বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

রাশিয়া: ভ্লাডিভোস্টকের গোল্ডেন হর্ন বে সেতু বিতর্ক

ভ্লাডিভোস্টক শহর এবং জলোটয় রগ, ছবি ভ্লাদিমির কোবজারের সৌজন্যে

ভ্লাডিভোস্টক শহর এবং জলোটয় রগ (সোনালী উপসাগর), ছবি ভ্লাদিমির কোবজারের সৌজন্যে

গত ৮ই সেপ্টেম্বর ২০১০ তারিখে রাশিয়ার ভ্লাডিভোস্টোক শহরের নগর প্রশাসন উন্মুক্ত আলোচনার আহ্বান জানান সোনালী হর্ন (জলোটয় রোগ) উপসাগরের উপরে নতুন একটা সেতুর নামের ব্যাপারে। এই সেতু শহরের দুই অংশকে সংযুক্ত করবে আর যানবাহনকে সহায়তা করবে। দ্বিতীয় আরেকটি সেতুও থাকবে যা শহর আর নিকটের দ্বীপকে সংযুক্ত করবে।

এই সকল উচ্চাভিলাষী আর দামী প্রকল্প এশিয়া প্যাসিফিক অর্থনৈতিক সহযোগিতা সামিট (এপেক) এর প্রস্তুতির অংশ, যা ২০১২ সালে ভ্লাডিভোস্টকে অনুষ্ঠিত হবে। এই অনুষ্ঠানের বিরাট বাজেট, কিন্তু এখনো খুব বেশী কাজ হয়নি। মাত্র দুই বছর বাকি আর সেতুগুলো এখনো অর্ধেকও হয়নি। ভ্লাডিভোস্টকের নাগরিকদের কারন আছে বিশ্বাস করার যে এই দুই বিশাল সেতু সময় মতো শেষ হবে না আর অর্থ কারো পকেটে গায়েব হয়ে যাবে, আর এর ফলে শহর তার প্রয়োজনীয় অবকাঠামো থেকে বঞ্চিত হবে।

তার ব্লগে, ভ্লাডিভোস্টকের মেয়র ইগোর পুশকারেভ উপসাগরের উপরের সেতুর একটি পছন্দনীয় নামের জন্য অনলাইন ভোটের সুযোগটি করে দিয়েছেন। মানুষ ৩০টি নামের মধ্য থেকে পছন্দ করতে পারবেন। নীচের নামগুলো সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ছিল: হোপ ব্রিজ, গোল্ডেন ব্রিজ, জোলোটয় রগ (রুশ ভাষায় উপসাগরের নাম অনুসারে সোনালী উপসাগর), ডারকিন্স ব্রিজ (বর্তমান গভর্নরের নামানুসারে), ফার ইস্টার্ন ব্রিজ ইত্যাদি।

ব্লগার হিয়ামাদো ভাবছেন যে ঘুষ ব্রিজ (রুশ ভাষায় “откатный мост”) নামে কোন নাম কেন নেই, যেহেতু এই সামিটের আয়োজনে প্রচুর দূর্নীতি হয়েছে।

এপেকের প্রস্তুতি আঞ্চলিক ব্লগ জগতে আর এর বাইরে রাস্তাঘাটে অসংখ্য কৌতুকের বিষয়ে পরিণত হয়েছে। স্থানীয় ব্লগাররা (ব্যাঙ্গাত্মক) নামের আর একটা তালিকা প্রস্তুত করেছেন। ২০১০ সালের এপ্রিল মাসে উন্মুক্ত আলোচনা ঘোষণার আগেই ব্লগার মাতভিয়েঙ্কো_ভিলচ এই ব্যাপারে তার সমালোচনামূলক মতামত জানিয়েছিলেন। তিনি সেতুর জন্য বিকল্প নামের উদাহরণ দিয়েছেন বিভিন্ন ব্লগারের কাছ থেকে নিয়ে। এখানে কিছু উদাহরণ দেয়া হলো:

«Мост Бесценный», «Мост Мы-б…-уже-и-не-надеялись», «Путинский», […], «Мост в светлое будущее», «Медвепуть» («Путинпровод»), […], «Откатный» (вариант — «Золотой откат»), «Ворота в ад», «Хайшеньвей-бридж».

অমূল্য সেতু, আমরা আশা একেবারেই ত্যাগ করছি সেতু, পুতিন সেতু, উজ্জ্বল ভবিষ্যৎের সেতু, মেদ্ভেপুত (পুতিন সড়ক), স্বর্ণালী ঘুষ সেতু, দোজখের দরজা, হাইসেনওয়াই ব্রিজ [ চীনারা এইভাবে ভ্লাডিভোস্টককে ডাকে]।

এই সব বিদ্রুপাত্মক নাম সরকারের আর এপেক সামিটের পুরো ব্যাপারটির প্রতি সাধারণ মানুষের ধারণার প্রতিফলন।

গত ২০শে সেপ্টেম্বর স্থানীয় এক দৈনিক – নোভোস্তি ভ্লাডিভোস্টক (ভ্লাডিভোস্টকের সংবাদ) জানিয়েছে যে ভ্লাডিভোস্টকবাসী নির্মাণ কাজ দেখতে পারবেন চুরকিন্সকি মোস্ট (চুরকিন সেতু) নামে ব্লগের প্রকাশনা থেকে। প্রতিবেদন অনুসারে, এই ব্লগ এপেক সামিটের নির্মান কাজ সম্পর্কে সর্বশেষ তথ্য দেয়। আসলে এই ব্লগ ধারণা দেয় যে এই সেতু কেমন দেখতে হবে কম্পিউটার থেকে চিত্র দিয়ে (এটার বা এটার মতো)। এখানে আসল পরিস্থিতি বা নির্মাণ স্থানের সমস্যার কথা বেশী কিছু নেই।

ভ্লাডিভোস্টক শহরের লাইভজার্নাল কমিউনিটিতে সেতুর নির্মান কাজের একটা সঠিক চিত্র দিয়েছেন ব্লগার হাজোফ আর জেকা_ভাসচ। সেখানে নির্মাণ স্থানের চিত্র আর যেসব বাড়ি ধ্বংস করা হয়েছে সেতু তৈরির জন্য তার চিত্র আছে। একই সাথে, এটা পরিষ্কার না যে যারা ওইসব বাড়িতে বাস করতো তাদের কি হবে।

দুর্ভাগ্যবশত:, স্থানীয় সরকার পুরোপুরিভাবে মানুষের সব অসন্তোষ আর অবিশ্বাসকে অগ্রাহ্য করছেন। সৌভাগ্যবশত: মানুষ এইসব ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া আর তাদের দৃষ্টিভঙ্গী আর গল্প ব্লগে জানানোর সুযোগ পান। মধ্য অক্টোবরে সেতুর নাম নিয়ে ভোট শেষ হবে। অবশ্য, স্বর্ণালী ঘুষ সেতু নামটা তালিকায় ছিলনা, যদিও এই প্রচেষ্টার ব্যাপারটা অন্য নামের থেকে এটাই তাকে ভালো প্রতিফলিত করে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .