বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

বলিভিয়া: ইন্টারনেট ডোমেইনের ক্রয় মূল্য

বলিভিয়ায় সুনির্দিষ্টভাবে দেশের নামে ইন্টারনেট ডোমেইনের (ইন্টারনেটে ওয়েব পাতার ঠিকানা) মালিকানা অর্জন করার ব্যয় তুলনামূলক বেশি। তার আঞ্চলিক প্রতিবেশীদের সাথে যদি তুলনা করা যায়, তা হলে এই ব্যয় অবশ্যই বেশি। যেখানে চিলিবাসীরা দুই বছরের জন্য “.সিএল” ডোমেইন [স্প্যানিশ ভাষায়] কেনার প্রদান করে ৪০ মার্কিন ডলার, আর্জেন্টিনাবাসীরা এমনকি বিনে পয়সায় কম.এআর ডোমেইন পেতে পারে, সেখানে বলিভিয়ায় এই ডোমেইন কেনার খরচ স্থানীয় অনেক বাসিন্দার সাধ্যের বাইরে।

সম্প্রতি বলিভিয়ার যোগাযোগ তথ্য কেন্দ্র (নেটওয়ার্ক ইনফরমেশন সেন্টার অফ বলিভিয়া) (এনসিআই) [স্প্যানিশ ভাষায়] ঘোষণা দেয় যে তারা “.বো” ডোমেইন কেনার মূল্য ৩৫ শতাংশ কমিয়ে এনেছে, যার ফলে তার মূল্য এখন প্রতি বছরে প্রায় ১৪০ মার্কিন ডলার। তবে এ ব্যাপারে বছরে প্রায় ৪০ মার্কিন ডলার দিয়ে “কম.বো” কেনার ভিন্ন এক সুযোগ রয়েছে।

মূল্য কমানোর ঘোষণা এনআইসির নতুন তৈরি করা ফেসবুকের পাতায়ও প্রদান করা হয়েছে, যা, যেখানে ব্যবহারকারীদের ডোমেইনের মূল্যের ব্যাপারে কথা বলার সুযোগ প্রদান করা হয়েছে। আলোচনা সভায় (ডিসকাশন বোর্ডে) এসটেবান লিমা লিখেছে:

Me gustaría saber en que se invierte el dinero recaudado. Imagino que como institución pública la información de numero de dominios, recaudaciones e inversión debería ser pública

আমি জানতে চাই সংগৃহীত অর্থ কোথায় বিনিয়োগ করা হচ্ছে। আমি মনে করি, গণ প্রতিষ্ঠান হিসেবে কতগুলো ডোমেইন তৈরি হচ্ছে, এতে কি পরিমাণ অর্থ সংগ্রহ হচ্ছে এবং সেগুলো কোথায় বিনিয়োগ হচ্ছে তা অবশ্যই জনতার কাছে উন্মুক্ত করতে হবে।

এই আলোচনা টুইটার ও ব্লগে চলছে যেখানে ব্যবহারকারীরা যেমন অস্কার হুমবার্তো (@ওকেই) এই দামের প্রভাবের বিষয়ে লিখেছে:

Los precios de #nicbo no son accesibles a la realidad económica de los bolivianos, solo amplían mas la “brecha digital”.

অর্থনৈতিক বাস্তবতায় নিক.বো এর দাম বলিভিয়ানদের জন্য গ্রহণযোগ্য নয়, এটা কেবল ডিজিটাল বিভক্তিকে বিস্তৃত করবে।

তবে ব্লগার মারিয়া ডুরান এনআইসির ফেসবুকের পাতায় দামের উচ্চ মূল্যের বিষয়ে সমালোচনা করে এর দেওয়াল (নোটিশ বোর্ড বা যেখানে কোন মন্তব্য রাখা যায়-ওয়ালে) একটি লেখা পোস্ট করেছেন । সেখানে তিনি যা বলেছেন, তা এনআইসি মুছে ফেলেছে। এর পরপরই ডুরান মুছে ফেলা যে অংশে যা লিখেছিলেন, সেই অংশের ছবি বা স্ক্রিনশট তার ব্লগে প্রকাশ করেন [স্প্যানিশ ভাষায়] এবং লিখেন যে তিনি এদের অফিসে এই বিষয়ে তাদের নীতির ব্যাপারে পরিষ্কার ধারণা পাবার জন্য কর্মকর্তাদের জিজ্ঞেস করেছিলেন। বলিভিয়ার ইন্টারনেট সমাজ উন্নয়ন প্রতিষ্ঠান ( বলিভিয়ান এজেন্সি ফর ডেভলপমেন্ট অফ দা ইন্টারনেট সোসাইটি যা তার স্প্যানিশ ভাষার আদ্যক্ষর নিয়ে এডসিব নামে পরিচিত) আইনগত প্রতিনিধির কাছে দেওয়া এক সংক্ষিপ্ত সাক্ষাৎকারে ডুরান নিচের যুক্তি নিয়ে হাজির হন।

i) las rebajas serian progresivas.
ii) que lo que se paga por los dominios sirve para mantener la burocracia de NIC.bo
iii) que es una institucion estatal que no tiene muchos recursos.
iv) que en otros paises hay economias de escala y mayor numero de usuarios, esto les permite que el costo de los dominios sea incluso de 1 dolar, en Bolivia apenas son 6000 usuarios.
v) que por tres tipos que reclaman no iban a cambiar las cosas.

১) দাম কমে আসার বিষয়টি উন্নতির লক্ষণ।
২) ডোমেইন বিক্রি করে যে অর্থ সংগ্রহ করা হয় তা এনআইসি.বো এর আমলাতান্ত্রিকতার কাজে ব্যয় হয়।
৩) এটা রাষ্ট্রীয় একটি প্রতিষ্ঠান যার অনেক রিসোর্স বা সূত্র রয়েছে।
৪) অন্য দেশের ক্ষেত্রে এ ব্যাপারে অর্থনৈতিক একটি মাপকাঠি রয়েছে এবং সে সমস্ত দেশে প্রচুর ব্যবহারকারী রয়েছে, যার ফলে সেখানে ডোমেইনের দাম অনেক সময় এমনকি ১ ডলারে নেমে আসে, কিন্তু বলিভিয়ায় হয়ত কোন রকমে ৬০০০ সুনির্দিষ্ট ডোমেইন ব্যবহারকারী রয়েছে।
৫) ৩ জন ব্যক্তি অভিযোগ করেছে, এতে কোন কিছুর কোন পরিবর্তন হবে না।

এছাড়াও এই ব্লগ পোস্টে ডুরান উল্লেখ করেছেন যে দাম কমানোর জন্য যে দরখাস্ত তা ২০০৩ সাল থেকে অনেক ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর মাথায় ছিল। এই পোস্টকে উদ্দেশ্য করে লেখা পরের পোস্টে তিনি পরামর্শ প্রদান করেন যে সাইবার প্রচারণা শুরু করা যাক, যাতে এই বিষয়ে আরো সচেতনতা বৃদ্ধি করা যায় [স্প্যানিশ ভাষায়] এবং ব্লগার ও টুইটারকারী ব্যক্তিরা এই বিতর্কের সম্মুখে তাকাবে। অনেকে এই বিষয়ে আলোচনার জন্য #নিকবো নামক হ্যাশট্যাগের ব্যবহার শুরু এই আশায় যে, নিকট ভবিষ্যৎ-এ এই বিষয়ে স্পষ্ট একটি পরিবর্তন আসবে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .