বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

· জুলাই, 2011

গল্পগুলো আরও জানুন রাজনীতি মাস জুলাই, 2011

পোস্টটি পড়ুন

ইরানঃ জেলে যাওয়া সর্বশেষ দুই আমেরিকান পরিব্রাজককে মুক্ত করার জন্য আন্দোলন

31 জুলাই 2011

সারাহ শোওর্ড , ইরানের একটি নির্জন কারাগারে ৪১০ দিন কাটায়, তার বিরুদ্ধে গুপ্তচর বৃত্তির অভিযোগ আনা হয়েছিল। এখন সে তার বন্ধু শেন বাউয়ের এবং জস ফাত্তাল-এর মুক্তির জন্য বিশ্বের কাছে আবেদন জানাচ্ছে, যারা এখনো ইরানের কারাগারে বন্দী। জুলাই, ২০০৯-এ ইরানের সীমান্ত এলাকায় ভ্রমণের সময় তাদের তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়।

পোস্টটি পড়ুন

গুয়াতেমালার ডিপুকিডসঃ সংসদে এক নতুন প্রজন্ম

29 জুলাই 2011

গুয়াতেমালায় এক নতুন প্রজন্মের রাজনীতিবীদের আগমন ঘটেছে যাদের বয়স ৩০-এর নীচে। তাদের ডিপুকিডস নামে অভিহিত করা হচ্ছে। তারা এক বিতর্কের জন্ম দিয়েছে। তারা উত্তমরূপে শিক্ষত এবং অনেক দেশ ঘুরে এসেছে। তাদের অনেকে দেশটির উচ্চ শ্রেণী থেকে আগত। যাদের দ্বারা তারা নির্বাচিত হবে, আদৌ কি তারা তাদের প্রতিনিধিত্ব করবে?

পোস্টটি পড়ুন

তুরস্কঃ ইস্তাম্বুলের রাস্তায় সংঘর্ষ ছড়িয়ে পরার প্রেক্ষাপটে জাতিগত উত্তেজনা আরো বৃদ্ধি পেয়েছে

29 জুলাই 2011

এ মাসের শুরুতে সামরিক বাহিনী এবং কুর্দি বিচ্ছিন্নতাবাদী দল পিকেকে-এর মধ্যে এক সংর্ষের ঘটনা ঘটে। এর ফলে তুরস্কে জাতিগত উত্তেজনা ক্রমশ বাড়তে শুরু করেছে। ২১ জুলাই তারিখে ইস্তাম্বুলের জেইতুনবুরনু এলাকায় এক বড় আকারের সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে, যখন উগ্র জাতীয়তাবাদী তুর্কী একটি দল পিকেকেপন্থী বিডিপে দলের অফিস অভিমুখে যাত্রা শুরু করে এবং সেটি আক্রমণের চেষ্টা করে।

পোস্টটি পড়ুন

তিউনিশিয়া: সময় এখন নির্বাচনের জন্য নাম নিবন্ধন করার

26 জুলাই 2011

১১জুলাই, ২০১১ থেকে তিউনিশিয়ায় ভোটার তালিকায় নাম নিবন্ধন শুরু হয়েছে। এই নিবন্ধন প্রক্রিয়া চলবে ২ আগস্ট পর্যন্ত। তবে পরিসংখ্যান বলছে যে তিউনিশীয় নাগরিকরা তালিকায় নিজেদের নাম নিবন্ধন করতে উদগ্রীব। এ কারণে তিউনিশিয়ার একদল ব্লগার তিউনিশীয় নাগরিকদের ভোটের জন্য নাম নিবন্ধন করার আহ্বান জানিয়ে অনলাইনে এক প্রচারণা শুরু করেছে।

পোস্টটি পড়ুন

ইউক্রেইন: আদালতে তিমোশেঙ্কো নাটক

21 জুলাই 2011

২০১১ সালের জুন মাস থেকে ইউক্রেইনের সাবেক প্রধানমন্ত্রী এবং অরেঞ্জ রেভল্যুশন-এর অন্যতম এক নেত্রী ইউলিয়া তিমোশেঙ্কো রাজধানী কিয়েভে ক্ষমতার অপব্যবহারের দায়ে বিচারাধীন রয়েছেন। অভিযোগ রয়েছে রাশিয়ার সাথে গ্যাস ক্রয়ের ক্ষেত্রে তিনি তার ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন। অপরাধ প্রমাণিত হলে তার দশ বছরের সাজা হতে পারে।

পোস্টটি পড়ুন

তিউনিসিয়া: শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীরা পুলিশের নির্মমতায় ছত্রভঙ্গ

18 জুলাই 2011

গতকাল (১৫ই জুলাই) মন্ত্রীসভার প্রধান কার্যালয়ের বাইরে তিউনিসিয় পুলিশ বিক্ষোভকারীদের নির্মমভাবে ছত্রভঙ্গ করে। বিক্ষোভকারীরা সংস্কারের দাবি জানায়। বিক্ষোভকারীরা তিউনিসিয়ার রাজধানী তিউনিসের ঐতিহাসিক কেন্দ্র কসবা স্কয়ারে তৃতীয়বারের মত অবস্থান নেওয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছিল।

পোস্টটি পড়ুন

মালয়েশিয়া: অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেছেন

18 জুলাই 2011

মালয়েশিয়াতে ১ লাখ লোকের অনুরোধ সংবলিত নাজিব তুন রাজাকের পদত্যাগ দাবির ফেসবুক পাতা তৈরি হওয়ার পর তা ইতোমধ্যেই ২ লাখ সমর্থক সৃষ্টিতে সমর্থ হয়েছে। গত ৯ই জুলাই বারসিহ র‍্যালি ২.০ শুরু হওয়ার আগেই প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবিতে একই দিনে হাজার হাজার লোক রাস্তায় মিছিল করে।

পোস্টটি পড়ুন

তিউনিশিয়া: সরকার সমালোচক সামির ফেরিয়ানির মুক্তির দাবিতে প্রচারণা

18 জুলাই 2011

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন প্রাক্তন জেষ্ঠ্য কর্মকর্তা সামির ফেরিয়ানির মুক্তির দাবিতে তিউনিশিয় ব্লগারদের একটি দল এবং সক্রিয়তাবাদীরা প্রচারণা শুরু করেছে। তাঁকে গত ২৯ মে ২০১১ তারিখে অন্তরীণ করা হয়।

পোস্টটি পড়ুন

মিসর: ৮ জুলাই কেন?

18 জুলাই 2011

মিশরীয়রা আবার তাদের বিপ্লবের কেন্দ্রভূমি তাহরির চত্বরে ফিরে এসেছে। বিপ্লব এখন সমাপ্ত, মুবারক এখন ক্ষমতাচ্যুত আর তাঁর সময়ের শক্তিধর ব্যক্তিবর্গ কারান্তরীণ, তাহলে এখনো কেন তাঁরা বিক্ষোভ করছে? গত জানুয়ারিতে যে লক্ষাধিক লোক তাহরিরে সমবেত হয়েছিল তাঁদের আবার কেন রাস্তায় নেমে আসা উচিত সে বিষয়ে একাধিক ব্লগার তাঁদের অভিমত ব্যক্ত করেছেন।

পোস্টটি পড়ুন

বুলগেরিয়া: প্রধানমন্ত্রী বয়কো বরিসভ বিহীন একটি দিন

18 জুলাই 2011

৫ জুলাই, ২০১১, এই দিনটিতে বুলগেরিয়ার প্রচলিত ধারার প্রচার মাধ্যমের প্রতি এক ধরনের কৌতূহলজনক চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেওয়া হয়। প্রচলিত ধারার প্রচার মাধ্যম কি ফেসবুকে একটি গ্রুপের কার্যক্রম: “প্রধানমন্ত্রী বয়কো বরিসভ ছাড়া একটি দিন” নামক বিষয়কে অনুসরণ করবে - নাকি তারা আগের মত বুলগেরীয় প্রধানমন্ত্রীর কাজকর্ম নিয়ে ক্রমাগত সংবাদ প্রদান করে যাবে?