বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ছবিঃ কমোরোস, মাদাগাস্কার এবং ম্যাসকারেন দ্বীপপূঞ্জের মানুষ

“দি হিউম্যানস অফ_____” ( এলাকার মানুষেরা) নামক বিষয়টি সারা বিশ্বের বিভিন্ন স্থান থেকে সংগৃহীত রাস্তার সাধারণ মানুষের ছবি এবং সংগৃহীত সাক্ষাৎকার ফেইসবুকে প্রদর্শন সংক্রান্ত প্রকল্পের ধারণা। চিত্রগ্রাহক ব্রান্ডন স্টানটোন-এর বহুল প্রচারিত হিউম্যানস অফ নিউইয়র্ক এর সাফল্য থেকে এই ধারনাটি জনপ্রিয় হয়েছে। এই চিন্তাটি বিশ্বে শত শত একই ধরনের প্রকল্পের জন্ম দিয়েছে, যার বিস্তৃতি ল্যাটিন আমেরিকা হতে দক্ষিণ এশিয়া থেকে মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকা পর্যন্ত।

যদিও ভারত মহাসাগরে অবস্থিত আফ্রিকা মহাদেশের দ্বীপ মাদাগাস্কারের নিজস্ব হিউম্যানস অফ প্রকল্প রয়েছে, তারপরেও বিষয়টি তার নিকটবর্তী স্থান ম্যাসকারেন দ্বীপপূঞ্জে এখনো শুরু হয়নি, যে এলাকাটি এর পশ্চিমে অথবা কমোরো দ্বীপপুঞ্জের উত্তরপশ্চিমে অবস্থিত। আমরা আশা করি যে এই অঞ্চলের অনেক প্রতিভাবান ফটোগ্রাফার এই চ্যালেঞ্জটি গ্রহণ করবে। আর বিষয়টি শুরু করার জন্য এখানে কমোরো, মাদাগাস্কার, মরিশাস এবং রিইউনিয়নের কিছু ছবি তুলে ধরা হল।

হিউম্যানস অফ কমোরোস:

নিচের ছবিটি তুলেছে গ্রান্ড কমোরোর (নাগাজিদিজা) রাজধানী মোরানির ডেভিড স্ট্যানলি। এই ছবিতে এক তরুণীকে পানির পাত্র বয়ে নিয়ে যেতে দেখা যাচ্ছে। কমোরো দ্বীপের অনেক স্থানে সুপেয় পানি পাওয়ার জন্য অনেক কষ্ট করতে হয়।

Children collecting water from public taps in Moroni, Grande Comore, Union of the Comoros by David Stanley CC License -BY-2.0

ইউনিয়ন অফ দি কমোরো এলাকার গ্রান্ড কমোরোর রাজধানী মোরানিতে সাধারণের জন্য তৈরী এক পানির নল থেকে শিশুরা পানি সংগ্রহ করছে। ছবি ডেভিড স্ট্যানলীর। সিসি লাইসেন্স বাই -২.০।

হিউম্যানস অফ মাদাগাস্কার।

জোয়ি আইয়ুব গ্লোবাল ভয়েসেস এর এক স্বেচ্ছাসেবক লেখক, যিনি সম্প্রতি হিউম্যান অফ মিডিল ইস্ট এন্ড নর্থ আফ্রিকা নামে এক ছবি-মালা পোস্ট করেছেন, তিনি ফেসবুকে হিউম্যান অফ মাদাগাস্কার নামের একটি পাতা তৈরীতে সাহায্য করেন। এরপর তিনি এই প্রকল্পটি লালাহ আরিনিয়ানের হাতে হস্তান্তর করেন, মাদাগাস্কারে বাস করা লালাহ নিজেও গ্লোবাল ভয়েসেস -এর একজন স্বেচ্ছাসেবক লেখক/অনুবাদক। এখানে হিউম্যানস অফ মাদাগাস্কারের ফেসবুক পাতার সাম্প্রতিকতম পোস্ট তুলে ধরা হল:

"Tarika Mainty"a band created by kids playing drums and dancing in the streets of the Capital City by Lalah Ariniaina with her permission

“তারিকা মাইনটি” একটি ব্যান্ড, যা রাজধানী শহরের রাস্তার ড্রামবাদক এবং নাচিয়েদের নিয়ে তৈরী। ছবি লালাহ আরিনিয়ানার, অনুমতিক্রমে ব্যবহৃত।

ব্লগ পোস্টের সাথে লালাহ জীবিকার জন্য ব্যান্ড তৈরী করা তিনজন শিশুর জীবন সম্বন্ধে আরো বিস্তারিত তুলে ধরেছে [ফরাসী ভাষায়]:

j’ai fait la connaissance de trois garçons d’une dizaine d’années du groupe « Mainty » (Noir). Fabrice est à la batterie, Christian fait du bruit avec une corne (comme celle qu’on utilise pendant les fêtes d’anniversaire) et Cédric danse. Ils offrent des petits spectacles de rue en faisant le tour des quartiers du centre-ville.

আমি তিনজন বালকের দেখা পেলাম যাদের সবার বয়স ১০ বছর। তারা একটি ব্যান্ড দল তৈরী করেছে যার নাম “মাইনটি” (মালাগাছি ভাষায় যার মানে হচ্ছে কালো)। এর ড্রামবাদক হচ্ছে ফেব্রিসে, আর ক্রিশ্চিয়ান নিজের তৈরী হর্ন (ভেঁপু, যেমনটা জন্মদিনের অনুষ্ঠানে বাজানো) হয়, আর সেড্রিক বাজনার তালে তালে নাচে। তারা আনতানানারিভার উপশহর প্রদক্ষিণ করে ছোট ছোট অনুষ্ঠান প্রদর্শন করে।

হিউম্যানস অফ মরিশাস

এখনো হিউম্যানস অফ মরিশাস নামক ব্লগ তৈরী হয়নি, কাজে এই প্রকল্প শুরুর জন্য হিউম্যানস অফ দুবাই পাতা কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছে। এখানে পোর্ট লুইসের একটি প্রচলিত খাবারের দোকানের ছবি তুলে ধরা হয়েছে:

Man in front of grocery store in Port Louis via Humans of Dubai with permission

হিউম্যানস অফ দুবাই-এর মাধ্যমে পাওয়া ও তার অনুমতিক্রমে ছাপানো পোর্ট লুইসের এক নিত্য পণ্যের দোকানের সামনে দাঁড়ানো মানুষের ছবি।

হিউম্যানস অফ রিইউনিয়ন
এখনো হিউম্যানস অফ রিইউনিয়নের কোন পাতা তৈরী করা হয়নি, কিন্তু এই কাজটি শুরুর জন্য এক চমৎকার স্থান হচ্ছে ইল ডে লা রিইউনিয়ন টুরিজম-এর (আইআরটি) ফেসবুক পাতা। তারা এই দ্বীপের নানান বৈচিত্র্যময় ছবি এখানে সরবরাহ করেছে। এখানে রিইউনিয়নের সেইন্ট ম্যাক্সিমের কয়েকজন শিল্পীর ছবি তুলে ধরা হয়েছেঃ:

Maxime Laope and their kids in Reunion with their permission

রিইউনিয়নের ম্যাক্সিম লোয়াপে এবং তাদের শিশুরা, অনুমতিক্রমে ব্যবহৃত।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .