বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

গল্পগুলো আরও জানুন ত্রিনিদাদ ও টোবাগো

20 নভেম্বর 2015

‘ডাবল’ নামক খাবারের দাম বাড়ায় ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর খাদ্যরসিকেরা উদ্বিগ্ন

ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর জনগণের সবচেয়ে প্রিয় সকালের নাস্তা "ডাবল" নামক খাবার বিক্রেতারা ক্ষোভের সৃষ্টি করে যখন তারা ঘোষণা করে এর দাম এক ডলার বাড়ানো হবে,...

14 সেপ্টেম্বর 2015

আবহাওয়া যেমন হোক, ভোট দেবে ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর জনগণ

ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর এক ভোটারের উক্তিঃ “বৃষ্টি আমাদের পার্টি করা থেকে বিরত রাখতে পারবে না, বৃষ্টি আমাদের ভোট প্রদান করা থেকে বিরত রাখবে না”।

20 জুন 2015

‘গিরগিটি কোথায়?’ ক্যারিবীয়রা কেন তাদের প্রতি মুদ্ধ

প্রাচীন রোমীয়রা গিরগিটিকে মৃত্যু এবং পুনরুত্থানের প্রতীক হিসেবে বিশ্বাস করতো, কারণ এগুলো শীতের সময় ঘুমাতো এবং বসন্তের সময় পুনর্জাগরিত হতো।

6 সেপ্টেম্বর 2014

মারিজুয়ানার বৈধতা নিয়ে ক্যারিবিয়ানদের মধ্যে বিতর্ক

মারিজুয়ানাকে বৈধতা দেয়া উচিৎ কিনা সে বিষয়ে ক্যারিবিয়ান দেশগুলোতে তুমুল বিতর্কের মধ্যে এটর্নি রিচি মেইটল্যান্ড গ্রাউন্ডেশন গ্রানাডা ব্লগে গুল্মটিকে বৈধতা দেয়ার জন্য সুপারিশ করেছেন।

7 আগস্ট 2014

টুইটার, টিভি এবং রাস্তায় গাজার সঙ্গে সংহতি প্রকাশে ত্রিনিদাদবাসী

গাজার মানুষের প্রতি সমর্থন জানিয়ে বিশ্ব জুড়ে চলমান অবিরত বিক্ষোভের অংশ হিসেবে ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর ক্যারিবিয়ান নেট নাগরিকরাও ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে তাদের সংহতি প্রকাশ করেছেন।

28 মে 2014

ছবিঃ ত্রিনিদাদ এন্ড টোবাগোতে পোউই মৌসুম

সুন্দর পোউই ফুল ফোঁটা মানে মানুষের মনে সারাবছরের জন্য আশা এবং নবযৌবন লাভ করার অনুপ্রেরণা ও স্মরণ করিয়ে দেয়া যে ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে বসন্ত খুব সন্নিকটে।

8 ফেব্রুয়ারি 2014

আস্তাকুড়ে লাগা আগুনের ধোঁয়ায় জিম্মি হয়ে পড়েছে ত্রিনিদাদের রাজধানী

ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর রাজধানী শহরে কাজ করা অধিবাসীকে চতুর্থ দিনের মতো ঘন ও কালো ধোঁয়া সহ্য করতে হয়েছে। এই কালো ধোঁয়া নগরীকে আবৃত করে রেখেছে।