বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

চীনঃ সময় হয়েছে ব্যক্তিগত গোপনীয়তার উপর হস্তক্ষেপের ব্যাপারে নতুন এক আলোচনার

প্রাইভেসি ইন্টারন্যাশনাল-এর সূত্রানুযায়ী জনতার উপর নজরদারির ক্ষেত্রে যে তালিকা তাতে সবার উপরে রয়েছে চীন, যার পরে রয়েছে মালয়েশিয়া, রাশিয়া, সিঙ্গাপুর, যুক্তরাজ্য এবং তাইওয়ান, থাইল্যান্ড এবং যুক্তরাজ্য। কবি এবং যুক্তরাষ্ট্রের নেভাল একাডেমির অধ্যাপিকা রুই শান তার ফিনিক্স ব্লগে পোস্ট করা লেখায়, শৈশবের স্মৃতি রোমন্থন করা এক ব্যক্তি হিসাবে, শৈশবে নানাভাবে গোপনীয়তার অভাবের কথা উল্লেখ করে জিজ্ঞেস করেছেন: এখন আমাদের জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত নজরদারির মধ্যে রয়েছে, সেখানে কি এখন ব্যক্তিগত গোপনীয়তার উপর হস্তক্ষেপ নিয়ে আলোচনার সময় হয়ে গেছে, নয় কি, যখন কি না তা বিমানবন্দরের নিরাপত্তা যাচাই কক্ষে সীমার বাইরে চলে যায়?

前些天晚上看新闻。一段新闻报道说,美国的各大商店都有专门的摄像机查看每一个顾客,其目的并不是监视他们是否偷东西,而是调查研究他们买东西的习惯。一个商店的女经理用画面解释:“你看,那个顾客,在这个架子前站了十分钟了,这说明他需要帮助。我会派一个售货员去帮助他。摄像机帮助我们提高销售。”记者问:“可是这些摄像机也有别的功能,对不对?”女经理笑着:“那是另外一个问题。”

একদিন আমি সংবাদ দেখছিলাম। এক সংবাদে জানা গেল যে এখন আমেরিকার সকল প্রধান দোকানে প্রতিটি গ্রাহকের উপর নজরদারি করার জন্য ক্যামেরা বসানো হয়েছে। নজরদারির এই উদ্দেশ্য, দোকান থেকে জিনিস চুরি করা ব্যক্তিদের ধরা নয়, তার বদলে ক্রেতার ক্রয় আচরণ লক্ষ্য করা। একটি দোকানের ম্যানেজার ব্যাখ্যা করছে পর্দায় কি দেখা যায়। “এই ক্রেতার দিকে লক্ষ্য করুন, সে এই তাকের পাশে দশ মিনিট ধরে দাঁড়িয়ে রয়েছে, পরিষ্কারভাবে তার সাহায্যের প্রয়োজন। এই ভিডিও ক্যামেরা আমাদের বিক্রয় বাড়াতে সাহায্য করেছে। এখনই আমি সেখানে একজনকে পাঠাব। সাংবাদিক তাকে প্রশ্ন করেছিল, এই সমস্ত ভিডিও ক্যামেরার অন্য উদ্দেশ্যও পুরণ করে, নয় কি? ম্যানেজার হেসে বললেন: ঠিক, তবে এটা আসলে অন্য একটা প্রশ্ন”

新闻播出后,就是几个人的讨论。大家都对各处的摄像机感到不满,可是这种不满已经很多年了,摄像机是越来越多,而不是越来越少。我们没有隐私,我们就是在家里做爱,天上的卫星也能看见我们。是的,过去是共产主义时代,我们不能在家里没结婚就做爱,不能在家里反党,因为隔墙有耳,会有人报告到街道居民委员会去说我们没有做爱证书或是反革命分子。

এই সংবাদটি কয়েকজন লোকের মধ্যে এক বির্তকের বিষয় ছিল। তাদের কেউ ভিডিও ক্যামেরার এতটা ব্যাপক পরিসরে জায়গা নেওয়াকে পছন্দ করেনি. এবং তারা অনেক বছর ধরে এই ভাবে বিষয়টি অনুভব করে আসছে; যদি এর মাঝে পরিমাণ কমে আসার বদলে বেশ কিছু ভিডিও ক্যামেরার আবিষ্কার হয়েছে। এখন আমাদের আর নিজস্ব কোন গোপনীয়তা নেই, যখন আমরা আমাদের ঘরে মিলিত হই, তখন ভূউপগ্রহ কেন্দ্র আমাদের দেখতে পারে, যেন আনে কেটা অতীত দিনের কমিউনিস্ট শাসনের মত, যখন আমরা বিয়ে না করে, নিজেদের ঘরে মিলিত হতে পারতাম না, ঘরের ভেতরেও আমরা দলের বিরোধীতা করতে পারতাম না। কারণ দেওয়ালের কান ছিল এবং কেউ হয়ত স্থানীয় প্রশাসকের কাছে আমাদের বিরুদ্ধে লাইসেন্স ছাড়া যৌন মিলনের অভিযোগ করে দিতে পারত, অথবা নিয়ম লঙ্ঘনের অভিযোগ করতে পারত।

হুয়াং শুহাই থেকে ৭০ এর দশকে প্রকাশিত হবার পরিবেশ তৈরির সময় আসার পর এবং এরপর যে ধরনের প্রকাশের দেখা পাওয়া যাচ্ছে, তাতে আমরা আজকের দিন নিয়ে উদ্বিগ্ন:

现在我们大概不必需要揭发了,因为我们生活在一个时刻被监视的时代。摄像机冷冷的眼睛时刻盯着我们,观察着我们的一举一动。在新科技的引领下,我们走向一个时刻暴露的新纪元。基于对这个伟大时代的恐惧,我至今还没敢上Facebook,也不打算上去。刚刚阅读的文章说,facebook 的信息被卖给广告公司,我的生活虽然没有什么秘密,但是我对自己的信息被买卖感到不自在。基于这些原因,我不上新浪留言,不上搜狐留言,不上微博发言,不上很多网站。

যখন আমরা ক্রমাগত নজরদারির মধ্যে রয়েছি, তখন আমাদের আর প্রকাশিত হবার দরকার নেই। তাদের শীতল চোখ দিয়ে, ক্যামেরা সার্বক্ষণিকভাবে আমাদের উপর স্থির হয়ে রয়েছে, আমাদের প্রতিটি পদক্ষেপকে দেখছে। নতুন প্রযুক্তির মাধমে পরিচালিত হয়ে আমরা এক নতুন যুগে প্রবেশ করেছি, যেখানে প্রতিটি মুর্হূতে উন্মোচিত। এই অসাধারণ সময়ে শঙ্কিত না হয়ে , এমনকি আমি ফেসবুকে প্রবেশ করার সাহস অর্জন করতে পারি না এবং সেখানে প্রবেশ করার আমার কোন ইচ্ছাও নেই। এ ব্যাপারে একটা প্রবন্ধ পাঠ করেছি যে, কি ভাবে ফেসবুক তার তথ্য বিজ্ঞাপনী সংস্থার কাছে বিক্রি করে দেয়, যেখানে আমার জীবনের কোন গোপনীয়তা আর গোপন নেই, আমি এখন, আমার সম্বন্ধে তথ্য কেনা বেচার ব্যাপারে অস্বস্তি বোধ করি। এ কারণে সিনা বা সোহুতে কোন মন্তব্য করি না। কেন আমি মাইক্রোব্লগ লিখি না এবং এটাই হচ্ছে কারণ, কেন আমি অনেক ওয়েব সাইটে প্রবেশ করি না।

其实我知道自己的做法只是一种自我欺骗,因为摄像机已经无所不在。这些天美国的媒体在争论飞机场安检问题。一些人对飞机场的能看到人体的安检措施不满,认为是侵害了他们的隐私。我看新闻中的争论,想,这些人是糊涂还是愚蠢?如果你在家上网,买东西,你的信息已经被暴露了。你的身体还有什么隐私?走过X光机,你担心你的隐私会被暴露?你的隐私无非是你身体的形状你的什么器官的样子,whocares about that? 你的真正的隐私不在这里,而在电脑里,而在你走的大街上,而在你去的每一个地方。你天天上什么网?你的电脑里有记录,有人在做这个调查。你去商店买什么东西?有统计数字分析你的习惯。你跟什么人在一起玩?有摄像机在看着你。生活在时刻被监视的时代,难道我们还有隐私可谈吗?

বাস্তবতা হচ্ছে এই সব কাজের মাধ্যমে আমি আসলে আমাকে বিভ্রান্ত করছি, কারণ ইতোমধ্যে সব জায়গায় ভিডিও ক্যামেরা ছড়িয়ে পড়েছে। সম্প্রতি আমেরিকার প্রচার মাধ্যম বিমান বন্দরের নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করছে। অনেক লোক বিমান বন্দরে এ রকম নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণের বিরুদ্ধে, যা নাগরিকদের শরীরের বিভিন্ন অংশ প্রদর্শন করে, যার ফলে তাদের গোপনীয়তায় নষ্ট হচ্ছে এমন এক অনুভূতির জন্ম দেয়। সংবাদ মাধ্যমে এই বিষয়ে অনুষ্ঠিত বিতর্কগুলো দেখে আমি ভাবছি, এই লোকগুলো কি বিভ্রান্ত নাকি নিছকই বোকা?

যদি আপনার ঘরে ইন্টারনেট থাকে, যদি আপনি কখনো অনলাইনের মাধ্যমে কিছু কিনেন, তাহলে ইতোমধ্যে আপনার সম্বন্ধে প্রাপ্ত তথ্য প্রকাশ হয়ে পড়েছে। কাজেই একজন ব্যক্তির গোপনীয়তার কতটা অবশিষ্ট রয়েছে বলে আপনি মনে করেন? আপনি আপনার গোপনীয়তার উপর হামলা হবার ভয়ে উদ্বিগ্ন? আপনার গোপনীয়তা আপনার শরীর বা আপনার গোপনাঙ্গের দৃশ্যমানতার উপর নির্ভর করে না। কেন অন্য কেউ এই বিষয় নিয়ে মাথা ঘামাবে? আপনার সত্যিকারের গোপনীয়তা এখানে নেই, কিন্তু তা রয়েছে আপনার কম্পিউটারে, যে রাস্তায় আপনি হাঁটছেন, সেখানে; এমনকি যে সকল জায়গায় আপনি যাচ্ছেন সে সব এলাকায়।

যে সমস্ত ওয়েবসাইট আপনি ভ্রমণ করেন? সে সবের একটি তালিকা আপনার কম্পিউটারে রাখা আছে এবং লোকজন সেগুলো নিয়ে গবেষণা করছে। আপনি যখন কোন দোকানে কিছু কেনেন তখন কি ঘটে? আপনার কেনাকাটার অভ্যাসের বিষয়গুলো নিয়ে বিশ্লেষণ করা হয়। যে সমস্ত লোকজনের সাথে আপনি বাস করেন? সেখানে একটা ক্যামেরা আপনাকে লক্ষ্য করছে। এখন এমন এক সময়, যখন আমাদের জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত নজরদারির মধ্যে রয়েছে , সেখানে আমাদের গোপনীয়তা আর কতটা গোপন রইছে?

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .