বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

আসন্ন টোকিও অলিম্পিক অনুষ্ঠানে জাপানি সমাজ বিভক্ত

tokyo 2020 olympics covid

টুইটারের প্রকাশ্য অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রামিং ইন্টারফেস ব্যবহার করে গ্লোবাল ভয়েসেস এই গ্রীষ্মে অনুষ্ঠেয় টোকিও অলিম্পিক গেমসের নিয়ে জনসাধারণের অনুভূতি পরিমাপ করতে ২৫ লক্ষেরও বেশি জাপানি ভাষার টুইট বিশ্লেষণ করেছে। ডেনিস অ্যামিথের তোলা ছবি: “টোকিও ২০২০ অলিম্পিক/ প্যারাঅলিম্পিক গেমস।” ফ্লিকার থেকে নেওয়া। সিসি বাই-এনসি ২.০ লাইসেন্স।

দুই মাসেরও কম সময় পরে এই গ্রীষ্মে টোকিও অলিম্পিকের উত্তেজনা বাড়াতে জাপান সরকার ও অন্যান্য সমর্থকদের সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা সত্ত্বেও জনমত জরিপ এবং সামাজিক গণমাধ্যমের মন্তব্যের স্রোত অনুসারে দেখা যাচ্ছে যে বেশিরভাগ জাপানি জনগণ গেমসটি বাতিল করতে চায়।

কোনরকম থামাথামি ছাড়াই জাপানের ক্রমবর্ধমান সংক্রমণ অলিম্পিক গেমসের বিরুদ্ধে জনমতকে প্রভাবিত করেছে। এই বসন্তে “চতুর্থ তরঙ্গে”  টোকিও এবং ওসাকা অঞ্চলে উল্লেখযোগ্য প্রাদুর্ভাব বৃদ্ধি পেয়ে ২০২১ সালের মে মাসের শেষ দিক পর্যন্ত পরীক্ষায় জাপানে ৭ লক্ষেরও বেশি লোকের কোভিড-১৯ সনাক্ত হয়েছে।

২০২১ সালের এপ্রিল মাসে আশাহি শিম্বুন পত্রিকা পরিচালিত একটি জরিপে সংক্রমণের ক্রমবর্ধমান তরঙ্গ যখন জাপানে জরুরি অবস্থা উস্কে দিয়েছিল ৬৯ শতাংশ উত্তরদাতা ২৪ জুলাই থেকে শুরু হতে যাওয়া টোকিও অলিম্পিকটি বাতিল অথবা আবার স্থগিত করার ইঙ্গিত দেয়।

এক মাস পর মে মাসে, মেইনিচি শিম্বুন পত্রিকা পরিচালিত আরেকটি ভিন্ন জরিপে ৬৩ শতাংশ উত্তরদাতা অলিম্পিক বাতিল বা স্থগিতের ইঙ্গিত দিয়েছে। একই সময়ে আসাহি টিভি পরিচালিত একটি জরিপে ৮০ শতাংশ জাপানি জনগণ অলিম্পিক স্থগিত বা বাতিল করতে চায়।

জাপানি রাজনীতিবিদরা গেমসটি চালিয়ে যাওয়ার জন্যে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হলেও জনগণ টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে সামান্যই অগ্রগতি দেখছে। সাম্প্রতিক প্রতিবেদনগুলিতে এসেছে যে ভ্যাকসিনের দুষ্প্রাপ্য সরবরাহ বয়স্ক অলিম্পিক প্রতিযোগীদের একদিকে যেমন দূরে ঠেলে দিচ্ছে, অন্যদিকে একজন প্রবীণ চিকিৎসা পরামর্শক গেমসকে পরিকল্পনা অনুযায়ী অনুষ্ঠিত করার বিষয়ে গুরুতর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

এই গ্রীষ্মে অলিম্পিক গেমস অনুষ্ঠিত হবে কিনা তা নিয়ে আলোচনা সামাজিক গণমাধ্যমেও ছড়িয়ে পড়েছে। টুইটারের পাবলিক এপিআই ব্যবহার করে গ্লোবাল ভয়েসেস ৯ মে থেকে ১৬ মে, ২০২১ এর মধ্যে জাপানি “オリンピック” অথবা “五輪” (অলিম্পিকের জন্যে সাধারণ জাপানি) শব্দগুলি যুক্ত  ২৫ লক্ষেরও বেশি জাপানি ভাষার টুইট বিশ্লেষণ করেছে। অলিম্পিকের পৃষ্ঠপোষকতা চালিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা নিয়ে সাধারণ জাপানিরা কী চিন্তা করে আমরা সেটা জানতে চেয়েছিলাম।

আমরা দেখেছি যে টুইটারের মতামত জনমত জরিপে প্রকাশিত মনোভাবকে প্রতিফলিত করলেও সামাজিক গণমাধ্যমগুলির বিভিন্ন মন্তব্যের জনমত গবেষণা থেকে আরো বিভিন্ন রকম মতামত রিপোর্ট করা যেতে পারে।

৯ মে থেকে ১৬ মের মধ্যকার “オリンピック” অথবা “五輪” শব্দযুক্ত ২৫ লক্ষের বেশি টুইটের মধ্যে প্রায় ৭৯.২৫ শতাংশই ছিল রিটুইট। টুইটের এই বিপুল সংখ্যা ইঙ্গিত দেয় যে টুইটার ব্যবহারকারীরা অলিম্পিক কথোপকথনের সাথে পরিচিত এবং এ বিষয়ে খুবই আগ্রহী।

আমরা এটাও আবিষ্কার করেছি যে সর্বাধিক পুনঃটুইট করা মাত্র ১,৯২৪টি টুইট অলিম্পিক কভার করা সমস্ত টুইটের ৫০ শতাংশ। সুতরাং, আমরা এই তুলনামূলকভাবে অল্প সংখ্যক জনপ্রিয় টুইটের প্রতি মনোনিবেশ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

আমরা সর্বাধিক পুনঃটুইট করা ১,৯২৪টি টুইটকে অলিম্পিকের পৃষ্ঠপোষকতা সমর্থনকারী টুইট, অলিম্পিকের পৃষ্ঠপোষকতা বিরোধিতা করা টুইট এবং “অন্যান্য টুইট” হিসেবে শ্রেণীবদ্ধ করেছি। পঁচাশি শতাংশ টুইট অলিম্পিকের বিরোধিতা করেছে এবং এগুলি মোট ১০ লক্ষ বারেরও বেশি পুনঃটুইট করা হয়েছে।

olympics sentiment

টুইটারের প্রকাশ্য এপিআই ব্যবহার করে গ্লোবাল ভয়েসেস ২৫ লক্ষেরও বেশি জাপানি ভাষার টুইট বিশ্লেষণ করে ১,৯২৪ টি সর্বাধিক-পুনঃটুইট করা টুইট পরীক্ষা করে দেখা গেছে এগুলিই সংখ্যায় আমাদের ডেটাসেটের ৫০ শতাংশের বেশি। আমরা এই রিটুইট করা টুইটগুলিকে অলিম্পিকের পৃষ্ঠপোষকতা বিরোধিতা করা টুইট এবং “অন্যান্য টুইট” হিসেবে শ্রেণীবদ্ধ করেছি। পঁচাশি শতাংশ টুইট অলিম্পিকের বিরোধিতা করেছে এবং এগুলি মোট ১০ লক্ষ বারেরও বেশি পুনঃটুইট করা হয়েছে।

আমাদের ডেটাসেটে অলিম্পিকের সমর্থনে মাত্র ১৫টি খুবই জনপ্রিয় টুইট রয়েছে। এই ১৫টি টুইট ৬,৫২৯ বার রিটুইট করা হয়েছে এবং জনপ্রিয় অলিম্পিক প্রতিযোগীদের সম্পর্কে আলোচনাসহ বেশিরভাগই গেমসের ইতিবাচক দিকগুলির প্রতি মনোনিবেশ করেছে।

তারপরেও অলিম্পিকের সমর্থনকারী টুইটের পরিমাণ আমাদের ডেটাসেটের ১ শতাংশেরও কমের প্রতিনিধিত্ব করে। খুব কম লোকই টুইটারে অলিম্পিকের উজ্জ্বল দিক নিয়ে কথা বলেছে যা গেমসের প্রতি জাপানের নেতিবাচক মনোভাবের প্রতিফলিত করে।

পাশাপাশি, টুইটারের এপিআইয়ের দেওয়া তথ্য অনুসারে, বিভিন্ন পেশাগত পটভূমির লোকেরা অলিম্পিক সম্পর্কে টুইট করেছে। সাংস্কৃতিক শিল্পে কর্মরত ব্যক্তিরাই সবচেয়ে বেশি টুইট করেছে:

whos tweeting

গ্লোবাল ভয়েসেস ২৫ লক্ষেরও বেশি জাপানি ভাষার টুইটগুলি বিশ্লেষণ করে দেখেছে সর্বাধিক-পুনঃটুইট করা ১,৯২৪টি টুইট যা আমাদের ডেটাসেটের ৫০ শতাংশেরও বেশি কভার করেছে। বিভিন্ন পেশাগত পটভূমির লোকেরা অলিম্পিক সম্পর্কে টুইট করেছে।

আমাদের ডেটাসেটের আরেকটি অন্তর্দৃষ্টি হলো সর্বাধিক পুনঃটুইট করা টুইটগুলি অলিম্পিককে কোভিড-১৯ এবং কোভিড সম্পর্কিত বিষয়ের সাথে যুক্ত করেছে। সম্পর্কিত বিষয়গুলির মধ্যে অনেক টুইট অলিম্পিক বিরোধী, যার মধ্যে মহামারীটির প্রতি জাপানি সরকারের প্রতিক্রিয়ার সমালোচনা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

এর একটি উদাহরণ হলো, আমাদের ডেটাসেটে সর্বাধিক পুনঃটুইট করা টুইট গবেষণার সময়কালে ১৮,০০০ বারেরও বেশি বার এবং জুনের প্রথমদিক পর্যন্ত ৩৬,০০০ এরও বেশি বার পুনঃটুইট করা হয়েছে।

আমরা আবারো বিদ্যালয়ের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা এবং বিদ্যালয়ের মেলা আবার অনুষ্ঠিত হতে দেখতে চাই। আমরা বন্ধুদের সাথে আবারো ডিজনিল্যান্ডে বা বিনোদন পার্কে, কনসার্টে এবং ইভেন্টগুলিতে যেতে চাই এবং জীবনকে আনন্দদায়ক করে তোলে শুধু এমন কিছু করতে চাই। [গত এক বছরে এবং মহামারীর সময়ে] আমরা যেভাবেই হোক এতো কিছু সহ্য করেছি তা নিশ্চয়ই আমাদেরকে অলিম্পিকের জন্যে উৎসর্গ করার জন্যে নয়।

টুইটটি কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধ করতে গিয়ে বিভিন্ন লকডাউন এবং জরুরী অবস্থার কারণে অনেক অনুষ্ঠান এবং কর্মকাণ্ড বাতিল করার বাস্তবতা মনে করিয়ে দেয়। একইভাবে অলিম্পিক সম্পর্কিত জনসমাবেশকে উৎসাহিত করতে জাপানি সরকার অলিম্পিকের জন্যে ৮ লক্ষ শিক্ষার্থী এবং কয়েক হাজার অন্যান্য দর্শককে বাসে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছে বলে মনে হচ্ছে।

আমাদের ডেটাসেটে থাকা অলিম্পিকের বিরোধিতা করা অন্যান্য জনপ্রিয় টুইটগুলি মহামারীটি শেষ হওয়ার পর জনগণ প্রতিদিনের যে জীবন ফিরে যাওয়ার আকাঙ্ক্ষা করে সে তুলনায় শুধুমাত্র বোঝা হিসেবে অনুষ্ঠানটি আয়োজন করার দিকটি নির্দেশ করে:

[অর্থনীতিবিদ, জাপানের মন্ত্রীসভার উপদেষ্টা, এবং পেশাদার পন্ডিত] তাকাহাশি ইয়োয়চি বিরক্ত হয়ে বলেছেন, “আপনি অলিম্পিক গেমস বাতিল করলে আপনাকে অন্যান্য সমস্ত খেলাধুলাও বাতিল করতে হবে।” ব্যক্তিগত খেলাধূলার অনুষ্ঠানগুলিতে ১০,০০০ চিকিৎসা কর্মী এবং ৫০০ নার্স এবং ২০০ ক্রীড়া চিকিৎসককে বিনা খরচে সহযোগিতা করার প্রয়োজন হয় না। মোটকথা, তারা রক্ত-ঘামে অর্জিত লক্ষ-কোটি ইয়েন অপচয় করে না।

গেমসটির প্রতি রাগ এবং অন্যান্য অনুভূতিগুলির পরিমাণ নির্ধারণ করা কঠিন হলেও জনপ্রিয় অন্যান্য টুইটগুলি গেমসটির প্রতি জনগণের বিরোধিতার ফলাফল প্রদর্শন করে। উদাহরণস্বরূপ, অলিম্পিকের জন্যে স্বেচ্ছাসেবক কর্মী সংকট সম্পর্কিত সংবাদের এই টুইটটি ৯ই মে থেকে ১৬ মে তারিখের ৪,৮০২ বার রিটুইট হয়েছে:

টোকিও অলিম্পিক সকার প্রতিযোগিতার অনুশীলন ভেন্যু ইবারাকি প্রিফেকচারাল কাশিমার সকার স্টেডিয়ামে [অলিম্পিক চলাকালীন] চিকিৎসা স্বেচ্ছাসেবীর কাজ করবেন বলে প্রত্যাশিত নার্সদের প্রায় ৭০ শতাংশই সেটা করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। অলিম্পিকের জন্যে চিকিৎসা  কর্মীদের নিশ্চিত করা যে কঠিনতর হয়ে উঠছে, সেটা স্পষ্ট।

নিবন্ধের শিরোনাম: ৭০% স্বেচ্ছাসেবক অলিম্পিকে অংশ নিতে অস্বীকার করেছে

চূড়ান্তভাবে বলা যায়, টুইটারে যারা সমর্থন করে এবং যারা গেমসের বিরোধিতা করে তাদের মধ্যে মারাত্মক বিভাজন রয়েছে। উদাহরণস্বরূপ, সর্বাধিক পুনঃটুইট করা কিছু টুইটের কোন বিশ্বাসযোগ্য সংবাদ উৎস এবং ঘটনা বা জানা-শোনার ভিত্তি নেই।

উদাহরণস্বরূপ, আমাদের গবেষণা সময়কালে গেমসের সমর্থনে করা সর্বাধিক পুনঃটুইট করা টুইটটি করেছেন অর্থনৈতিক নীতি সম্পর্কে জাপান সরকারের পরামর্শক পন্ডিত তাকাহাশি ইয়োচি, যার কোভিড -১৯, সংক্রামক রোগ বা জনস্বাস্থ্য বিষয়ে কোন বিশেষ দক্ষতা নেই:

[অন্যান্য দেশের তুলনায়] জাপানের মহামারীটি ঢেউয়ের একটি কম্পন মাত্র। আপনি কি *এর* উপর ভিত্তি করে অলিম্পিকটি বাতিল করতে চান? অনেক_হাসি অনেক_হাসি

২০২১ সালের মে মাসে ২৫ লক্ষ টুইটের নমুনা অনুসারে, জাপানি জনসাধারণ সাধারণভাবে এই গ্রীষ্মে অন্তত টোকিও অলিম্পিক আয়োজনের বিরোধিতা করেছে। গেমসের এই বিরোধিতা সম্ভবত সরকারের কোভিড-১৯ মহামারী মোকাবেলা তথা সংক্রমণের বিস্তার থামিয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে লকডাউন নিয়মের পরিপন্থী প্রকাশ্য অনুষ্ঠানগুলির পরিকল্পনা সম্পর্কে জনসাধারণের দুর্বল ধারণার কারণে।

গেমসের সমর্থনে ইতিবাচক টুইট খুঁজে পাওয়াও দুস্কর। পরিবর্তে, বেশিরভাগ জনপ্রিয় সমর্থক টুইটগুলি সাধারণত গেমসবিরোধীদের আক্রমণ করে, অথবা সন্দেহজনক বিশ্বাসযোগ্যতার উৎস থেকে আসা। এমনকি অলিম্পিকটির সর্বাধিক সমর্থনকারীদেরও বলার মতো ইতিবাচক খুব কমই রয়েছে বলে মনে হয়।


নেভিন থম্পসন এই নিবন্ধটিতে অবদান রেখেছেন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .