বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ল্যাটিন আমেরিকা: আফ্রো-ল্যাটিনোদের অবদান উদযাপন

যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় পুরো ফেব্রুয়ারি মাস কালোদের ইতিহাসের মাস (ব্লাক হিস্ট্রি মান্থ) হিসেবে উদযাপন করা হয়। এটি বিশেষ এক অনুষ্ঠান হিসেবে সেখানে পালন করা হয় এবং বিভিন্ন ঘটনাকে স্মরণ করে এই মাসের অন্য দিনগুলোতেও নানা অনুষ্ঠানসূচি পালন করা হয়ে থাকে। বেশ কিছু ব্লগার আফ্রিকা থেকে আসা কৃষ্ণকায় পূর্বপুরুষদের অন্য আরেক দলকে স্মরণ করে তাদের সম্মান জানানোর কিছু প্রকল্প হাতে নিয়েছে এবং এই উৎসবে নতুন তথ্য প্রদান করে তাকে সমৃদ্ধ করছে।

অ্যান্থনি ওটেরো একজন পুর্য়োটো রিকো ও ইকুয়ডরিয় ব্লগার, যিনি সিয়ারাকিউজ বিশ্ববিদ্যালয়ে কাজ করেন। তিনি তার ব্লগ ইনসাইড মাই হেডলিখেছেন:

এই মাসের দিকে তাকানোর ক্ষেত্রে আমি সময় নিচ্ছি, সাধারণত আমরা আফ্রিকান-আমেরিকানদের দিকে মনোযোগ প্রদান করি। তবে আমি দেখতে চাই যে, এই ইতিহাস আবিষ্কারের ক্ষেত্রে আমরা আফ্রো-ল্যাটিনো বা ল্যাটিন আমেরিকার যারা কৃষ্ণাঙ্গ মানুষ তাদের দিকে মনোযোগ দিচ্ছি।

আফ্রো-ল্যাটিনো বা আফ্রো-ল্যাটিন আমেরিকান পদটি দক্ষিণ আমেরিকার সেই সমস্ত নাগরিকদের কথা উল্লেখ করে যাদের পূর্বপুরুষ আফ্রিকা থেকে এসেছে। এই অঞ্চলে এদের সংখ্যা প্রায় ১০ থেকে ১৫ কোটি। আমেরিকার বিভিন্ন দেশে আফ্রো ল্যাটিনোর সংখ্যা কত তা এখানে দেখুন। আরেকটি নাম আফ্রো-ল্যাটিনোরা নিজেরাই নিজেদের ক্ষেত্রে ব্যবহার করে থাকে, তা হল ল্যাটিনিগ্রো/গ্রা। স্প্যানিশ ভাষায় নিগ্রো মানে কালো।

ব্লগার বিয়াঙ্কা লুয়ারেয়ানোঅধ্যাপক. সুসুরোর সাথে মিলে অটেরো ল্যাটিনেগার@ টামব্লার ব্লগ চালু করেছেন। এর লক্ষ্য:

আমাদের অনেকের লক্ষ্য কালো মানুষদের ইতিহাসের মাসকে আরো নিবিড়ভাবে সম্প্রসারণ করা, নিজেদের ল্যাটিনেগ@স, আফ্রো ল্যাটিনো এবং আফ্রো ক্যারিবিয় হিসেবে আবিষ্কার করা। যে সমস্ত লোক নিজেদের আফ্রিকার ঐতিহ্য এবং ইতিহাসের মধ্যে আবিষ্কার করে, সেই আমরা প্রায়শ:ই যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে অন্তর্ভুক্ত হয়ে পড়ি, সেটি কালোদের ইতিহাস বা ল্যাটিনোদের ইতিহাস যেটাই হোক না কেন (১৫ সেপ্টম্বর-১৫অক্টোবর), ল্যাটিনিগরো@সদের সম্মান ও তাদের চিহ্নিতকরণের জন্য এ বছর নিগ্রো ও ল্যাটিনো ইতিহাসের মাসে আমাদের সাথে যোগ দিন। আমরা কালো, ল্যাটিনো এবং আমরা ক্যারিবিয় এলাকা থেকে আসা। আমরা তাদের প্রতিনিধিত্ব করি!

এছাড়াও লুয়ারেয়ানো বর্ণনা করছে ভিভির ল্যাটিনো ব্লগে কি ভাবে এই প্রকল্প জীবন্ত হয়ে উঠল:

এর শুরু এ ভাবে, আমি ল্যাটিনিগরো@সের কয়েকজনের তালিকা পোস্ট করি যা ২০১০ সালের জন্য করা হয়েছিল। আমি লেখক এবং কবি অ্যান্থনির সাথে কথা বলা শুরু করি, কেন আমাদের অনেকে আমাদের ইতিহাস ও কি ভাবে আমরা সেখান থেকে মুছে গেলাম সে সম্বন্ধে জানে না। তারা জানে না আমাদের পরিচয় এবং প্রতিনিধিত্বের কতটা প্রয়োজন। আমরা সিদ্ধান্ত নিলাম, আমরা ভার্চুয়াল বা নেটে এক প্রকল্প তৈরি করবো যা হবে অনলাইনে আমাদের নিজস্ব এলাকা। একই সাথে এই সম্প্রদায়ের আলোচনা, যুক্ততা ও জ্ঞানকাণ্ড তৈরির জন্য আমরা একটা জায়গা তৈরি করবো।

স্কোমবার্গের ছবি, উইকিমিডিয়া কমন্সের অধীনে তা ব্যবহার করা হয়েছে।

স্কোমবার্গের ছবি, উইকিমিডিয়া কমন্সের অধীনে তা ব্যবহার করা হয়েছে।

ভদ্রমহিলা ইতোমধ্যে কয়েকজন আফ্রো-ল্যাটিনোর তালিকা তৈরি করেছেন ২০১০ সালে যারা অনেকের মনোযোগ আকর্ষণ করবে এবং এফরেইন অর্টিজ. জুনিয়রের মত ব্লগার গুরুত্বপূর্ণ কিছু আফ্রো-ল্যাটিনোদের নিজেদের দেশের নাম সহ তালিকা তৈরি করেছে। যেমন উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, অর্টিজ লিখেছেন অর্টুরো আলফান্সো স্কোমবার্গ সম্বন্ধে, তিনি পুর্য়োটো রিকোর এক ইতিহাসবিদ, লেখক এবং অ্যাক্টিভিস্ট, যিনি অন্য আফ্রো-ল্যাটিনোদের উপর গবেষণা করেছেন, যার মধ্যে রয়েছে ১৯ শতক ও ২০ শতকের শুরুতে আফ্রো-ল্যাটিনোদের অবদান বিষয়ক গবেষণা।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .