বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

30 মার্চ 2011

গল্পগুলো মাস 30 মার্চ 2011

পোস্টটি পড়ুন

সুদান: “কারণ আমি একজন মুক্ত সুদানী, আমি বাইরে যেয়ে না – বলবো”

গত ২১শে মার্চ, ২০১১ তারিখে সুদানের ইয়ুথ মোমেন্ট দিবস চালু হয়। ওমর আল-বাসির-এর সরকারের বিরুদ্ধে নতুন পর্যায়ের বিক্ষোভ সংগঠন করতে সুদানের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা ফেসবুক ও টুইটারে বিষয়গুলো প্রচার করে।

পোস্টটি পড়ুন

সিরিয়া: বিক্ষোভকারীরা শাসকদের প্রতীক ধ্বংস করছে

সিরিয়ায়, রাষ্ট্রপতি বাশার আল আসাদ এবং তার পিতা প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হাফেজ আল-আসাদের মুখ নিয়মিতভাবে বিলবোর্ড, ভবন সমূহ, এবং তাদের সব ধরনের মূর্তি সব জায়গায় দেখা যায়। এই দেশে আসা বিদেশী ভ্রমণকারী নাগরিকরা প্রায়শই এ ধরনের ছবির ছড়াছড়ি দেখে বিস্মিত হয়, অন্যদিকে সিরিয়ার নাগরিকরা প্রতিদিনের জীবনে এসব দেখ অভ্যস্ত। গতকাল, বেশ কিছু ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে যে বিক্ষোভকারীরা তাদের শাসকের প্রতীক সমূহ; আসাদ পরিবারের পোস্টার এবং মূর্তি, ধ্বংস করে ফেলছে।

পোস্টটি পড়ুন

মিশর: বিপ্লবের আগে ও পরে ফুটবল নিয়ে উত্তেজনা

গত কয়েক বছর ধরে ফুটবল ছিল মিশরীয় নাগরিকদের প্রধান আনন্দের উৎস। যাই হোক, মনে হচ্ছে মিশরের সাম্প্রতি যে বিপ্লব অনুষ্ঠিত হয়েছে, তা সবকিছুর মাঝে এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন এনেছে। এমনকি সম্প্রতি মিশরের জাতীয় দল এক ফুটবল খেলায় দক্ষিণ আফ্রিকার জাতীয় ফুটবল দলের কাছে হেরে গেলেও, এই ঘটনায় অনেকে আনন্দ প্রকাশ করেছে।

পোস্টটি পড়ুন

কাতার: মেঘে ঢাকা এক বিশ্বকাপ

রিমোট কন্ট্রোলের নিয়ন্ত্রণে সৌর শক্তিতে পরিচালিত মেঘে তৈরি হবে ছায়া, যা কাতারের ফুটবল স্টেডিয়ামগুলোকে ঠান্ডা করার কাজে ব্যবহৃত হবে, এমনই এক সংবাদ বিশ্বের বিভিন্ন সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়েছে। এই সংবাদটি তার নিজস্ব গতিশীলতা লাভ করেছে, আর এই সংবাদটি উপসাগরীয় এলাকার ছোট্ট কিন্তু ধনী রাষ্ট্র কাতারকে আবার সবার আলোচনার মাঝে নিয়ে এসেছে। ৫০০,০০০ মার্কিন ডলার ব্যায়ে তৈরি হতে যাওয়া কৃত্রিম এই মেঘের এই সংবাদটি সত্যি কি না, তা দেখার জন্য আমাদের কাতারে অনুষ্ঠিত ২০২২ সালের বিশ্বকাপ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।