বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মিশর: যৌন হয়রানি বন্ধের মিছিলে হামলা

আজ (৮ই জুন, ২০১২) তাহরির স্কোয়ারে যৌন হয়রানি বন্ধের দাবিতে মহিলাদের একটি মিছিলে ক্রুদ্ধ পুরুষদের একটি দল আক্রমণ করলে তা কুৎসিত একটি ব্যাপারে পরিণত হয়। প্রত্যক্ষ্যদর্শীরা টুইটারে তাদের অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করেছেন।

অকুস্থলে উপস্থিত আসোসিয়েটেড প্রেসের সাংবাদিক সারাহ এল দীব নিচের টুইটগুলোতে যা ঘটেছে তা বর্ণনা করেছেন:

@এসএলদীব: #যৌনহয়রানিবন্ধ মিছিলের উপর অনেকগুলো লোকের হামলা – যার উদ্দেশ্য ছিল একে ছত্রভঙ্গ করে দিয়ে অংশগ্রহণকারীদের অপমান এবং হামলা করা।

@এসএলদীব: মার্চ #যৌনহয়রানিবন্ধ মিছিলের পুরুষরা আক্রমণকারীদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধের চেষ্টা করেছে কিন্তু সংখ্যায় বেশি হওয়ায় কিছু মহিলা কোণঠাসা হয়ে হয়ে পড়েন

@এসএলদীব: পুরুষদের দলটি এলাকার লোকদের ভয় ধরিয়ে দেয় আর কেউ কেউ তাদের দোকান বন্ধ করে দেয় #যৌনহয়রানিবন্ধ (মিছিলটিকে) ভয়ংকর মনে হওয়ায়। শেষ পর্যন্ত ১টি দোকান আশ্রয় দিয়েছে

@এসএলদীব: কিছু কিছু প্রত্যক্ষদর্শী বলেছেন #যৌনহয়রানিবন্ধ মিছিলে হামলা শুরুর আগে থেকেই আশেপাশের লোকগুলো মেয়েদের উত্যক্ত করছিলো

May your hand be severed. No to sexual harassment, reads a sign held at the protest. Photograph by Sarah El Deeb

“আপনার হাত বিরত থাকুক। যৌন হয়রানিকে না”- লেখা একটি প্ল্যাকার্ড। টুইটারে সারাহ এল দীব ছবিটি ভাগাভাগি করেছেন

বিক্ষোভের মাসগুলো জুড়েই যৌন হয়রানির অভিযোগগুলো অব্যাহতভাবে চুইয়ে চুইয়ে এসেছে। আমিরা হাওয়েইদি এর পটভূমি প্রদান করেছেন:

@আমিরাহাওয়েইদি: মহিলা বিক্ষোভকারীদের যৌন হয়রানি ২০০৫ সাল থেকে মুবারকের জাতীয় গণতান্ত্রিক দল আবিষ্কৃত একটি প্রতিষ্ঠিত প্রথা

@তুর্ক৪(ফর)সিরিয়া মহিলাদের হয়রানি করে কেউ কখনো গ্রেফতার হয়েছে কিনা জিজ্ঞেস করলে মোহাম্মেদ ইয়াহিয়া জবাব দেন:

@মোহাম্মেদওয়াই: @তুর্ক৪(ফর)সিরিয়া কখনো  কেউ না। এটা এতটাই নিয়মমা্ফিক যে অনেকেই সন্দেহ করেন ক্ষমতাসীনরা মহিলা বিক্ষোভকারীদের দমন করার জন্যে এর পৃষ্ঠপোষণ করেন। #যৌনহয়রানিবন্ধ

শিরিনথাবেত সুপারিশ [আরবী ভাষায়] করেছেন::

@শিরিনথাবেত: ‬‏ الجملة اللي بقولها في كل حتة مع اي حد، المتحرش مش هايسمع الكلام، المتحرش مش هاتقدر توعيه، المتحرش لازم يكش، لازم المجتمع ينبذه، بس
একটি কথা আমি সব জায়গায় সবার কাছে বারবার বলি সেটা হলো: হয়রানিকারীরা কারো কথা শুনবে না। হয়রানিকারীদের শিক্ষিত করা সম্ভব নয়। হয়রানিকারীদের নিশ্চিহ্ন করা প্রয়োজন এবং সেটা করার একমাত্র উপায় হলো সমাজিকভাবে তাদের প্রত্যাখ্যান করা। এটাই দরকার।

এবং দীনা _আদেল উপসংহার টেনছেন এভাবে:

@দীনা _আদেল: অনুগ্রহ করে আমরা কী যৌন হয়রানি নিয়ে পুণরুজ্জীবিত এই ক্রোধকে কাজে লাগিয়ে এর বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্যে শক্ত (বোধগম্য) একটি পদক্ষেপ নিতে পারি? #যৌনহয়রানিবন্ধ

আরো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যাবে টুইটারে #যৌনহয়রানিবন্ধ হ্যাশট্যাগে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .