বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

নিয়মতান্ত্রিক শাসন বিষয়ে পড়ানোর দায়ে বরখাস্ত হলেন চীনা প্রফেসর

চীনে একজন স্পষ্টবাদী আইন বিষয়ক প্রফেসরকে নিয়মতান্ত্রিক শাসন বিষয়ে পড়ানো ও কলাম লেখার কারনে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

সাংঘাইয়ের পূর্ব চীন বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতি ও আইন বিষয়ের প্রফেসর ঝাং জুয়েঝং গত জুন, ২০১৩ তে “২০১৩ সালের নিয়মতান্ত্রিক শাসন-বিরোধী প্রচারাভিযানের উৎস ও বিপদ” শিরোনামে একটি কলাম লিখেন। ১৭ আগস্ট তারিখে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ঝাংকে জানায় যে, তাঁর বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ানোর যোগ্যতা বাতিল করা হয়েছে। চায়না চেঞ্জ নামের একটি মানবাধিকার ওয়েবসাইটের মতে, বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিউনিস্ট পার্টি কমিটি সিদ্ধান্তটি নিয়েছে।

ঝাং তাঁর উই চ্যাট একাউন্টের মাধ্যমে একটি বক্তব্য দিয়ে ব্যাখ্যা করেছেন, “আমার কাছে বিশ্ববিদ্যালয়টি পরিষ্কারভাবে জানিয়েছে যে কলামটি গণপ্রজাতন্ত্রী চীনের সংবিধানের অবমাননা। এবং একই সাথে এটি শিক্ষকের নৈতিকতাকেও লঙ্ঘন করে”।

Professor Zhong Xuezhong (Pic from Sina Weibo)

প্রফেসর ঝাং জুয়েঝাং। ছবিঃ সিনা উইবো থেকে।

এ বছরের শুরুতে এটি যখন চীনে নিয়মতান্ত্রিক শাসনের ডাক দেয় তখন চীনের সংবাদপত্র সাউদার্ন উইকেন্ড তীব্রভাবে এর সমর্থন করে।

ঝাং জুয়েঝং এর সংক্ষিপ্ত জীবন কথা থেকে দেখা যায়, তিনি চীনের অত্যন্ত উদারমনা একজন ব্যক্তি। ২০১২ সালের সেপ্টেম্বরে হং কং বিদ্যালয়ে “জাতীয় শিক্ষা” কোর্সের বিরোধীদের সমর্থন করার কারনে ঝাং কে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। ২০১৩ সালের মে মাসে যখন চীনের কমিউনিস্ট পার্টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে সাতটি স্পর্শকাতর বিষয় সম্বন্ধে পড়ানো বন্ধ করতে একটি দিকনির্দেশনা ইস্যু করে, তখন ঝাং জনপ্রিয় মাইক্রোব্লগিং সাইট সিনা ওয়েইবোতে বিষয়টিপ্রথম প্রকাশ করে দিয়েছে এমন প্রফেসরদের একজন ছিলেন। “সাতটি কথা বলা নিষিদ্ধ” নীতি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাক্রমে যে বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করতে নিষেধ করে তা হল, “বৈশ্বিক মূল্যবোধ, সুশীল সমাজ, নাগরিক অধিকার, বিচার ব্যবস্থার স্বাধীনতা, প্রেসের স্বাধীনতা, কমিউনিস্ট পার্টির অতীত ভুল এবং অগ্রগণ্য পুঁজিবাদী শ্রেনী”।

তখন থেকে ঝাং এর ওয়েইবো একাউন্টটি নিশ্চিহ্ন করে দেয়া হয়েছে।

২০১৩ সালের মার্চ মাসে ঝাং “দ্যা নিউ কমন সেন্স- দ্যা নেচার এন্ড কন্সিকোয়েন্সেস অব ওয়ান পার্টি রুল” শিরোনামে [ম্যান্দারিন] একটি বই প্রকাশ করেন।

ঝাং এবং নিয়মতান্ত্রিক শাসন নিয়ে তাঁর লেখা প্রবন্ধের জন্য অনেকে ওয়েইবো ব্যবহারকারীই তাঁকে সমর্থন জানায়, এখনেও বেশীরভাগ মন্তব্য শীঘ্রই নিশ্চিহ্ন করে দেয়া হয়।

আইনজীবি ঝাং কুয়ান [ম্যান্দারিন] লিখেছেনঃ 

实行人民约法、宪法限政是必要的,这是人类社会发展方向。只有天赋人权,不存在天赋党权。权力没有限制,迟早会出问题。但宪政的方式、进程可以商讨。

সরকারের ক্ষমতাকে সীমিত রাখতে সংবিধানের বাস্তবায়ন অত্যন্ত জরুরী। এটি মানব সমাজের উন্নয়নের দিক নির্দেশক। প্রধানত এটি মানবাধিকারের কথা বলে, দলের অধিকারের কথা নয়। ক্ষমতার অসীম ব্যবহারে আগে কিংবা পরে সমস্যা হবেই। কিন্তু সাংবিধানিক শাসনের পথ এবং প্রক্রিয়া নিয়ে আলোচনা করা যেতে পারে।

ওয়েব ব্যবহারকারী “লিক্সিং ঝেরেন” সমালোচনা [ম্যান্দারিন] করে বলেছেনঃ

大学拒绝思想自由、学术自由的精神,意味着一个民族在拒绝文明。但我不客气的说,从张雪忠老师的遭遇和风范中,我们也看到了中国知识分子为利逐言的懦弱。一个学校成千上万名教师和学生,竟然只有一个人如同中世纪的伽利略在抗争!这不是时代和民族的悲哀?

মুক্ত চিন্তা ও শিক্ষা কার্যক্রমের আত্মার স্বাধীনতা সম্পর্কে বিশ্ববিদ্যালয়টির অস্বীকৃতি বলতে বোঝায় একটি জাতির সভ্যতার অস্বীকৃতি। প্রফেসর ঝাং জুয়েঝং এর অভিজ্ঞতা থেকে আমি নিঃসন্দেহে বলতে পারি, চীনের বুদ্ধিজীবীরা তাঁদের কাপুরুষতা দেখিয়েছেন, কারন কয়েক হাজার শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীর মাঝে কেবলমাত্র একজন লোক মধ্য যুগের গ্যালিলিওর মতো একা যুদ্ধ করে চলেছেন! এটি কি এই সময় এবং এই জাতির জন্য একটি হৃদয় বিদারক ঘটনা নয়?

ওয়েব ব্যবহারকারী “ওয়াং ডংচেং” একই আবেগ প্রতিধ্বনিত [ম্যান্দারিন] করেছেনঃ

对于大学教师来说,“独立之思想,自由之精神”就是师德。张雪忠的言行,说明他有良好的师德。现下的高校讲台上发清声者本来就不多,因此就愈显张雪忠之宝贵。

বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের জন্য নৈতিকতা হচ্ছে, “চিন্তার স্বাধীনতা এবং আত্মার মুক্তি”।

ঝাং জুয়েঝং এর কথা এবং কাজ এটাই প্রদর্শন করে যে তিনি নীতি অনুসরণ করেন। একই সময়ে বেশীরভাগ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকরা যখন তাঁদের প্রকৃত মতামত প্রকাশ করছেন না, তখন ঝাং জুয়েঝং এর অবশ্যই একটি নির্দিষ্ট গুরুত্ব আছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .