বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ফিলিপাইনসঃ টুইটারে আলোচিত হ্যাপী রিজাল ডে, সমালোচনার মুখে পড়েছে

৩০ ডিসেম্বরে #হ্যাপি রিজাল ডে (সুখী রিজাল দিবস) টুইটারে এক আলোচিত বিষয়ে পরিণত হয়। এই দিবসটি ফিলিপাইনসের জাতীয় বীর ডঃ জোসে রিজাল–এর স্মরণে জাতীয় ছুটির দিন হিসেবে পালন করা হয়। এই বিষয়টিকে ইতিবাচকভাবে দেখার কথা যে অনেকে রিজালকে স্মরণ করছে, আবার অনেকে হ্যাপি রিজাল ডে বা সুখী রিজাল দিবস শব্দটি ব্যবহারের কারণে এর সমালোচনা করেছে, কারণ তার মৃত্যর দিনটিতে তাকে এ ভাবে স্মরণ করা হয়।

ইনডায় কায়লা এই কারণে বেদনার্ত যে কিভাবে ফিলিপাইনের কিছু সামাজিক প্রচারণা ব্যবহারকারী ভুল করে এই দিনটিকে জাতীয় এই বীরের জন্মদিবস মনে করেছে। ভদ্রমহিলা তার হতাশাকে ব্যক্ত করার জন্য তিনি তার টুইটারের টাইম লাইনের খানিকটা অংশ তুলে ধরেছে::

সবচেয়ে খারাপ দিক হচ্ছে, এসব হচ্ছে প্রচলিত ভুল ধারনার কিছু অংশ মাত্র। তাদের টুইট দেখে আমার অজ্ঞান হয়ে যাবার দশা। এটা আমার হৃদয় ভেঙ্গে দিয়েছে। আমি নিশ্চিত যে আপনার এপি/ এইচপি (প্রাথমিক এবং মাধ্যমিক) শিক্ষকেরও একই রকম অনুভূতি হয়েছে। আর আমার যতটা ব্যথ্যা অনুভব করছি, রিজাল তার চেয়ে অনেক বেশী ব্যথ্যা অনুভব করছে। সত্যিকার অর্থে বলতে গেলে, অনেক ফিলিপিনো নাগরিক এই দিনটার প্রকৃত অর্থকে অসম্মানিত করেছে, যা ডঃ জোসেফ পি. রিজালের শহীদ হবার দিন।

ইন বিটুইন কলামস এটিকে এক পরিহাস হিসেবে আবিষ্কার করেছে যে ফিলিপিনো নাগরিকরা হ্যাপি রিজাল ডে নামক দিনটিতে একে অন্যকে শুভেচ্ছা জানায়, যে দিনে কিনা উপনিবেশিক শাসক রিজালকে গুলি করে হত্যা করে।

আমার কাছে, #হ্যাপি রিজাল ডে বলার মানে কেবল টুইটার প্রজন্মের ভাসাভাসা ভাবে ফিলিপাইনসের এই জাতীয় বীরকে স্মরণ করা। তারা এখন আর স্মরণ করতে পারে না যে ৩০ ডিসেম্বর, ১৮৯৬ সালের এই দিনে উপনিবেশিক সেনারা (গুয়ারদিয়া সিভিল) তাকে গুলি করে হত্যা করেছিল।

দেখে মনে হয় ফিলিপিনো নাগরিকরা টুইটার এবং অন্য সব সামাজিক প্রচার মাধ্যম, এই দেশের এই ঐতিহাসিক এই গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাকে স্মরণ করার বিষয়টিকে প্রায় পাল্টে দিয়েছে।

এল লোবো ফিলিপিনো একই আবেগ প্রদর্শন করেছে।

এই ধরনের বেশ কিছু সম্ভাষণ আমাকে বলছে যে তারা এই জাতীয় বীরের বীরত্ব এবং দেশের জন্য তার আত্মত্যাগকে উদযাপন করে। আমি তাদের বলেছি, এটা যদি ঘটনা এই হয়, তাহলে রিজালের জন্মদিনে সম্ভাষণ বিনিময় আরো যথাযথ হওয়া উচিত, যা কিনা ১৯ জুনে পালন করা হয়। আর এ বছর দেশটি এই বীরের ১৫০ তম জন্মদিন উদযাপন করবে।

এদিকে ড্যানিয়েল ডে লা রোজা, জাতীয় বীর রিজালের জন্য উৎসর্গকৃত দিবস ৩০ ডিসেম্বর থেকে পাল্টে সেটিকে তার জন্মতারিখ অনুসারে ১৯ জুনে করার আহ্বান জানাচ্ছে

বেশ, কেউ হয়ত যুক্তি প্রদান করতে পারে যে ৩০ ডিসেম্বর হচ্ছে তার শহীদ হবার দিন, যা বিপ্লবকে আরো বড় এক পরিসর প্রদান করে এবং তার জীবন জুড়ে যে উত্তেজনা ছিল তার সাথে খাপ খেয়ে যায়। আমি মনে করি ১৯ জুন তারিখটিও, এ সব বিষয়কে উপস্থান করে এবং সেই ব্যাক্তির জন্য এটি নিশ্চিত করে যে মহান ফিলিপিনো নিজেকে এক অন্য উচ্চতায় নিয়ে গিয়েছিল। এখানে একটা বাস্তবিক তথ্য উল্লেখ করা হল, ১৯ জুন হচ্ছে ফিলিপাইনের বাৎসরিক স্কুল শুরুর দিন এবং রিজালের জীবন নিয়ে সেদিন শ্রেণীকক্ষে আপনি সব ধরনের কর্মসূচি উপস্থাপন করতে পারেন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .