বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

বাহরাইন:পুলিশের নির্মমতার এক ভিডিও টাইম লাইন

এই পোস্টটি বাহরাইনের প্রতিবাদ ২০১১-এর উপর করা আমাদের বিশেষ কাভারেজের অংশ

যখন সারা বিশ্বের প্রচার মাধ্যমের মনোযোগ লিবিয়ার দিকে ঘুরে গেছে এবং দ্রুত সেখানকার ঘটনাবলিকে তুলে ধরছে, তখন বাহরাইনের সরকার গণতন্ত্র-পন্থী বিক্ষোভকারীদের প্রতি ভয়াবহ হামলা চালিয়েছে। যখন রাজধানী মানামার পার্ল(লুলু)রাউন্ডএ্যাবাউটে সরকার বিক্ষোভকারীরা শোভাযাত্রা বের করে, তখন তাদের উপর নিরাপত্তা বাহিনীর চালানো গুলিতে পাঁচজন নিহত হয়। এই সপ্তাহে তিনমাস ব্যাপী এক রাষ্ট্রীয় জরুরী অবস্থা জারি করা হয়েছে এবং সে স্থানে দৈনিক কারফিউ বা সান্ধ্য আইন জারী করা হয়েছে। অনেক মানবাধিকার, রাজনৈতিক কর্মী এবং বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে, অন্যদিকে সংবাদ রয়েছে যে অনেকে নিখোঁজ রয়েছে। প্রচার মাধ্যমে এই বিষয়ের উপর সংবাদ প্রদান করার নিষেধাজ্ঞা জারি থাকা সত্ত্বেও নাগরিকরা ক্যামেরা নিয়ে বের হয়ে পড়ছে এবং সেই সব দৃশ্যের ছবি তুলছে, যা রাষ্ট্র পরিচালিত প্রচার মাধ্যম আপনাদের দেখতে দিতে চায় না।
এখানে ব্লগার চান’আদ বাহরাইনি ২.০-র পোস্ট করা বাহরাইনি প্রতিবাদের ভিডিও সময়সূচি (ভিডিও টাইমলাইন) রয়েছে, যিনি মন্তব্য করেছেন:

১৪ ফ্রেব্রুয়ারির এই গণজাগরণের সাম্প্রতিক ঘটনায়, ভিডিওতে ডজন খানেক প্রচণ্ড জবরদস্তি মূলক আক্রমণের দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে। এটা নিরাপত্তা বাহিনীর এই ধরনের ক্ষমতা অপব্যবহারের নিখুঁত প্রমাণ তুলে ধরে-এবং বাহরাইনের শাসক গোষ্ঠীর অতিরিক্ত ক্ষমতা প্রদান-যারা বছরের পর বছর ধরে চাকুরি করে যাচ্ছে।


বিশেষ সতর্কতা: এখানে পোস্ট করা কিছু ভিডিও গ্রাফিক (পীড়াদায়ক) প্রকৃতির, সতর্কতার সাথে দেখা প্রয়োজন।

ফ্রেব্রুয়ারি ১৪,২০১১
ডিরাজের এই ভিডিওটি দেখাচ্ছে যে, প্রথম দিনের বিক্ষোভের উপর চালা্নো ভয়াবহ আক্রমণের দৃশ্য, যার মাধ্যমে প্রথম প্রতিবাদের যাত্রা শুরু। সে সময় দাঙ্গা পুলিশ নিরস্ত্র বিক্ষোভকারীদের উপর রাবার বুলেট এবং গ্যাস ছুঁড়ে মারে।( ইউটিউবে এই ভিডিওটি পোস্ট করেছে সোমাহদ৯২)

দাইয়াহতে দাঙ্গা পুলিশ খুব স্বল্প দুরত্ব থেকে গুলি করে (এই ভিডিওটি পোস্ট করেছে মারগাদোশ)

সেহলাতে, দাঙ্গা পুলিশ কোন ধরনের উত্তেজনা ছাড়াই বিক্ষোভকারীদের উপর হামলা চালায় (ভিডিওটি পোস্ট করেছে আলবাহরাইনি২০১১)

সেহলায়-ভিন্ন এক কোণ থেকে সেই একই দৃশ্যের ছবি (ভিডিওটি পোস্ট করেছে আলসেহলাউয়ি১২)

সিতরাতে, বাহরাইনের পতাকা বহন করা নিরস্ত্র প্রতিবাদকারীদের উপর পুলিশ নির্মম ভাবে হামলা চালায় (ভিডিওটি পোস্ট করেছে রেটম্যান৯৬)

ফ্রেব্রুয়ারি ১৭

রাজধানী মানামায় পার্ল(লুলু)রাউন্ডএ্যাবাউটে অবস্থানকারী নিরস্ত্র বিক্ষোভকারীদের উপর সরকার রাত ৩ টায় আক্রমণ চালায়।(ভিডিওটি পোস্ট করেছে সিমসিম৭৫০১):

ফ্রেব্রুয়ারি ১৮

মানামা-বিক্ষোভকারীরা শান্তি! শান্তি! স্লোগান দিতে দিতে লুলু রাউন্ডএ্যাবাউটের দিকে এগিয়ে যাবার চেষ্টা করে। তাদের প্রতি তাজা বুলেট গুলি বর্ষণ করা হয় (ভিডিওটি পোষ্ট করেছে শাফিম)

সতর্কতা: গ্রাফিক (পীড়াদায়ক) ভিডিও]

মার্চ ১৩

বেশ কয়েকবার নিরস্ত্র প্রতিবাদকারীদের উপর খুব কাছ থেকে রবার বুলেটের গুলি ছোড়া হয়।(ভিডিওটি পোস্ট করেছে আলি ৯৫৬৬):

বাহরাইন বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে ভিডিও ধারণ করতে থাকা এক ক্যামেরাম্যানের উপর পুলিশ গুলি চালায়। (ভিডিওটি পোস্ট করেছে এনক্রিপ্ট রিয়ালিটি২):

মার্চ-১৫

সিতরাতে, দৃশ্যত এক প্রতিবাদকারীরা উপর খুব কাছ থেকে গুলি করার আগে তাকে নির্মম ভাবে প্রহার করে (ভিডিওটি পোস্ট করেছে নাসেরআলসেহা):

মার্চ ১৬

মেগশাহতে নিরস্ত্র প্রতিবাদকারী, যারা হাত উত্তোলন করেছে, তাদের প্রতি গুলি ছোড়া হয়েছে (ভিডিওটি পোস্ট করেছে আলমিল১)

সাআরতে, এক চেকপয়েন্ট (গাড়ী উপর নজর দেবার জন্য রাস্তায় গাড়ী থামানোর এলাকা) পুলিশ এক গাড়ী চালকের উপর নির্মম আচরণ কর।(ভিডিওটি পোস্ট করেছে বাহার১৪২০১১-এই ভিডিওর শব্দ ঠিক ভাবে শোনা যায় না)।

নীচের ভিডিও দুটি প্রদর্শন করছে যে, দাঙ্গা-বিরোধী পুলিশ ইচ্ছাকৃতভাবে সাধারণ নাগরিকদের গাড়ি ভাঙ্গচুর করছে (প্রথম ভিডিওটি পোস্ট করেছে মাজেরাক্সমজা, পরের ভিডিওটি পোস্ট করেছে এনক্রিপ্টেডরিয়ালিটি২):

চান’আদ বাহরাইনি ২.০-র ব্লগে আরো ভিডিও রয়েছে।

এই পোস্টটি বাহরাইনের প্রতিবাদ ২০১১-এর উপর করা আমাদের বিশেষ কাভারেজের অংশ

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .