বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

· জানুয়ারি, 2010

গল্পগুলো আরও জানুন প্রতিবাদ মাস জানুয়ারি, 2010

শ্রীলন্কা: ‘লন্কা ই নিউজ’ নিষিদ্ধ

  30 জানুয়ারি 2010

জার্নালিস্টস ফর ডেমোক্রেসী ইন শ্রীলন্কা ব্লগ জানাচ্ছে যে শ্রীলন্কা থেকে প্রকাশিত ‘লন্কা ই নিউজ‘ নামের একটি ওয়েব-সংবাদপত্রকে কর্তৃপক্ষ তালাবদ্ধ করে দিয়েছে। নির্বাচনের দুদিন আগে সাংবাদিক প্রগীথ একনালোগোদা, যিনি ওই ওয়েবসাইটে নিয়মিত লিখতেন, অন্তর্ধান হন।

ইরান: সবুজ এক সঙ্গীতকে প্রতিবাদের সমর্থক হিসেবে ব্যবহার করা

  30 জানুয়ারি 2010

একটি গানকে মোবাইলের একটি রিঙটোনে পরিণত করা হয়েছে। ১৯৮০-এর দশকে ইরান-ইরাক যুদ্ধের সময় এই গানটি তরুণ ইরানীদের যুদ্ধে যাবার জন্য উৎসাহিত করত। সেই গানটি এখন ইরানের বিরোধীদের সমর্থনে বাজানো হচ্ছে। হামিদ তেহারানি "ইয়ে ইরান" গানটির ব্যাপারে ব্লগারদের প্রতিক্রিয়া পর্যালোচনা করছেন।

পোস্টটি পড়ুন

মিশর: বলার অধিকার

  30 জানুয়ারি 2010

২২ জানুয়ারি মিশরীয় ব্লগার এবং এক্টিভিস্টরা এক সম্মেলনের আয়োজন করে। তাদের এই সম্মেলন ছিল বলার অধিকার নিয়ে যা ২০ জন ব্লগারকে গ্রেফতার করা উপলক্ষ্যে অনুষ্ঠিত হয়। কিছুদিন আগে নাগা হাম্মাদিতে এক গণহত্যায় বেশ কিছু কপ্ট খ্রীস্টান নিহত হয়। সে সময় একদল ব্লগার ও এক্টিভিস্ট ট্রেনে করে নাগা হাম্মাদিতে পৌঁছায়। তারা সেখানে নামার সাথে সাথে ২০ জন ব্লগারকে গ্রেফতার করা হয়। মারওয়া রাখা এই পোস্টে গ্রেফতারের ঘটনার উপর তাদের প্রতিক্রিয়ার সারাংশ তুলে ধরেছেন।

রাশিয়া: বিরোধী ব্লগার অবশেষে বিদেশে যাবার অনুমতি পেল

রুনেট ইকো  30 জানুয়ারি 2010

রাশিয়ার একজন প্রতিবাদী ব্লগার ওলেগ কজলোভস্কি সেই গল্প বলেছেন যে কি ভাবে তার ব্লগের একটি লেখা তাকে পাসপোর্ট পেতে সাহায্য করেছে যার ফলে তিনি বিদেশে যেতে পেরেছেন। দেশের ফেডারেল নিরাপত্তা সংস্থা (এফএসবি) কজলোভস্কিকে একটি নতুন পাসপোর্ট প্রদান করতে অস্বীকৃতি জানালে তিনি এই ব্যাপারটি নিয়ে তার ব্লগে লিখেছিলেন। ফলশ্রুতিতে নিরাপত্তা সংস্থাটি...

ভিডিও: মাদক বৈধকরণ এবং জীবনের উপর প্রাক-প্রতিবন্ধকতা তৈরি

  27 জানুয়ারি 2010

সংসারে এমন অনেক ব্যক্তি রয়েছেন যারা উচ্চকণ্ঠে মাদককে বৈধ করার দাবি জানাচ্ছে, কিন্তু প্রকৃতপক্ষে তার মানে কি? হান্গেরি থেকে কলম্বিয়া, তরুণ থেকে শিক্ষক, পুলিশ থেকে যাজক, ব্যক্তি থেকে দল, এর সবাই সম্ভাব্য এই বিতর্কিত বিষয়টির পক্ষে যুক্তি প্রদান করতে সিটিজেন মিডিয়া বা নাগরিক প্রচার মাধ্যম ব্যবহার করছে।

পোস্টটি পড়ুন

আরব বিশ্ব: বহুবিবাহের উপরে লেখা আলোড়ন সৃষ্টি করেছে

  26 জানুয়ারি 2010

সৌদি সাংবাদিক নাদিন আল-বেদাইর মিশরীয় এক সংবাদপত্রে ‘আমি আর আমার চার স্বামী’ নামক এক বিতর্কিত প্রতিবেদন লিখে আরব এবং মুসলমান ব্লগ জগৎে সাড়া ফেলে দিয়েছেন। তবে অনেকে আবার তার লেখাকে সমর্থন করেছেন।

পোস্টটি পড়ুন

তিউনিশিয়া: ব্লগাররা ছাত্রদের জেলে পাঠানোর বিরুদ্ধে

  21 জানুয়ারি 2010

সম্প্রতি তিউনিশিয়ায় একদল ছাত্রের বিচার করা হয়। বিচার শেষে তাদের শাস্তি হিসেবে বিভিন্ন মেয়াদের জেল প্রদান করা হয়। এর মধ্য ছয়মাস থেকে তিন বছরের জেলও রয়েছে। এই সমস্ত ছাত্রদের অপরাধ তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক ব্যবস্থা নিয়ে এক জায়গায় বসে থেকে আন্দোলন করেছিল। হলে মেয়েদের অধিকার আদায়ের জন্য তাদের এই আন্দোলনের ফলে তাদের উপর এত বড় শাস্তি নেমে এল। এই ঘটনায়, ব্লগাররা দ্রুত তাদের সমর্থনে এক আন্দোলন শুরু করে। এই আন্দোলনে তারা শাস্তি পাওয়া ছাত্রদের মুক্তি দাবি করে। বিস্তারিত লিখেছেন লিনা বেন মেন্নি।

পোস্টটি পড়ুন

ব্রাজিল: নেট-নাগরিকরা মজা পাওয়ার জন্য দুর্নীতিগ্রস্ত রাজনীতিবিদদের গুলি করছে

  19 জানুয়ারি 2010

সম্প্রতি প্রকাশিত একটি ভিডিও গেমে আপনি ব্রাজিলের রাজনীতিবিদকে গুলি করতে পারবেন। রাজনীতিবিদের এক দুর্নীতি কেলেঙ্কারি কিছুদিন আগে প্রকাশ হয়ে পড়ে, যা ছিল ২০০৯ সালের এক আলোচিত ঘটনা। এটি একমাত্র ঘটনা নয়, যে ঘটনায় নেটের নাগরিকরা রাজনীতিবিদের খুঁচিয়ে মজা নিচ্ছে। এটা কি প্রতিবাদের এক নতুন ভাষা, বিস্তারিত জানুন।

পোস্টটি পড়ুন

ইরান: চীনা সাইবার এক্টিভিস্টরা ইরানের লোকদের সমর্থন করছে

  12 জানুয়ারি 2010

সম্প্রতি আশুরার স্মৃতি স্মরণ করার সময় ইরানে বর্তমান প্রশাসনের বিরুদ্ধে এক গণবিক্ষোভ প্রদর্শিত হয়, সে সময় প্রায় ডজনখানেক চীনা নেটিজেন #ইরানইলেকশন নামক টুইটার সম্প্রদায়ে যোগ দেয়, এমনকি এতদুর পযর্ন্ত এগিয়ে যায় যে, তাদের নিজস্ব ওয়েব সাইট নির্মাণ করে দেয়।

পোস্টটি পড়ুন

মিশর: নাগা হাম্মাদিতে সংঘটিত গণহত্যা

  10 জানুয়ারি 2010

মিশরীয় ব্লগাররা কপ্ট খ্রীষ্টান উপর সংঘটিত এক হত্যাকাণ্ডে বিস্ময় এবং ক্ষুব্ধ মনোভাব প্রকাশ করেছে। আপার ইজিপ্ট নামক মিশরের এক এলাকার শহর নাগা হাম্মাদি, সেখানে কপ্ট খ্রীষ্টানদের উপর বড়দিনের দিনে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এক অজানা অপরাধী একদল লোকের উপর লক্ষ্য করে একাধারে গুলি ছুড়ে পালিয়ে যায়। সে সময় এই লোকগুলো তাদের প্রার্থনা শেষ করে, বাড়ির পথে রওনা দিয়েছিল।