বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

সমকামী বিয়েকে বৈধতা দিল উরুগুয়ে

সমকামী বিয়েকে বৈধতা দানকারী দ্বিতীয় লাতিন আমেরিকান দেশে পরিণত হয়েছে উরুগুয়ে।

গত ১০ এপ্রিল ২০১৩ তারিখে ব্যাপক আলোচনার পর ৯২ টি ভোটের মধ্যে পক্ষে ৭১ টি ভোট পেয়ে আইন প্রণেতারা কংগ্রেসে এই বিলটি পাস করিয়েছেন। সেখানে বিবাহ কে সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে “একই বা বিপরীত লিঙ্গের দুটি মানুষের মধ্যে স্থায়ী মিলন” হিসেবে। দেশটির সিনেটের উচ্চকক্ষ গত সপ্তাহে প্রস্তাবটির অনুমোদন দিয়েছে।

প্রেসিডেন্ট জোসে মুজিকাকে বিলটির জন্য চাপ দেত্তয়া হয়েছে। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে তিনি সেটিকে আইনে পরিণত করার জন্য স্বাক্ষর করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

উরুগুয়ে এখন সমকামী বিবাহ অনুমোদনে বিশ্বের ১২ তম দেশ এবং ২০১০ সালে আর্জেন্টিনা এটিকে বৈধতা দানের পরে এ অঞ্চলে দ্বিতীয়।

সমর্থকরা বিধানসভা প্রাসাদের ভিতরে এবং বাইরে জড়ো হয়ে তা উদযাপন করেছেন। সাংবাদিক ফাবিয়ান কারডোযো ভোটের পরে উল্লাসিত জনতার একটি ছবি শেয়ার করেছেনঃ

Photo shared by Fabian Cardozo (@facardozo) on Twitter.

টুইটারে ছবিটি শেয়ার করেছেন ফাবিয়ান কারডোজো (@ফাকারডোজো)

ক্ষমতাসীন ব্রড ফ্রন্ট পার্টির অন্তর্ভুক্ত একটি বাম রাজনৈতিক দল দ্যা মুভমেন্ট ফর পপুলার পারটিসিপেশন, ফেসবুকে একটি ছবির অ্যালবাম [স্প্যানিশ] শেয়ার করেছে।

Photo shared by Movimiento de Participación Popular on Facebook.

ছবিটি মভিমেন্টো দে পারটিসিপাসিওন ফেসবুকে শেয়ার করেছে 

স্পেন থেকে পেড্রো জেরেলোর (@পেড্রো_জেরেলো) মতো অন্যান্য দেশের টুইটার ব্যবহারকারীরা এই অভিযানের জন্য উরুগুয়েকে অভিনন্দন এবং ধন্যবাদ জানিয়েছেঃ

Thank you, Uruguay. 12th country to approve equal marriage. Photo shared by @Pedro_Zerolo on Twitter

ধন্যবাদ, উরুগুয়ে। সমকামী বিয়ে বৈধতা দানে ১২ তম দেশ। টুইটারে ছবিটি শেয়ার করেছেন @পেড্রো_জেরোলো। 

এছাড়াও নেটিজেনরা হ্যাশট্যাগ #matrimonioigualitarioUY (উরুগুয়েতে সমান বিবাহ) [স্প্যানিশ ভাষায়] এর অধীনে তাঁদের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।

উরুগুয়ের টুইটার ব্যবহারকারী টোডারো (@টোডারো) [স্প্যানিশ ভাষায়] লিখেছেন:

@t_odora: hoy fue de esos días q hay q festejar sin cuestionarse, la lucha da resultados, el trabajo de hormiga vale la pena #matrimonioigualitarioUY

@টোডারোঃ আজ হচ্ছে সেসব দিনগুলোর মধ্যে একটি দিন যখন আপনি নিজেকে কোন ধরণের প্রশ্ন ছাড়াই উদযাপন করতে পারেন। সংগ্রাম সফল হয়েছে। কঠিন পরিশ্রম কাজে দিয়েছে। #matrimonioigualitarioUY

সঙ্গীতজ্ঞ জার্মান বারনারদজ (@গডফ্যাটার) [স্প্যানিশ ভাষায়] শেয়ার করেছেন:

@GodFatter: A partir de hoy me siento todavía mas orgulloso de ser uruguayo. Uruguay aprueba el #MatrimonioIgualitarioUY Un país cada día mas justo

@গডফ্যাটারঃ আজ থেকে উরুগুয়ান হিসেবে আমি গর্বিত। উরুগুয়ে #MatrimonioIgualitarioUY অনুমোদন দিয়েছে।

ব্যবহারকারী @কোলোওলম্যান [স্প্যানিশ ভাষায়] যোগ করেছেনঃ

@colowolman: La verdad es que ya era hora que el Parlamento hiciera algo que pueda mejorar esta sociedad #matrimonioigualitariouy

@কোলোওলম্যানঃ এটা সত্য যে, সংসদ এই সমাজের উন্নতি করতে পারে এমন কিছু কাজ করল। #matrimonioigualitariouy

অনলাইনে এবং রাস্তায় ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া সত্ত্বেও দেশের সবাই এটি উদযাপন করেনি। এল এসপেকটাডোর রিপোর্ট [স্প্যানিশ ভাষায়] করেছেন যে, উরুগুয়ের ক্যাথলিক চার্চ যুক্তি দিয়েছে, আমাদের সমাজের আইনি ব্যবস্থায় আইনের ‘আরও অবনতি হচ্ছে’। অথচ পরিবারিক প্রতিষ্ঠানের ‘সম্মান ও সুরক্ষা'র উপর ‘তার অস্তিত্ব প্রতিষ্ঠিত’, যেটি ‘আমাদের সমাজে সাংবিধানিক ভিত্তি’।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .