বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে মিশরীয় ব্লগাররা ঐক্যবদ্ধ হয়েছেন

মিশরের আল হুসেইন শহরে ২২শে ফেব্রুয়ারী সংগঠিত বোমাবাজিতে একজন ফরাসী পর্যটক নিহত ও ২০ জন মানুষ আহত হলে মিশরীও ব্লগস্ফিয়ারে যে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া প্রকাশিত হয়েছে সে কথা লিখেছেন ঈমান আব্দেলরহমান। আজকে আমি লিখবো মিশরী ব্লগারদের একটা গ্রুপ ও সন্ত্রাস মোকাবেলায় তাদের উদ্যোগের কথা।

এই উদ্যোগ সম্বন্ধে স্প্রিং তার ব্লগে লিখেছেন:

إحنا المصريين بنحب بعضنا و بنحب بلدنا. شايفين اللي حصل في الحسين من كام يوم؟ حركة خايبة آخر حاجه. تيجوا ندعم بلدنا و نبين للعالم اننا بنحبها؟ تروح كلنا للحسين يوم الخميس الجاي. غالبا كل اللي هايقرا الكلام ده هايوافقني ، ماحدش هايرفض الا اللي عايزين خراب البلد ..أيوه لازم كلنا نروح هناك ، نصلي في الحسين ، نقعد على قهوة و نشتري حاجه من خان الخليلي ، ننفع الناس يعني و نحيي المكان .. لازم كلنا نلبي الدعوة ، دي مصر اللي بتدعينا. ها قلتوا ايه؟ خلوا معادنا مع مصر يوم الخميس خراب مصر مش هانسمح بيه أبدا.خمسين مليون مصري في الحسين يوم الخميس
خدامينك يا مصر
আমরা মিশরীরা একে অপরকে এবং দেশকে অত্যন্ত ভালবাসি। আপনারা কি দেখেছেন কিছুদিন আগে আল হুসেইনে কত ভয়াবহ একটা ঘটনা ঘটলো? কি নেক্কারজনক কাজ! আসুন আমরা আমাদের দেশকে সহযোগিতা করি এবং সমস্ত বিশ্বকে দেখিয়ে দেই আমাদের দেশপ্রেম! চলুন আমরা বৃহস্পতিবার আল হুসেইনে সমবেত হই। এই পোস্ট যারা পড়ছেন তাদের বেশীরভাগই আমার সাথে একমত হবেন সেটা নিশ্চিতভাবেই জানি, একমাত্র মিশরের ক্ষতি কামনাকারীরা ছাড়া। হ্যা.. আমাদের সেখানে যাওয়া উচিত, সেখানের ঐতিহাসিক মসজিদে আমরা প্রার্থনা করতে পারি, একটা কফি শপে বসতে পারি, খরিদ করতে পারি খান-এল-খলিলী থেকে কিছু পণ্য..এভাবে হয়তো আমরা সেখানের ব্যবসায়ীদের সাহায্য করে জায়গাটির পুনরুত্থানে ভূমিকা রাখতে পারি…. আমাদের প্রাণপ্রিয় মিশরের জন্য এই আহবানে সবার সাড়া দেয়া উচিত… মিশর এখন আমাদের ডাকছে। সুতরাং কি ভাবছেন আপনারা? বৃহস্পতিবারই তাহলে সই? ৫ কোটি মিশরীয়কেই বৃহস্পতিবার আল হুসেইনে দেখতে চাই দেশ সেবায়।

এই সংবাদ আরো বিস্তৃত পরিসরে ছড়িয়ে দেবার জন্য ব্লগারদের এই অংশ একটা ফেসবুক গ্রুপ তৈরী করেছেন।

১৪ই ফ্রেব্রুয়ারী আন্দোলন নামে পরিচিত ব্লগারদের ভিন্ন একটা গ্রুপ মিশরব্যাপী ভিন্ন একটা আয়োজনের সূচনা করেছিল এবং যা ১লা মার্চ অনুষ্ঠিতও হয়েও গেল। এই আয়োজনের উদ্দেশ্য ছিল প্রতিটি পর্যটকের হাতে একটা ফুল দিয়ে মিশরে অভ্যর্থনা জানানো।

এই আয়োজনের ছবি এখানে দেখা যাবে এবং ভিডিও দেখা যাবে এখানে:

শেষকথা হচ্ছে:

في حب مصر إلتقوا هؤلاء الشباب وإنتشروا في منطقة الحسين فكانوا كالورد يفووحون روائح طيبة بعثت النشوي في نفوس المصريين أصحاب البازارات والبسمه في وشوش السياح والطمأنينه في قلوب رجال الشرطة المتوجسين خيفه من أي تجمع حتي ولو كان بالشكل الذي فعلوه
شل الله يد كل جاحد مريض تمس يده بلدنا بالأذي
মিশরকে ভালোবাসার নামে যে সমস্ত ব্লগার এবং ফেসবুক ব্যবহারকারী আল হুসেইন ভ্রমণ করেছেন, পর্যটকদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন নিখাঁদ হাসি দিয়ে তারা ব্যবসায়ীদেরও হৃদয়ে ভালোবাসা ছড়িয়ে দিয়েছেন, পর্যটকদের চেহারায় স্ফুর্তি আর সতর্ক পুলিশদের দিয়েছেন স্বস্তি এবং নিরাপত্তার অনুভব।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .