বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মেক্সিকোঃ গোলাগুলি চলার সময় শিক্ষিকা ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে গান গেয়েছে

ইউটিউবের এই ভিডিওটি প্রদর্শন করছে যে মেক্সিকোর মন্টেরে নামক এক এলাকার স্কুল শিক্ষিকা স্কুলের আশেপাশে চলা গোলাগুলির সময় গান গেয়ে তার ছাত্রছাত্রীদের শান্ত রেখেছিল। এই ভিডিটি অতি দ্রুত স্প্যানিশভাষী দেশ সমূহে ছড়িয়ে পড়ে।

এই ভিডিওটি শিক্ষিকা তার মোবাইল ফোনের ক্যামেরার মাধ্যমে ধারণ করেছিল। এতে দেখা যাচ্ছে একটা ক্লাশরুম ভর্তি শিশু মেঝের উপর শুয়ে আছে। যখন ভিডিওতে গোলাগুলির শব্দ শোনা যাচ্ছিল তখন তার পাশাপাশি শিক্ষিকার কণ্ঠস্বর শোনা যাচ্ছিল যে শান্তভাবে তার ছাত্রছাত্রীদের মেঝের উপর মাথা দিয়ে রাখতে বলছিল। সে তার ছাত্রছাত্রীদের নিশ্চিত করে যে সবকিছু ঠিক আছে এবং তারা এই ক্লাশের ভেতর নিরাপদে আছে। সে বার বার তার ছাত্রছাত্রীদের স্মরণ করিয়ে দেয় তারা যেন তাদের মাখা নিচু করে থাকে। এই ঘটনা থেকে তাদের মনোযোগ সরিয়ে দেবার জন্য সে তার ছত্রছাত্রীদের সাথে গান গাইতে শুরু করে। এর জন্য স্প্যানিশ ভাষায় বার্নি শ থেকে রেইন ড্রপ বা বৃষ্টির ফোটা নামক গানটি গাইতে শুরু করে। এই গানের কথা গুলো হল এ রকম, যদি বৃষ্টির ফোটা চকলেটের তৈরি হত এবং যদি সেগুলোকে ধরার জন্য সবাই মুখ খুলে হা করে থাকত তাহলে কতই না মজার হত। ছেলেমেয়েদের দিয়ে এই গান গাওয়ানোর মধ্যে দিয়ে সে কেবল তাদের শান্ত রাখতে সমর্থ হয়নি, একই সাথে মেঝের উপর তাদের মাথা নিচু করে রাখতে সমর্থ হয়। সে সময় শিক্ষিকা দ্রুত মেঝেতে শুয়ে পড়তে এবং মুখ খোলা রেখে আকাশের দিকে তাকিয়ে রাখতে সমর্থ হয়।

স্থানীয় প্রচার মাধ্যম স্কুলটিকে সনাক্ত করতে সক্ষম হয়েছে। এই স্কুলটি কলোনিয়া নুয়েভা এস্টানজুয়েলা নামক স্থানে অবস্থিত। সাতটি গাড়ি নিয়ে এক নিজস্ব ট্যাক্সি স্ট্যান্ডে এসে যে সশস্ত্র দল পাঁচজন ব্যক্তিকে খুন করে স্কুলটি সেই এলাকা থেকে মাত্র কয়েক মিটার দুরে অবস্থিত। যে শিক্ষিকা এক কাজটি করেন তার পরিচয় এখনো অজানা, তবে তাকে একজন বীর হিসেবে অভিহিত করা হচ্ছে এবং প্রচার মাধ্যম এবং দর্শকরা তার এই সাহসিকতা, চারিত্রিক দৃঢ়তা ও শব্দের প্রতি ভালোবাসার মূল্যায়ন করছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .