বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

নারীদের গাড়ি চালনা দিবসে সৌদি পুলিশের ব্যাপক উপস্থিতি

সব বড় বড় শহরগুলোর রাস্তায় ট্রাফিক পুলিশের চেকপয়েন্ট বসানো হয়েছে। ২৬ অক্টোবর যেন কোন নারী চালক গাড়ি চালনা না করে, তা নিশ্চিত করতে এই ব্যবস্থা নেয়া হয়। নারীদের গাড়ি চালনার ওপর আরোপ করা সরকারি নিষেধাজ্ঞা অগ্রাহ্য করতে এই দিনটিকে বেছে নেয়া হয়েছে। প্রচারাভিযানটি শুরু হওয়ার পর থেকে সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এটির অবস্থান সম্পর্কে স্পষ্ট হতে পারছে না। নারীদের গাড়ি চালনার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের জন্য দীর্ঘ দিন ধরে “সমাজ” কে দোষারোপ করা হয়েছে। কিন্তু সরকারি নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার দাবি জানিয়ে বারবার প্রচারাভিযান চালানোর পরও তা তুলে নেওয়ার কোন লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা গত ২৫ অক্টোবর নারী সক্রিয় কর্মীদের ফোন করে প্রচারাভিযানটিতে অংশগ্রহণ করার ব্যাপারে সতর্ক করে দেন। আল-হায়াত পত্রিকাটি রিপোর্ট [আরবি] করেছেঃ

أكد المتحدث الرسمي لوزارة الداخلية اللواء منصور التركي لـ«الحياة» أنه وفقاً لما سبق الإعلان عنه في شأن ما يثار حول قيادة المرأة السيارة واستناداً إلى نتائج المتابعة الأمنية، أجرت الجهات الأمنية المختصة اتصالات بمن ظهرت منهن بوادر تحريض أو مشاركة في شأن المبادرة – التي حددت غداً السبت موعداً لانطلاقها – لافتاً إلى أنه تم اشعارهن بأنه لا تهاون في تطبيق النظام متى ما ارتكبت المخالفات.

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দাপ্তরিক মুখপাত্র আল-হায়াত পত্রিকাটিকে নিশ্চিত করেছে যে, নারীদের গাড়ি চালনার জন্য জানানো আহ্বান সম্পর্কে পূর্ববর্তি ঘোষনাগুলোকে অনুসরণ করে এবং নিরাপত্তা তদন্তের ফলাফল হিসেবে নিরাপত্তা কর্তৃপক্ষ শনিবারের উদ্যোগের জন্য উত্তেজনা সৃষ্টির কাজে যারা জড়িত আছে তাঁদেরকে ফোন করেছে। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেছেন, তাঁদেরকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। যেখানেই আইন লঙ্ঘন করা হবে, সেখানেই যেন তা প্রয়োগ করা হয়।

এমনকি সক্রিয় কর্মী আজিজা আল-ইউসেফের মতো, কয়েকজন নারী পুলিশের নিরীক্ষণ সম্পর্কে রিপোর্ট করেছেনঃ

ভোর থেকে দু’টি গাড়ি আমাকে সব জায়গায় অনুসরণ করেছে। এমনকি আমাকে অনুসরণ করতে যেয়ে তাঁরা [রাজা] খালি মসজিদে একটি শেষকৃত্য অনুষ্ঠানেও অংশ নিয়েছে।

এছাড়া যারা গাড়ি চালাতে গিয়ে ধরা পড়েছে, তাঁদেরকে সচরাচর প্রদত্ত শাস্তির চেয়েও কঠোর শাস্তি দেয়া হয়েছেঃ

যেসব মহিলারা গাড়ি চালিয়েছে, তাঁদেরকে শাস্তি প্রদান হিসেবে এক সপ্তাহের জন্য গাড়ি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে, ৯০০ সৌদি রিয়াল [২৪০ মার্কিন ডলার] জরিমানা করা হয়েছে এবং একটি লিখিত প্রতিজ্ঞা [গাড়ি না চালানোর] করানো হয়েছে। আমি বিস্মিত হই এই ভেবে, যদি একটি ছোট, তরুণ গাড়ি চালায়, তবে তাঁকে কি শাস্তি দেয়া হবে। J

এতকিছু সত্ত্বেও, সক্রিয় কর্মী হালাল আল-দোসারি রিপোর্ট করেছেনঃ 

৫০ জন মহিলা গাড়ি চালিয়েছে, তাঁর মধ্যে ১৮ জনকে থামানো হয়েছে।

মেয় আল-সুয়ান ২৬ অক্টোবর তাঁর গাড়ি চালনার অভিজ্ঞতার একটি ভিডিও ধারন করেছেন। সে ভিডিওটি ১ লক্ষ ৩০ হাজারেরও বেশি বার দেখা হয়েছেঃ

https://www.youtube.com/watch?v=GN0vnhPX2hc

সৌদি রাষ্ট্রায়ত্ত পত্রিকা আল-রিয়াদ এর প্রথম পৃষ্ঠায় নিচের লেখাটি ছাপা হয়ঃ

«26 أكتوبر» مر بهدوء.. وحملات التحريض باءت بالفشل

২৬ অক্টোবর শান্তভাবেই পার হয়েছে। উত্তেজক প্রচারাভিযানটি ব্যর্থ হয়েছে।

সৌদি টুইটার ব্যবহারকারী মিশারি আল-ঘামদি সরকারি পত্রিকাটির কভারেজ নিয়ে মন্তব্য করেছেনঃ

 

আজ প্রচারাভিযানটিতে আক্রমণকারী পত্রিকাটি, আমাদের চরমপন্থি ভাইদের থেকেই উৎসারিত। অথচ নিজেদের তাঁরা নিরপেক্ষ এবং পশ্চিমা ধারার বলে দাবি করে।

ইতিহাসবিদ আব্দুলাজিজ আল-খেদের প্রচারাভিযানটির প্রভাব নিয়ে টুইট করে মন্তব্য করেছেনঃ  

এই প্রচারাভিযানটির দ্বারা…কর্মকর্তাদের অবস্থানই সবচেয়ে বেশি প্রভাবিত হবে।

সৌদি নারীরা তাঁদের গাড়ি চালনার অধিকার আদায়ের জন্য চাপ প্রয়োগ করা চালিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .