বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

আলজেরিয়া: আলজেরীয় বই মেলা থেকে মিশরকে বাদ দেওয়ায় ঘটনায় ব্লগাররা নিন্দা জানিয়েছে

আলজেরীয় বই মেলার প্রতীক (সিলা)
এইচটিটিপি://ডাব্লিউডাব্লিউ.সিলা.ডজ/

আলজেরীয় বই মেলায় (সোলান ইন্টারন্যাশনাল দ্যু লিব্রে দ’আলজের বা সিলা) মিশরীয় লেখকদের অর্ন্তভুক্ত না করার বিষয়টিকে অনেক আলজেরীয় ভাল চোখে দেখেনি। গত সপ্তাহে জনসম্মুখে প্রদান করা এক ঘোষণায় সকল সামাজিক বিভাগের কিছু অনলাইন নাগরিক কয়েকদিন আগে অনুষ্ঠিত সিলার সভায়, তার সদস্যদের নেওয়া এই মেলায় মিশরীয় বই নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তের নিন্দা জানিয়েছে। [ফরাসী ভাষায়]:

Le commissaire a invoqué, en guise de justification, la campagne haineuse menée contre l’Algérie par certains médias égyptiens ainsi que le mauvais traitement subi par des citoyens algériens lors de la rencontre, au Caire, entre l’Équipe nationale de football et son homologue égyptienne.
À notre avis, il s’agit bien d’un chauvinisme délirant qui révèle, en fait, le peu d’égard que le livre en particulier et la culture en général ont toujours eu dans notre pays et une propension de certains de nos responsables à dénoncer au lieu d’éduquer

সভার সদস্যরা তাদের এই সিদ্ধান্তকে সঠিক বলে অভিহিত করেন এ কারণে যে কায়রোয় অনুষ্ঠিত মিশর বনাম আলজেরিয়ার বিশ্বকাপ বাছাই ফুটবল খেলার সময় মিশরীয় প্রচার মাধ্যম আলজেরিয়ার বিরুদ্ধে ঘৃণ্য এক প্রচারণা চালায় এবং সেখানে আলজেরিয়ার নাগরিকদের সাথে খারাপ আচরণ করা হয়।

আমাদের মতে, এটি উগ্র জাতীয়তাবাদী এক উন্মাদনা, যা কিনা উন্মোচন করে আমাদের দেশে বই এবং সংস্কৃতির বিষয়ে খুব সামান্যই বিবেচনা করা হয়, এবং কয়েকজন নেতা অন্যদের বোধসম্পন্ন করার বদলে অভিযোগ করতে শেখায়।

ব্লগার আর.জে নীচের মন্তব্যটি প্রদান করেছেন [ফরাসী ভাষায়]:

Ceux qui ont décidé ce blocus sur le livre égyptien, ne peuvent être que victimes d'une overdose d'excès de zèle et d'un nationalisme à un sou et qui pue l'allégeance…. » Et d’ajouter : «Pour l'instant, et sans diminuer de la valeur de nos illustres écrivains (Kateb Yacine et Assia Djebar), le seul homme de lettres arabe à avoir inscrit son pays au Nobel de littérature, c'est Najib Mahfoud. Bon, il se trouve que c'est un égyptien, ce n'est pas de sa faute. On ne choisit pas sa nationalité. Il le méritait. Pas pour sa nationalité mais juste pour son talent».

যারা মিশরীয় বই নিষিদ্ধ করার পক্ষে, তার অবশ্যই প্রচণ্ড গোয়ার্তুমি এবং সস্তা জনপ্রিয়তা অর্জনের মত সমস্যায় ভুগছে। তিনি এর সাথে যোগ করেন, আমাদের নিজেদের লেখকদের (কাতেব ইয়াসিন ও আসিয়া ডেজাবার) মহত্ব কে খাটো না করেই বলতে পারি, যতদুর দেখা যাচ্ছে আরবী ভাষায় কেবল যে একজন ব্যক্তি নোবেল পুরস্কার পেয়েছে, তার নাম নাগিব মাহফুজ। তিনি একজন মিশরীয়। কেউ নিখুঁত নয়। কেউ তার জাতীয়তা নিজে বেছে নেয় না, তার জাতীয়তার জন্য নয়, বরঞ্চ তার প্রতিভার কারণে সে প্রাপ্ত পুরস্কারের যোগ্য বলে বিবেচিত হয়েছে।

এই সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়ায় আলজেরিয়ান ব্লগার আদেল দুঃখের সাথে এই সিদ্ধান্ত কি ভাবে তৈরি হল তা তুলে ধরছে [ফরাসী ভাষায়]:

à chaque fois qu’il y a un problème dans nos pays arriérés, il faut que le pouvoir s’immisce. Si Bouteflika avait laissé les instances du football algérien régler le problème après le caillassage du bus et pas dit oui à la poursuite du match, le problème aurait été résolu aux niveaux des fédérations. Fierté algérienne mal placée jusqu’où tu nous mèneras ?

যখনই আমাদের তৃতীয় বিশ্বের কোন দেশের সাথে কোন সমস্যা তৈরি হয়, আমাদের সরকার মনে করে তারা জোর করে তার মধ্য ঢুকে পড়বে। আলজেরীয় খেলোয়াড়দের বহন করে নিয়ে যাওয়া বাসে পাথর ছুড়ে মারার পর বুতাফ্লিকা (আলজেরিয়ার রাষ্ট্রপতি) কি আলজেরীয় ফুটবল সংস্থাকে এই সমস্যার সমাধান করার নির্দেশ দিয়েছিল এবং তিনি কি খেলা চালিয়ে যাবার ব্যাপারে রাজী ছিলেন না। এই সমস্যা কি উভয় দেশের ফুটবল সংস্থার মধ্যে আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা যেত না। আলজেরিয়ার গর্বকে ভুল জায়গায় স্থাপন করার মধ্যে দিয়ে এইবার আপনি আমাদের কোথায় নিয়ে যাবেন?

আলজেরীয় সরকারের প্রতিক্রিয়ার অপেক্ষায় থাকা অবস্থায় আহমেদ বেনসাদা তার ব্লগে এক ডজন আলজেরীয় নাগরিকের স্বাক্ষর সম্বলিত একটি দরখাস্ত প্রকাশ করেছে, যেটিতে মিশরীয় লেখকদের বিরুদ্ধে আরোপিত নিষেধাজ্ঞার নিন্দা জানানো হয়েছে

1 টি মন্তব্য

আলোচনায় যোগ দিন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .