বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

· আগস্ট, 2013

গল্পগুলো আরও জানুন মধ্যপ্রাচ্য ও উ. আ. মাস আগস্ট, 2013

26 আগস্ট 2013

আল-সিসিকে অভিশাপ দেওয়ায় সৌদি আরবের মসজিদে সংঘাত

আজ শুক্রবারের নামাজের সময় একজন সৌদি ইমাম মিশরের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসিকে অভিশাপ দিলে রিয়াদের একটি মসজিদে সৌদি এবং মিশরীয়দের মধ্যে সংঘাত শুরু...

দামাস্কোর উপশহর আল ঘুটাতে আসাদের রাসায়নিক যুদ্ধ

সক্রিয় কর্মীদের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বাশার আল আসাদের বাহিনী আজ সকালে সিরিয়ার দামাস্কাসের পূর্বে ঘুটা অঞ্চলে স্নায়ু গ্যাস দিয়ে আক্রমন করে। এর ফলে কয়েকশ লোক মারা...

25 আগস্ট 2013

ত্রিপোলির বোমা বিস্ফোরণের স্থান থেকে টুইট করেছেন লেবানিজ ব্লগার বেইরুত স্প্রিং

লেবাননের শহর ত্রিপোলির উত্তরাঞ্চলে আজ [২৩ আগস্ট, ২০১৩] দু’টি মসজিদের বাইরে সংঘটিত দু’টি বোমা বিস্ফোরণে প্রায় ৪০ জন লোক মারা গেছে এবং কয়েকশ লোক আহত...

23 আগস্ট 2013

অনশন ধর্মঘট শুরু করলেন এক কারাবন্দী ব্লগারের মা

​​কারাবন্দী ইরানী ব্লগার হুসেইন রোনাঘি মালেকি এবং তার মা দুইজনই অনশন শুরু করেছেন কারণ, কর্তৃপক্ষ তার পুত্রের অনশন এবং অবস্থার প্রতি মনোযোগ দিচ্ছে না।

জিজ্ঞাসাবাদকারী এবং বিচারকের কাছ থেকে অসদাচরণ পেলেন সৌদি মানবাধিকার কর্মী

উমর আল-সাইদ এর বিচারে সৌদি আরবের বুরিধাহতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। গত ২৮ এপ্রিল তারিখে আইনজীবী ছাড়া জিজ্ঞাসাবাদের সময় উপস্থিত হতে অস্বীকৃতি জানানোয় তাঁকে আটক করা হয়।

ইরান: কারাবন্দী ব্লগার অনশন ধর্মঘটে

20 আগস্ট 2013

মরক্কোতে গল্প তৈরি

রাইজিং ভয়েসেস

সমগ্র মরক্কো থেকে চব্বিশ জন অংশগ্রহণকারী ১-৫ জুলাই অ্যান্ড্রয়েড ফোনের জন্য স্টোরি মেকার অ্যাপ ব্যবহার করে ডিজিটাল গল্প বলার মূলসূত্র প্রশিক্ষণের জন্য প্রথম বারের মতো...

ইরান: নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আছে একটি ফেসবুক পাতা

পুড়ে গেছে মিশরের কপ্টিক গির্জাগুলো

সমগ্র মিশর জুড়ে কপ্টিক গির্জাগুলো এবং ব্যবসা বাণিজ্যের প্রতিষ্ঠানগুলোতে আক্রমণ করা হয়েছে। বর্ণনামতে মুসলিম ব্রাদারহুডের সদস্যরা এবং তাঁদের সমর্থকেরা এ আক্রমণ চালিয়েছে।