বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

এখনো মানুষের কাছে সেরা সেন্ট লুসিয়ানের প্রধান বাবুর্চি নিনা কম্পটন

প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী জন কম্পটনের মেয়ে, সেন্ট লুসিয়ানের প্রধান বাবুর্চি, নিনা কম্পটন সম্প্রতি রান্না বিষয়ক রিয়্যালিটি শো, টপ শেফের একাদশ তম আসরে রানার্স আপ হয়েছেন। শো’টিতে অবশেষে নিকোলাস এলমি জিতলেও, কম্পটনের অংশগ্রহনের বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের প্রধান আলোচ্য বিষয় হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে “প্রগতির উদ্দেশ্যে সেন্ট লুসিয়ানরা” নামক অনলাইন গ্রুপে এটি আলোচনার ঝড় তুলেছে।

এই গ্রুপটি দ্বীপ রাষ্ট্রটির রাজধানীর মধ্যস্থলে অবস্থিত ডেরেক ওয়ালকট স্কয়ারে টপ শেফ পরিসমাপ্তির একটি জনমত জরিপের আয়োজন করেছে। অনেক পর্যবেক্ষক অবাক হয়েছেন যে কম্পটনকে বিজয়ী ঘোষণা করা না হলেও তিনি ভালোভাবে উপলব্ধি করাতে সক্ষম হয়েছেন যে তিনি “ভক্তদের মাঝে প্রিয়” হয়ে পুরস্কার জিতেছেন। তাঁর সাথে সাথে তিনি ১০ হাজার মার্কিন ডলারের দর্শকপ্রিয় পুরস্কারও জয় করেছেন। এটি এটাই নির্দেশ করে যে তিনি কতোটা উচ্চ পর্যায়ের অনলাইন সমর্থন পেয়েছেন। সেন্ট লুসিয়ার পর্যটন মন্ত্রী, লর্নি থিওফিলাস এই শো’য়ের পর তাকে “রান্নাবান্না সম্পর্কিত রাষ্ট্রদূত” হিসেবে আখ্যায়িত করেন। 

#টিমনিনা, #টিমগ্রিনফিগএন্ডসল্টফিশ, #টিম৭৫৮ এবং #নিনানেশন হ্যাশট্যাগগুলোর মাধ্যমে টুইটারে কম্পটন ব্যাপক সমর্থন পেয়েছেন। পরিশেষে তিনি দ্বিতীয় স্থান অধিকার করায় মাইক্রোব্লগ সম্পর্কিত সেবা ব্যবহারকারীদের কেউ কেউ অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তবে তাঁর বেশিরভাগ ভক্তই তাঁর এই সফলতায় তাকে অভিনন্দন জানাতে ব্যস্ত আছেনঃ  

তাই #টপশেফ এমন কাউকে বেছে নিয়েছে যিনি টিন বন্দি রান্না মাংস বা ছাইপাশ রান্না করতে জানেন এবং যিনি দু’জন ভদ্র মহিলার মাঝে কিছুটা সঙ্গতিহীন। তিনি দু’জন ভদ্র মহিলাকে দেখিয়ে দিয়েছেন মেধাবী বাবুর্চি বলতে কি বোঝায়।

আমরা পরোয়া করি না বিচারকেরা কি বললেন। শেফ নিনাই আমাদের কাছে সেরা!!!  

একজন টুইটার ব্যবহারকারী অবজ্ঞার সাথে পরামর্শ দিয়েছেন যে কম্পটনই এই প্রতিযোগিতা জিততে পারতেন, যদি তিনি তাঁর পরামর্শ শুনতেনঃ 

#টিমগ্রিনফিগএণ্ডসল্টফিশ আমি নিনাকে “পেহমি এবং আটার পরিডের” ৪টি মিষ্টান্ন তৈরি করতে বলেছি। তিনি গেলেন এবং তাঁর নিজের পছন্দের জিনিস তৈরি করলেন! 

ত্রিনিদাদের ফ্যাশন ডিজাইনার, আনিয়া আয়াং-চি ২০১১ সালের ফ্যাশন প্রতিযোগিতা প্রজেক্ট রানওয়ে পুরস্কার জিতেছেন। তিনিও কম্পটনের জন্য তাঁর সমর্থন টুইট করেছেনঃ 

এডসেল লিটল এই থাম্বনেইল ছবিটি “টপ শেফ তহবিল উত্তোলনকারী” শিরোনামের পোস্টটিতে ব্যবহার করেছেনএকটি এট্রিবিউশন-শেয়ারএলাইক ২.০ জেনেরিক ক্রিয়েটিভ কমনস লাইসেন্সের অধীনে ছবিটি ব্যবহার করা হয়েছে। এডসেল লিটলের ফ্লিকার ছবি দেখুন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .