গল্পগুলো আরও জানুন শ্রীলন্কা

শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক সঙ্কট নিয়ে লেখার দাম দিতে হচ্ছে সাংবাদিকদের

শ্রীলঙ্কার সাংবাদিক ও গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলো চলমান অর্থনৈতিক সংকট এবং জনবিক্ষোভ কভার করতে গিয়ে অনেক চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন; কিছু পত্রিকার প্রকাশনা স্থগিত এবং অনেক সাংবাদিক আহত হয়েছে।

পরিচয় পুনঃনির্ধারণ: শ্রীলঙ্কার পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশে ভূমি দখল

দ্যা ব্রিজ (সেতুবন্ধন)  6 মার্চ 2022

শ্রীলঙ্কার বহুত্ববাদী এবং বহুসাংস্কৃতিক পরিচয়ের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা ত্রিনকোমালিকে এক জাতি, এক ধর্ম, এক জাতিসত্তার সমগোত্রীয় স্থান হিসেবে দাবিকে পুনরায় ব্যাখ্যা করা হচ্ছে।

অ্যামাজন প্রাইমের ধারাবাহিকে ইলম তামিলের কথা ও ইতিহাসকে মারাত্মক ভুলভাবে উপস্থাপন

  30 জুন 2021

সম্প্রতি অ্যামাজন প্রাইমে দ্বিতীয় মৌসুমে শুরু হওয়া একটি ভারতীয় ধারাবাহিক টিভি নাটক শ্রীলংকার তামিলদের উচ্চ মাত্রায় বর্ণবাদী এবং সমস্যাযুক্ত হিসেবে চিত্রিত করে বিতর্কিত।

নেট-নাগরিক প্রতিবেদন: ফেসবুকের কাছে জবাব চাইছে সারা বিশ্ব

জিভি এডভোকেসী  16 মে 2018

অ্যাডভক্স নেট-নাগরিক প্রতিবেদন বিশ্বজুড়ে ইন্টারনেট অধিকারগুলির ক্ষেত্রে বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতা, সমস্যা থেকে উত্তরণ এবং উদীয়মান প্রবণতাগুলির একটি আন্তর্জাতিক আলোকপাত উপস্থাপন করে।

২০১৭ সালের গ্লোবাল ভয়েসেস সামিট কলম্বো, শ্রীলঙ্কা হতেঃ ইনটু দি ডিপ নামের পডকাস্ট থেকে

  1 এপ্রিল 2018

এই পডকাস্টে, গ্লোবাল ভয়েসেস-এর এক ডজন কন্ট্রিবিউটর আপনাকে নিয়ে যাবে গ্লোবাল ভয়েসেস-এর সাম্প্রতিক সামিটে এবং তারা আলোচনা করছে তাদের বাস্তব জীবনের বন্ধুত্ব, আন্ত-সংস্কৃতির সহযোগিতা, এবং সম্প্রদায়ের মূল্যবোধ নিয়ে।

শ্রীলংকায় তথ্য অধিকার অনুরোধে ওয়েবসাইট অবরোধের প্রক্রিয়া উন্মোচিত

শ্রীলংকার টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন ২০১৫ সাল থেকে এপর্যন্ত বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক সংবাদ প্রকাশকারী ওয়েবসাইট এবং কিছু অশ্লীল সাইটসহ ১৩টি ওয়েবসাইট বন্ধ করার তথ্য জানিয়েছে।

গ্লোবাল ভয়েসেস সামিট ২০১৭: শ্রীলংকার জন্য দিন গণনা শুরু

  6 নভেম্বর 2017

প্রায় ৫০ টির বেশি রাষ্ট্র গ্লোবাল ভয়েসেস সামিট ২০১৭-এ প্রতিনিধিত্ব করবে, ডিসেম্বর ২-৩-এ শ্রীলংকার কলম্বোয় অনুষ্ঠিত এই সামিটে আমাদের সাথে যোগ দিন!

শ্রীলংকার পর্যটন ‍শিল্প ঘুরে দাঁড়িয়ে পুনরায় এগিয়ে যাচ্ছে, তবে সেনাবাহিনীর কারণে

  31 অক্টোবর 2016

শ্রীলংকা সেনাবাহিনী পর্যটন ব্যবসায় ব্যাপক বিনিয়োগ করছে। সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে একাধিক হোটেল এবং রিসোর্ট, অসংখ্য রেস্টুরেন্ট এবং ক্যাফেসহ নানাধরনের পর্যকদের সেবা তৈরি হয়েছে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে।