বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

চীন: ‘বৃহৎ সরকার’-এর অধীনে এনজিওদের সংগ্রাম

সুপরিচিত চীনা কেন্দ্রীয় টেলিভিশনের একজন উপস্থাপক ছুই ইয়ঙ্গিউয়ান সম্প্রতি হিউনান প্রদেশের শিক্ষা কর্মকর্তাদের একটি গ্রামীণ শিক্ষক প্রশিক্ষণ প্রকল্পের প্রতি তাদের উদাসীনতা প্রদর্শনের জন্যে তিরস্কার করেছেন [চীনা ভাষায়]। চীনা মাইক্রোব্লগিং ওয়েবসাইট সিনা ওয়েইবোতে ছুই  লিখেছেন যে হিউনান শিক্ষা কর্তৃপক্ষের সরকারি মুখপাত্র বলেছেন [চীনা ভাষায়] যে “[আমরা] গ্রামীণ শিক্ষক প্রকল্পে সমর্থন, বিরোধিতা বা [পরিকল্পনায়] অংশগ্রহণ করি না।”

চুইএর বহুল আলোচিত সেই পোস্ট

বিতর্ক সৃষ্টি করা চুইয়ের ওয়েইবো পোস্টের ছবি।

প্রশিক্ষণের জন্যে হিউনান থেকে শত শত গ্রামীণ শিক্ষকদের নির্বাচনের লক্ষ্যে গৃহীত কর্মসূচীটির অর্থায়ন করেছে ছুই পরিচালিত বেসরকারী দাতব্য প্রতিষ্ঠান। এই ‘তিনটি না’  এর জবাবে ছুই তার নিজের ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন, “নেই কোন প্রচেষ্টা, কোন নীতি, কোন মুখ!” পুরো একাউন্টটি এনডিডেইলিতে [চীনা ভাষায়] পুণঃপ্রকাশিত হয়েছে।

বৃহৎ সরকার

দীর্ঘ সময় ধরে চীনকে একটি “বৃহৎ সরকার’ এবং ‘ ছোট সমাজ’ হিসেবে পরিগণিত করা হয়। তবে অনেক নাগরিক এর পরিবর্তন চান। চীনের বেশিরভাগ বেসরকারী সংস্থা (এনজিও) এবং দাতব্য প্রতিষ্ঠানকে কাজ সমাধা করার জন্যে  পরিবর্তন জমিদারি হিসাবে অনুভূত হয়েছে.  মধ্যে তাদের শুরুতে এবং মাঝে মাঝেই সরকারের সমর্থন নিতে হয়

কিন্তু জনগণ.কম.সিএন-এ [চীনা ভাষায়] প্রকাশিত চীনা দাতব্য প্রতিবেদন ২০১১ অনুসারে ২০১০ সালে ৫৮.৩% ব্যক্তিগত দান সরকার বা সরকার নিয়ন্ত্রিত দাতব্য প্রতিষ্ঠানে ফিরে গিয়েছে এবং এর মাত্র ১.৩% তৃণমূল সামাজিক কল্যাণ্মূলক এনজিওদের কাছে চুইয়ে এসেছে।

ব্যক্তিগত দানের ৫৮.৩ শতাংশ প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে চীনা সরকারের কাছে ফিরে গিয়েছে ২০১০ সালে।

ব্যক্তিগত দানের ৫৮.৩ শতাংশ প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে চীনা সরকারের কাছে ফিরে গিয়েছে ২০১০ সালে। ছবির উৎস ডিজিটাল ঝংগুয়ানকান।

এনজিওগুলো সংগ্রাম করছে

চুইয়ের প্রতিক্রিয়া দ্রুতই সরকার এবং এনজিওদের মধ্যেকার সম্পর্ক বিষয়ে একটি জাতীয় বিতর্কে পর্যবসিত হয়। কেউ কেউ হিউনান কর্তৃপক্ষের নাগরিক প্রচেষ্টা সমর্থন না করার সমালোচনা করেন, আবার অন্যেরা দ্বিমত পোষন করেন চুই ইয়ঙ্গিউয়ানের দৃষ্টিভঙ্গীর সঙ্গে।

এই বিষয়ে হংকং বিশ্ববিদ্যালয়ের চীনা মিডিয়া প্রকল্প অনুবাদ করেছে  চীনা মিডিয়া গবেষক ইয়ান লিশানের মতামত। এছাড়াও ইয়ানের চীনে গ্রামীণ শিক্ষা কর্মসূচী সংগঠিত করার অভিজ্ঞতা রয়েছে। তিনি বিশ্বাস করেন যে শিক্ষা খাত রাষ্ট্র-নিয়ন্ত্রিত হওয়ার কারণে সরকারের সহযোগিতা ছাড়া শিক্ষা-সংক্রান্ত প্রকল্প বাস্তবায়ন করা অসম্ভব [চীনা ভাষায়]:

没有湖南省教育主管部门的同意,也根本不可能进行。如果“越过”省教育厅,直接找“下边的”市县教育部门,“下边的”教育官员会为难;如果没有教育主管部门的同意,极少有校长敢“擅自”同意他的教师进京。什么叫“不反对”?人家免费帮助培训你辖区的教师,你有什么理由反对?说得倒好像他本来有权力反对,现在宽宏大量“不反对”,小崔们应该谢恩似的, 人家做好事,你凭什么“不支持”?

সম্ভবত হিউনান প্রদেশের শিক্ষা কর্তৃপক্ষের সম্মতি ছাড়া সাথে এটা সম্ভব নয়। যদি চুইয়ের কর্মসূচী প্রাদেশিক শিক্ষা কর্তৃপক্ষকে এড়িয়ে সরাসরি কাউন্টিগুলোর কাছে গেলে এসব নিম্নস্তরের কর্মকর্তারা বিপদে পড়বেন। এবং স্থানীয় শিক্ষা কর্তৃপক্ষের সরাসরি অনুমোদন ছাড়া অল্প কয়েকটি স্কুলের অধ্যক্ষ তাদের শিক্ষকদের অংশগ্রহণের জন্যে পাঠাতে সাহস করবে। তারা যখন বলেন যে তারা [হিউনান উপত্যকা শিক্ষা কর্তৃপক্ষ] প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর “বিরোধিতা করেন না” তখন তারা কী বুঝান?  তাদের জনগণের অর্থায়নে নিজ নিজ এলাকার শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর বিরোধিতা করার কী কারণ থাকতে পারে? তারা মনে হয় বলতে চায় যে তাদের এর বিরোধিতা করার অধিকার আছে প্রথমতঃ তাদের সংযমের কারণে (তাদের প্রতি) চুইয়ের কৃতজ্ঞ থাকা উচিৎ। কেউ ভালো একটা কিছু করতে চাইলে কিসের ভিত্তিতে আপনি এটিকে “সমর্থন করবেন না”?

প্রশ্নটি স্বাধীনতার?

চীনা দৈনিক সংবাদপত্ত্রে দক্ষিণের মহানগরে [চীনা ভাষায়], প্রভাবশালী অনুসন্ধানী প্রতিবেদক গুয়ো ইউকুয়ান (郭宇 宽) একটি ভিন্ন মত প্রকাশ করেছেন:

NGO是非政府组织,天然就和政府有一定距离,正是因为政府工作有其自身逻辑,NGO独立的探索才有其特别的意义。特别是乡村教师的培训,如果是教育厅牵头组织的,那一定是官方色彩非常浓厚的,民间的探索完全可以是个性化的。

এনজিওদের আবশ্যিকভাবেই সরকার থেকে দূরত্ব বজায় রাখা উচিৎ। সরকারের তার কর্ম সম্পাদনের নিজস্ব পদ্ধতি আছে যা এনজিওদের স্বাধীনতাকে আরও অর্থপূর্ণ করে তোলে। গ্রামীণ শিক্ষক প্রশিক্ষণের মতো কর্মসূচী সরকারের নেতৃত্বে হলে আমলাতান্ত্রিক এবং ভাসাভাসা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তৃণমূলদের অংশীদারিত্ব খূঁজে বের করা অধিক সহায়ক হতে পারে।

চলিত বিষয়াবলির ভাষ্যকার ওয়েই ইংজি (魏英杰) এনজিওগুলোর একটি স্বতন্ত্র খাতে থাকার উপর জোর দিয়ে গুয়ো’র দৃষ্টিভঙ্গীরই প্রতিধ্বনি তুলেছেন  [চীনা ভাষায়]:

但要搞清楚的是,政府该如何支持民间公益。政府对民间公益活动,自然应持欢迎态度,并提供各种便利。在一些情况下,政府出资购买民间公益组织的社会服务,也不失为弥补政府职能欠缺的一种办法。但是让政府部门发公文,要求下属部门配合民间公益活动,或者直接参与其中,扮演民间公益组织的角色,这肯定不是合理途径。这样做,政府职能与民间公益只会重叠一起,使得民间公益变得面孔暧昧。其结果是,民间公益组织要么变成官方慈善机构,要么沦为政府部门的应声虫。

প্রশ্নটি হলো সরকার কীভাবে এনজিওদের সাহায্য করবে? অবশ্যই (প্রয়োজন) অনুসারে তাদেরকে সরকারের সমর্থন ও সহায়তা করা উচিৎ। বিশেষ কিছু পরিস্থিতিতে এমনকি সরকার তাদের নিজেদের কাজের সম্পূরক হিসেবে এনজিও পরিষেবা জোগাড় করতে পারে। তবে এনজিওদের কাজকর্মে সরকারের সরাসরি জড়িত হওয়া অথবা অধীনস্থ সংস্থাগুলো এনজিওদের সঙ্গে সমন্বয় করার দাবি অযৌক্তিক। এটা সরকার এবং এনজিওদের মধ্যেকার সীমারেখাকে ঝাপসা করে দিয়ে এনজিওগুলোকে সম্পূর্ণভাবে সরকারের উপর নির্ভরশীল করে ফেলবে।

[উল্লেখ্য: থাম্বনেইলটি চুই ইয়ঙ্গিউয়ানের। ছবির উৎস: চীনা মিডিয়া প্রকল্প]

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .