বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

রুশ সরকারের হয়ে প্রচারণা চালানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ব্লগারকে প্রস্তাব প্রদান

Image edited by Kevin Rothrock.

ছবি সম্পাদনা কেভিন রথরক-এর।

যুক্তরাষ্ট্রের এক ব্লগার গত সপ্তাহে, সারা জীবনের জন্য এক সুযোগ ঠেলে সরিয়ে দিয়েছেনঃ কিছু না করেও টাকা পেতে থাকার সুযোগ। এই প্রস্তাবের খানিকটা অংশ হচ্ছে এই যে, সে অন্যের লেখা নিজের নামে নিজস্ব ব্লগে ছাপাবে এবং দাবী করবে এটা তার নিজের লেখা–এটা খুব একটা বড় বিষয় নয়, তাই না।

ব্লগার ডেভিড সোয়ানসন প্রদত্ত সংবাদ অনুসারে ২০ মার্চ তারিখে ওয়াশিংটন ডিসিতে প্রদান করা এক যুদ্ধ বিরোধী ভাষণের পর, নিজেকে আলেক্সি. জি. প্যাডালকো নামে পরিচয় দেওয়া, ভারী রুশ উচ্চারণে কথা বলা এক তরুণ তার দিকে এগিয়ে আসে। তার কাছে ছিল সোয়ানসনের লেখা একটি বই, সে এসে তার কাছে স্বাক্ষর চায়, এরপর তাকে এক কাপ কফি খাওয়াতে চায়, যাতে কফি খেতে খেতে “ শান্তি অর্জনের জন্য” এক সাথে কাজ করার সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা করা যায়।

সোয়ানসন এবং প্যাডালকো পরের দিন একত্রিত হয় এবং প্যাডালকো ইউক্রেনের পরিস্থিতি নিয়ে ইতোমধ্যে লেখে ফেলা প্রবন্ধ নিজের নামে ছাপানোর বিপরীতে সোয়ানসনকে একটি নির্দিষ্ট অংকের অর্থ গ্রহণের প্রস্তাব দেয়।

প্যাডেলকো দাবি করে যে শান্তির জন্য তার ব্যক্তিগত আগ্রহ এবং নিজের কর্মচারীদের কাছে বিষয়টি গোপন রাখার জন্য সে এই কাজটি করছে। সে বলে, তাকে ইমেইল করলে ভাল হয়, তবে সে এই প্রবন্ধগুলো নিজ হাতে সোয়ানসনকে দিতে চায়।

সোয়ানসনের কাছে প্রাপ্ত তথ্য এবং উপাত্তের সূত্র জানাতে প্যাডালকো অস্বীকার করে। এদিকে সোয়ানসন বলেছে যে সে এই প্রস্তাব প্রত্যাখান করেছে।

আমি তাকে বললাম যে আমি যা বিবেচনা করি তা হচ্ছে পরিপূর্ণ সাংবাদিকতা পূর্ণ আচরণ এবং যেহেতু আমি একজন ব্লগার তাই আমার এই সাংবাদিকতার প্রসঙ্গ টেনে আনায় সে বিস্ময় এবং উদ্বেগ প্রকাশ করল। দৃশ্যত একজন ব্লগার হচ্ছে এমন একজন যাকে আপনি প্রচারণার বিষয়টি গেলাতে পারবেন, অন্যদিকে একজন সাংবাদিক হচ্ছে এমন একজন যে আপনাকে ইচ্ছাকৃত ভাবে ঝামেলায় ফেলে দেবে। আমি তাকে বলার চেষ্টা করলাম যে আদতে আমি ইউক্রেন ও যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক সম্বন্ধে যে সকল তথ্য সে বিষয়ে যোগাযোগে আগ্রহী এবং আর আমি মনে করি এ কাজটি করার মাধ্যমে রাষ্ট্র হিসেবে রাশিয়া ও শান্তি অর্জন; দুটোই লাভবান হবে।

সোয়ানসনের ব্লগের সংবাদ অনুসারে, কফি শপে তাদের সাক্ষাতের পর উভয়ের মাঝে বিস্তারিত ইমেইল বিনিময় হয়, যদিও প্যাডালকো পরে উত্তর প্রদান বন্ধ করে দেয়।

পরিহাসক্রমে, সোয়ানসন এবং তার ব্লগ মূলত রুশ-পন্থী দৃষ্টিভঙ্গিকে সমর্থন করত, দৃশ্যত সোয়ানসনের জন্য এই ঘটনা দ্বিগুণ হতাশাজনক (ধারণা করা হচ্ছে এই কারণে প্যাডালকো প্রথম থেকে সোয়ানসনকে এই প্রস্তাব দিতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেছে]। সোয়ানসন তার এক সাম্প্রতিক পোস্টে কিয়েভে পরিবর্তিত সরকারকে “যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত এক সহিংস অভ্যুথান”, “বিদেশীদের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত এক সরকার হিসেবে অভিহিত করেছে” এবং বলেছে যে সে এবং অন্যেরা “ভিত্তিহীন ভাবে রাশিয়ার আচরণের ক্ষেত্রে এক চরিত্র আরোপ করা, যা তোমাদের [রাশিয়ার] অগ্রাসী মনোভাবের ব্যাপারে এক মিথ্যাচার মাঝে লুকিয়ে আছে”। কিন্তু সোয়ানসন এই বিষয়ে অনড় যে “অগ্রাসী আচরণের” মধ্যে দিয়ে রাশিয়ার উচিত নয় মস্কোর “আগ্রাসন” সমন্ধে যে সকল মিথ্যাচার সেগুলো “দূর করা”।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .