বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

২০১৩ সালের সেরা চারটি বাজওয়ার্ড যা জাপানীরা বলেই চলেছে

In 2013, Japan had variety of newly introduced phrases and words. Image by Keiko Tanaka

২০১৩ সালে জাপানে বৈচিত্র্যময় নতুন নতুন বাক্য ও শব্দের আগমন ঘটেছে। ছবি কেইকা তানাকার।

এ বছর জাপানে নতুন এবং জনপ্রিয় শব্দের আগমনের মাঝে, কেবল চারটি শব্দ বাকীদের থেকে আলাদা হয়ে ২০১৩ সালের নতুন বাজওয়ার্ড [নতুন গুঞ্জরিত শব্দের] পুরস্কারের সম্মানে সম্মানিত হয়েছে [জাপানি ভাষায়]। এটি এক বার্ষিক সম্মান যা দূরশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান ইউ-ক্যান এবং লিবারেল ন্যাশনাল নামক প্রকাশনা সংস্থা প্রদান করে থাকে।

এটি একটি অভূতপূর্ব ফলাফল, মনোনীত ৫০ টি শব্দের মাঝ থেকে বিজয়ী চারটি শব্দ যৌথভাবে প্রথম স্থান অর্জন করে। আর তারা হচ্ছে:

১. ইমাদেশো!

এর মানে হচ্ছে “এখন কেমন চলছে” ?! হায়াশি ওসামু এই বাক্যটিকে জনপ্রিয় করেছে, যিনি ক্রাম স্কুল নামে পরিচিত ভাষা শিক্ষার বিশেষ স্কুলে আধুনিক জাপানি ভাষা শিক্ষার অধ্যাপক। তিনি স্কুলের এক বিজ্ঞাপনের জন্য এই শব্দটি ব্যবহারের পর তা অত্যন্ত জনপ্রিয়তা লাভ করে, এখানে বলা হচ্ছে যে এই এটি সময় সম্বন্ধে করা, যে সময়ে দর্শকেরা পরীক্ষার জন্য পড়া শুরু করে।

২. ও-মো-তে-না-শি

এটি কেবল জাপানি শব্দ ওমোতেনাশি-কে বানান করে উচ্চারণ করা, যার মানে আতিথিয়তা। এই গুঞ্জরিত শব্দকে জাপানি ভাষার সাথে পরিচয় করিয়ে দেন ক্রিস্টাল তাকাওয়াগা, যিনি একজন সংবাদ উপস্থাপক, তিনি অলিম্পিক আয়োজক-এর রাষ্ট্র হবার চূড়ান্ত সম্মেলনে জাপানের বক্তব্য উপস্থাপনের সময় এই শব্দটি বলেছিলেন। আতিথিয়তা ও উষ্ণ সম্বর্ধনা জাপানি সমাজের শেকড়ে গ্রোথিত।

৩.জেজেজে

এর মানে কি?! কি?! কি?! এই বাক্যটি গণ শব্দকোষে প্রবেশের পেছনে ধন্যবাদ পাওয়ার যোগ্য ২০১৩ সালের ব্যাপক জনপ্রিয়তা পাওয়া টিভি নাটক আমাচান। এই নাটকের প্রধান চরিত্র যে তোহোকুর আঞ্চলিক ভাষায় কথা বলে, উক্ত ভদ্রমহিলা বিস্ময় প্রকাশ করতে এই শব্দটি ব্যবহার করে। নাটকে সে টোকিওর আদর্শ এক সেলিব্রেটি হবার চেষ্টা করে, অবশেষে পূর্ব জাপানের ভয়াবহ ভূমিকম্পের সময় এলাকার পুনর্গঠনের জন্য তোহোকুতে ফিরে আসে।

৪. বাইগেশি

বাইগেশি বাক্যটিও একটি জনপ্রিয় টিভি নাটক থেকে নেওয়া হয়েছে। যার মানে হচ্ছে দুই স্তরে ফেরত প্রদান অথবা প্রতিশোধ, আর এটি হানাজাওয়া নোয়াকি নামক নাটকের প্রধান চরিত্রের বলা অন্যতম এক বাক্য। নোয়াকি হচ্ছেন একজন ব্যাংক কর্মকর্তা যে তার অযৌক্তিক বসের বিরুদ্ধে রুখে অবস্থান নেয়।
সেরা চারটি শব্দের সাথে টেলিভিশনের যোগসূত্র নিয়ে টুইটার ব্যবহারকারী ইউকিহিরো মাতসুমতো মন্তব্য করেছে:

এই বাজওয়ার্ড পুরস্কার- এর ক্ষেত্রে, বাস্তবতা হচ্ছে নির্বাচিত সকল শব্দের সাথে টেলিভিশনের একটা যোগসূত্র রয়েছে যা প্রদর্শন করে টেলিভিশনের প্রভাব বলয় আগের চেয়ে অনেক বেশী।

২ ডিসেম্বর ২০১৩ ঘোষণা করা সেরা দশটি শব্দের তালিকায় অন্য যে সব শব্দ ছিল, তার মধ্যে একটি হচ্ছে “ঘৃণ্য বক্তৃতা” যে শব্দটি ২০১৩ সালে অনেকের মুখে মুখে উচ্চারিত হয়েছে, জাপানে এই বছর কোরিয়া বিরোধী বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। জাপানের বাজারে কোরীয় পণ্যের ক্রমে জনপ্রিয়তা বৃদ্ধির কারণে বিক্ষোভকারীরা ক্ষুদ্ধ, আর এই কারণে তারা ক্রমে আরো আওয়াজ তুলছে।

সেরা দশের মধ্যে অন্য বাক্যের মধ্যে একটি হচ্ছে “পিএম২.৫”, যেটাকে সাধারণ ভাবে বলা হয়ে থাকে অথবা বিশেষ ভাবে পরিবেশগত দূষণ, যা একটি গুঞ্জরিত শব্দে পরিণত হয় প্রতিবেশী চীনের দূষণ জাপানে এসে পড়ার ভয় থেকে। “গোপন নিরাপত্তা আইন” একটি বিতর্কিত আইন, যেটিতে জাতীয় নিরাপত্তা ফাঁসকারী ব্যক্তির জন্য কঠিন শাস্তির বিধান করেছে। আর “এ্যাবেনোমিক্স” একটি স্বল্প দৈর্ঘ্য স্লোগান যা রাষ্ট্রপতি শিনজো আবের অর্থনৈতিক নীতির প্রশাসনের জন্য ব্যবহার করা হয়।

Ascii art used to describe gekiokopunpunmaru, a new buzzword used in 2013 to express one's anger

গেক্কিওকিপুনপুনমারু শব্দটি বর্ণনার জন্য আসিই শিল্প ব্যবহার করা হয়, কোন একজনের ক্ষোভ প্রকাশে ২০১৩ সালে এই বাজওয়ার্ডের ব্যবহার করা শুরু হয়েছে।

নেট বাজওয়ার্ড পুরস্কার

আরেকটি পুরস্কার, যার নাম নেট বাজওয়ার্ড পুরস্কার [জাপানি ভাষায়] , সেটি ২ ডিসেম্বর ২০১৩-এ, প্রকাশিত হয়। যা আরো বেশী আলোচনার সৃষ্টি করে। এই পুরস্কার ইন্টারনেটের জনপ্রিয় শব্দকে তুলে ধরে, তা জাপানি এক সার্চ ইঞ্জিন কোম্পানী দ্বারা বেছে নেওয়া এবং ২চেন নামক এক অনলাইন সংবাদপত্রের ব্যবহারকারীদের দ্বারা নির্ধারিত হয়েছে, যারা তাদের বিবেচনায় বছরের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য বাক্যকে ভোট প্রদান করেছে [জাপানি ভাষায়]।

দি নেট বাজওয়ার্ডও একই সাথে ইমাদেশোহো! কে সেরা পুরস্কারে ভূষিত করেছে, অন্যদিকে বাগাশি এই প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অধিকার করেছে। এতে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেছে গেকিওকোপুনপুনমারু, এটি এমন এক শব্দ যা আলোচিত শব্দের আকারে একটি শিশুসুলভ রাগের চরম প্রকাশকে তুলে ধরে, আর এ কারণে এটিকে ইংরেজি ভাষায় অনুবাদ করা খুব কঠিন।

নেট বাজওয়ার্ড এবং নিউ বাজওয়ার্ড পুরস্কারের মধ্যে মিলের বিষয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে টুইটার ব্যবহারকারী কাতসুরা ইগারিস লিখেছে :

নেট বাজওয়ার্ড এবং নিয়মিত বাজওয়ার্ড পুরস্কার আসলে অনেকটাই এক। ইন্টারনেটকে এক আশ্রয়স্থল হিসেবে বিবেচনার এখানে ইতি ঘটেছে।

লেখিকা এটিকে জাপানী ভাষায় লিখেছে, আর এর অনুবাদ করেছে টাইলর কাজেলা

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .