বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

কলম্বিয়া: নাচুনে পুলিশ ফুটবল খেলোয়াড়দের স্বাগত জানাল

কলম্বিয়ার শহর মেডেলিনে একদল পুলিশ কর্মকর্তা বিমান বন্দরে আগত ফুটবল খেলোয়াড়দের স্বাগত জানায়, এই স্বাগত জানানোর প্রক্রিয়া অতিথিদের ভালো এক ধারণা প্রদান করেছে। অন্যদিকে স্থানীয়রা এই ঘটনায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে চিন্তা ব্যক্ত করেছে।

কলম্বিয়ার মেডেলিন নামক শহরটি এবারের অনুর্ধ-২০ নামক ফুটবল বিশ্বকাপের অন্যতম এক আয়োজক শহর , এবং বৃটিশ ফুটবল সংস্থা (এফ এ) একটি ভিডিও পোস্ট করেছে যা দেখাচ্ছে , কি ভাবে এই শহর ইংল্যান্ডের অনুর্ধ-২০ দলের ফুটবলারদের স্বাগতম জানাচ্ছে, যে পোস্টের শিরোনাম ‘ কলম্বিয়ার এক উন্মাদনা ভরা স্বাগতম ‘।

Screenshot from TheFA video

এফএ-এর ভিডিওর স্ক্রিনশট

ইংল্যান্ডের অনুর্ধ-২০ ফুটবল দলের খেলোয়াড়রা মেডেলিন বিমানবন্দরে নামার সাথে সাথে এক ছন্দ খুঁজে পায়, যখন তারা অবিষ্কার করে যে, কলম্বিয়ার স্থানীয় পুলিশ বাহিনী তাদের এক অভাবনীয় প্রথায় স্বাগত জানাচ্ছে।

মার্ক্সইপুনেক্স, যে কিনা মেডেলিনে বাস করে [স্প্যানিশ ভাষায়], পুলিশ যে কাজে গুরুত্ব প্রদান করেছে তার সাথে সে একমত নয়:

Y justo ayer leía que no se podían disponer de algunos policías en el Centro de Medellín donde se han incrementado los robos. Es que los pocias están súper ocupados haciendo labores de “CRAZY” comité de bienvenida.

কেবল গতকাল আমি পাঠ করলাম যে মেডেলিনের উপকণ্ঠে বাড়তি পুলিশ মজুত ছিল না, যেখানে ইদানিং ডাকাতির ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে। কারণ পুলিশ এখন এই উন্মাদনা ভরা স্বাগত জানানোর কমিটিতে, তাদের কাজের প্রক্রিয়া নিয়ে ভয়াবহ ব্যস্ত ছিল।

এছাড়াও আর্জেন্টিনা থেকে বিশ্বকাপের সংবাদ সংগ্রহ করতে আসা অতিথিরা স্বাগত জানানোর প্রথায় মুগ্ধ। আর্জেন্টিনার ফুটবল দলের জন্য তৈরি করা ব্লগ ব্যানফিল্ড লোকুরা [স্প্যানিশ ভাষায়]-তে তারা লিখেছে:

Fue impactante el recibimiento que tuvo el seleccionado argentino. Tanto en Bogota, primera escala, como en esta ciudad punto de concentración para los partidos de la fase clasificatoria. Danzas típicas, conjuntos lugareños, salsa, música tropical, y otros tantos ritmos más. Lo curioso, que aquí la coreografía de las mujeres eran formadas y realizadas por integrantes de la fuerza pública. Tímidamente, casi a los empujones, con un tanto de vergüenza y pudor los muchachos no pudieron negarse y ensayaron algunos pases de baile.

Es que aquí se vive y respira fútbol a cada paso, en cada rincón de esta cálida tierra colombiana. Conocen a todos, saben a la perfección “la historia” de cada uno. Los aeropuertos desbordaron cordialidad, amabilidad y porque no admiración.

আর্জেন্টিনার ফুটবল দলকে যে ভাবে স্বাগত জানানো হয়ছে তা ছিল বেশ চিত্তাকর্ষক। বোগোটা, যেখানে আর্জেন্টিনার ফুটবল দল প্রথমে এসে উপস্থিত হয়, সেই একই শহর তাদের প্রাথমিক পর্বের খেলাগুলো অনুষ্ঠিত হবে। এখানে তাদের ঐতিহ্যবাহী নাচ, আঞ্চলিক গানের দল, সালসা, ক্রান্তীয় এবং এ ধরনের বেশ কিছু ছন্দের মাধ্যমে স্বাগত জানানো হয়। এখানে কৌতূহল জনক বিষয় হচ্ছে এই নাচের মুদ্রা (কোরিওগ্রাফি) তৈরি করেছে মহিলা পুলিশের দল। ভীরু ভীরু পায়, প্রায় জোর করে তাদের এই নাচের আসরে যোগ দেবার আহ্বান তারা অস্বীকার করতে পারেনি এবং লাজুক ভাবে তারা কিছু নাচের ছন্দ তোলার চেষ্টা করে।

এই সব ঘটনা এখানে ঘটছে, কারণ এখানে ফুটবল জীবন এবং শ্বাস প্রশ্বাসের সাথে মিশে আছে, কলম্বিয়ার এই উষ্ণ ভুমির প্রতিটি কোনায় ফুটবল বাস করে। তারা একে অন্যের “ইতিহাসকে” নিখুঁত করার প্রক্রিয়া সম্বন্ধে জানে। বিমানবন্দর ছিল উষ্ণতা, আর্দ্রতায় ভরা এবং কেন তা থাকবে না, আর এই ঘটনায় তাদের প্রতি তৈরি হয়েছে এক শ্রদ্ধাবোধ।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .