

এই ফলাফল সম্পর্কে অনেকেই আনন্দ-উল্লাসপূর্ণ টুইট করেছেন। একজন বলেছেন, “আমাদের পিয়েংচ্যাং অলিম্পিকের জন্য অপেক্ষা করুন। আমরা আপনাদেরকে দেখাবো [দক্ষিণ কোরিয়ার বিখ্যাত স্পিড স্কেটার] কি করে লি স্যাং-হুয়া ফিগার স্কেটিং’এ স্বর্ণ পদক লাভ করেন।” আরেকজন টুইট করেছেন, “পাতানো ফলাফল? এটার জন্য আমাদের কাছেও ভবিষ্যতে কাজে লাগানোর মতো কিছু ফন্দি আছে। এটি আর কিছুই নয়, আমাদের জাতীয় তথ্য সংগ্রহ ও পর্যবেক্ষণ বিভাগ এবং রাষ্ট্রীয় আইনজীবীরা পিয়েংচ্যাং অলিম্পিকের বিচার কাজ সম্পন্ন করবেন।” [গোয়েন্দা সংস্থার নির্বাচনে অনধিকারচর্চা রটনার কথা উল্লেখ করে] 

তারা বলেছেন, এটি পিয়েংচ্যাং অলিম্পিকেরই একটি ছোট এক ঝলক। [ফটোশপ করা ছবিটিতে একজন প্রচলিত ধারার ঢোল বাদককে ফিগার স্কেটিং করতে দেখা যাচ্ছে] হা হা হা। হা হা হা।  

অলিম্পিকে মহিলাদের ফিগার স্কেটিং খেলায়…এই লোকটিই প্রকৃত চ্যাম্পিয়ন। 

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .