বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

স্পেন: উইকি চলচ্চিত্র, অনলাইনে অনেকের অংশগ্রহনের মধ্য দিয়ে তৈরি

স্পেনে, পানীয় কোম্পানি মাহাও সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইন্টারনেট ব্যবহার করে একটি ক্যাম্পেইন করার। তাদের উদ্যোগে একটি স্বল্পদৈর্ঘ চলচ্চিত্র নির্মাণ করা হচ্ছে যেটি পরিচালনা, কলাকৌশলী আর প্রযোজনা সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন উইকিপেলি সাইটের কমিউনিটিতে অংশগ্রহনকারীরা। প্রায় ৩০০০ ব্যবহারকারীর মাঝে ভোট হয়েছে গণতান্ত্রিক উপায়ে যার মাধ্যমে বিভিন্ন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বেশ কয়েকজন বিখ্যাত স্প্যানিশ পরিচালক, যেমন জোসে কর্বাকো আর জুয়ান ক্রুজ, দায়িত্বে আছেন কমিউনিটির সিদ্ধান্ত কাজে পরিণত করায়।

উইকিপেলির ইউটিউব চ্যানেলে তারা ধাপে ধাপে জানাচ্ছেন এই চলচ্চিত্র কিভাবে এগুচ্ছে। নীচের এই ভিডিও দেখাচ্ছে চলচ্চিত্রায়নের জন্য একটি ধূসর লিমো না পাওয়ায় প্রধান পরিচালকদের ক্ষমা প্রার্থনা করতে। এই রং স্থানীয় রেডিওর এক অনুষ্ঠানের একজন বিজয়ী স্থির করেছিলেন। তারা বিজয়ীর পছন্দের ধূসর লিমো পায়নি, আর রং করতে অনেক খরচ হতো , তাই তাদের সাদা নিয়েই কাজ করতে হলো। তবে তারা নিজেদের কাজ এইভাবে সমর্থণ করেছেন যে কাহিনীতে এই লিমোতে যেহেতু একজন বউকে নিয়ে যাওয়া হবে, তাই সাদা একেবারে বেমানান না।

উইকিপেলি প্রযোজনার সময়ে নেয়া সিদ্ধান্তের এটিই সাধারণ নিয়ম: উদাহরণস্বরুপ, যখন তাদের দরকার ছিল একজন আকর্ষণীয় পুরুষ শিল্পী, তারা অনেক এন্ট্রি পেয়েছেন, আর দর্শকদের ভোট নিয়ে, তারা পরিশেষে আবেলকে বেছে নেন:

এখানে আপনারা পুরুষ শিল্পীর কাস্ট হওয়ার প্রতিযোগিতার ভিডিও দেখতে পাবেন:

তারা অংশগ্রহণকারীদের পছন্দ আর মন্তব্য থেকে সাউন্ডট্র্যাক বেছে নিয়েছেন:

বর্তমানে তারা চলচ্চিত্রায়ন শেষ করার পরে তা সম্পাদনা করছেন। তাদের ব্লগের শেষ পোস্টে তারা স্পেশাল এফেক্ট চলচ্চিত্রে যে পরিবর্তন আনে তা ব্যাখ্যা করেছেন:

Para ilustrar esto que os digo, os dejo un vídeo de un momento del rodaje, para que veáis el papel de los efectos especiales, que formarán parte de una de las escenas más impactantes. Os queremos mostrar cómo se lo montaron los especialistas para que, en una puerta metálica, apareciera una terrorífica figura humana, con la consiguiente reacción de pánico de Martín Rivas, nuestro Álex.

এটা ব্যাখ্যা করতে, আমি আপনাদেরকে চলচ্চিত্রায়নের সময়ের একটা ভিডিও দেখাচ্ছি যাতে আপনারা দেখতে পারেন একটা ভয়ঙ্কর দৃশ্যে স্পেশাল এফেক্ট কি ধরনের ছাপ রাখতে পারে। আমরা দেখাতে চেয়েছি কি ভাবে বিশেষ কাজটা সেট করা হয়েছিল যাতে একটা ধাতব দরজায়, একটা ভয়ঙ্কর মানব অবয়ব দেখা যায়, আর এর সাথে মার্টিন রেভিস, মানে আমাদের এলেক্সের ভয়ের প্রতিক্রিয়া।

এই মুহূর্তে, তারা চলচ্চিত্রটির কি নাম হবে সেই প্রক্রিয়ার মধ্যে আছেন। সব অংশগ্রহনকারীদের (যাদেরকে সহকারী- পরিচালক বলা হয়) পাঠানো নামগুলি থেকে তিনটি নির্বাচন করা হয়েছে চুড়ান্ত ভোটের জন্যে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .