বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উহান থেকে কোভিড -১৯ দিনলিপি: জনগণ স্বজনদের জন্যে মন খুলে শোক প্রকাশ করতে পারছে না!

উহানের একটি নির্মাণ স্থল  আবার কর্মকাণ্ড শুরু করেছে। (ছবির কৃতজ্ঞতা: গুও জিং। অনুমতি নিয়ে ব্যবহার করা হয়েছে।)

স্বাধীন চলচ্চিত্র নির্মাতা নারীবাদী পণ্ডিত এই জিয়াওমিং এবং নারীবাদী কর্মী গুও জিং রচিত ধারাবাহিক দিনলিপির মধ্যে নীচের পোস্টটি চতুর্দশ। দুজনই কোভিড-১৯ মহামারীর কেন্দ্রস্থল উহান শহরে বসবাস করছেন এখানে ধারাবাহিকটির প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয়চতুর্থ, পঞ্চম,  ষষ্ঠ. সপ্তম, অষ্টম, নবম, দশমএকাদশ, দ্বাদশ এবং ত্রয়োদশ অংশের সংযোগ রয়েছে

কোভিড-১৯ এর বৈশ্বিক প্রভাব সম্পর্কে গ্লোবাল ভয়েসেসের বিশেষ কভারেজটি দেখুন। 

এই কিস্তিটি ২০২০ সালের ২৩ মার্চ থেকে ২৭ মার্চ তারিখের মধ্যে লেখা হয়েছে। চীনা ভাষায় লেখা মূল দিনলিপিগুলি ম্যাটার নিউজে প্রকাশিত হয়েছে।

গুও জিং: ২৩ মার্চ, ২০২০

我今天没有下楼,在房间里工作、写日记。前几天有个被领导性骚扰的女性打074热线来咨询,她把自己的经历发了朋友圈,结果有几个女同事说她们也曾被这个领导性骚扰。她们联合起来向公司投诉,要求公司调查处理。今天,这名咨询者告诉我,公司调查后决定开除骚扰者,并在内部发了公告。真是个难得的好消息。
今天似乎回到了封城前的生活,可是我心里又知道无法回到过去。我们有时候想回到过去是怀念曾经某个时刻的美好,或者想要逃避现在的痛苦。
其实,我内心一直抗拒去适应现在的生活,人为了适应变态的生存环境必然要做出一些妥协。我不想做太多的妥协,更害怕妥协成为习惯,想要坚守那些我珍视的信念

আমি আজ বাইরে যাইনি। আমি বাড়িতে কাজ করেছি, ডায়েরি লিখেছি। বেশ কয়েকদিন আগে, একজন মহিলা তার উচ্চপদস্থের কাছে অপদস্থ হয়ে হটলাইনে ফোন করেছেন। তিনি তার অভিজ্ঞতা সামাজিক গণযোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করলে তার কয়েকজন নারী সহকর্মীও একই ব্যক্তির কাছে হয়রানির শিকার হওয়ার কথা জানায়। তারা একসাথে অভিযোগ দায়ের করে সংস্থাটিকে তদন্ত করতে বলেছে। আজ তিনি আমাকে বলেছেন যে তার সংস্থা সেই হয়রানকারীকে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছে। এটি একটি বিরল সুসংবাদ।

আজ লকডাউনের আগের স্বাভাবিক দিনের মতো মনে হচ্ছে। তবে আমি জানি জীবন আর আগের মতো হবে না। অতীতে ফিরে আসার আকাঙ্ক্ষা আমাদের পুরানো সুদিনের স্মৃতি বা আমাদের এখনকার ব্যথা থেকে বেঁচে থাকার ইচ্ছের সাথে জড়িত।

আমি বর্তমান পরিস্থিতিতে অভ্যস্ত না হওয়ার পক্ষপাতি। বিকৃত পরিবেশের সাথে খাপ খাইয়ে নিতে হলে আপস করতে হয়। আমি খুব বেশি আপস করতে চাই না, অন্যথায় আপস করা অভ্যাসে পরিণত হবে। আমি আমার বিশ্বাসকে আঁকড়ে ধরে রাখতে চাই

গুও জিং: ২৪ মার্চ, ২০২০

这几天无症状感染者让大家充满了疑惑和担忧,自己是不是无症状感染者,身边是否有无症状感染者。昨天财新的报道指出,武汉最近每天还能检测出几例或十几例无症状感染者,但并没有计入确诊病例。
无症状感染者的存在无疑增加了疫情的防控难度。
现在很多省份的新增确诊病例都是从境外入境的人。我们要怎么应对疫情的这一新发展趋势呢?我真心希望不要再有封锁了,再次封锁简直就是酷刑,尤其是对武汉人而言,我们经不住这样的折磨啦。我们要做好防护和救治,而不是隔离
中午,湖北省新型冠状病毒感染肺炎疫情防控指挥部发了通告,4月8日零时起,武汉市解除离汉离鄂通道管控措施,有序恢复对外交通,离汉人员凭湖北健康码“绿码”安全有序流动。
这算是一个好消息。
有人问我会不会离开武汉。短期内没有特别的理由我不会离开。我已经对此类消息变得无感了。我不再每天一醒来就去看最新的疫情信息了。解封不代表这次疫情的结束,可能还是会有人不敢出门,很多后遗症也都需要面对。我现在都很难想象大家都不戴口罩出门的场景。
去年在广州跟一群热爱运动的朋友成立了一个女子登山队,前些日子大家在讨论五一去四姑娘山徒步。那个时候我说好想去。今天,她们倒是高兴地说:“郭晶可以出来啦!!”
我好像没啥信心,说:“哎呀,不知道到时候会咋样呢。”有人说:“还是可以期待一下!”有人说:“到时候就重获自由了!”我收到了一些鼓励,说:“好吧,我期待一下!”

সম্প্রতি লোকেরা “লক্ষণবিহীন ভাইরাস বাহক”দের সম্পর্কে বিভ্রান্ত ও চিন্তিত। আমরা কি লক্ষণ ছাড়াই সংক্রামিত হই? আমার চারপাশের লোকেরা কি লক্ষণ ছাড়াই সংক্রমিত হয়? গতকাল একটি কায়জিন প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে যে সম্প্রতি উহানে প্রতিদিন প্রায় ডজনখানেক লোক লক্ষণ ছাড়াই সংক্রমিত হচ্ছে। তবে এগুলি নিশ্চিত ঘটনা হিসেবে গণনা করা হচ্ছে না।

সন্দেহ নেই যে লক্ষণবিহীন সংক্রমিত ঘটনাগুলি এই মহামারীটির অবসান কঠিন করে তুলবে।

এখন অনেক প্রদেশের নতুন নিশ্চিত ঘটনাগুলি আমদানি করা। কীভাবে আমরা এই নতুন প্রবণতাটিকে মোকাবেলা করতে পারি? আমি সত্যিই আশা করি যে আমাদের আর লকডাউন করতে হবে না। বিশেষত উহানের জনগণের জন্যে এটা একটা নির্যাতন হবে। আমরা আবার এই ধরনের নির্যাতন সহ্য করতে পারবো না। বিচ্ছিন্নতার পরিবর্তে সুরক্ষা এবং চিকিৎসার দিকে আরো বেশি নজর দিতে হবে
এই দুপুরে হুবেই প্রদেশের কোভিড-১৯ মহামারী প্রতিরোধ কেন্দ্র ঘোষণা করেছে যে ৮ এপ্রিল উহান শহর যান চলাচলের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করবে। হুবেই স্বাস্থ্য সংকেত ব্যবস্থার জারি করা “সবুজ সংকেত” নিয়ে উহানের জনগণ অন্যান্য জায়গায় ভ্রমণ করতে পারবে।

এটা আসলেই সুসংবাদ।

লোকেরা আমাকে জিজ্ঞাসা করেছিল আমি উহানকে ছেড়ে যাবো কিনা। অপ্রত্যাশিত কিছু না ঘটলে আমার এ জাতীয় কোন পরিকল্পনা নেই। মহামারী সংক্রান্ত সংবাদ সম্পর্কে আমার কোন অনুভূতি নেই এবং ঘুম থেকে ওঠার পরে প্রতিদিন আর সর্বশেষ তথ্য পরীক্ষা করে দেখি না। লকডাউন তুলে নেওয়ার অর্থ এই মহামারীটির পরিসমাপ্তি নয়। খুব সম্ভবত কিছু লোক এখনো বাইরে যেতে সাহস করছে না। মহামারীটির উদ্ভূত ফল এখনো ফিরে ফিরে আসছে। এই মুহুর্তে আমি মুখোশ ছাড়া জনগণের বাইরে বেরুনোর ​​কথা কল্পনা করতে পারি না

গত বছর আমি এবং বাইরের কর্মকাণ্ড পছন্দ করা গুয়াংজুর কিছু বন্ধু মিলে নারীদের একটি হাইকিং ক্লাব প্রতিষ্ঠা করেছিলাম। বেশ কয়েকদিন আগে আমরা মে দিবসের ছুটিতে সিগুনিয়াং পর্বত আরোহনের প্রসঙ্গ তুলেছিলাম। আমি বলেছিলাম আমার যেতে ভাল লাগবে। আজ তারা আনন্দের সাথে বলেছে, “গুও জিং এখনই আমাদের সাথে যোগ দিতে পারে!!”

তবে আমি ততোটা আত্মবিশ্বাসী নই। আমি বলেছি, “আমি জানি না কী হবে।” কেউ একজন বলেছে, “আপনার আশান্বিত হওয়া উচিৎ।” অন্য কেউ বলেছিল, “ততদিনে আপনি মুক্ত হয়ে যাবেন।” উৎসাহিত হয়ে আমি বলেছি, “আচ্ছা, আমি আশাবাদী থাকবো।”

গুও জিং: ২৫ মার্চ, ২০২০

我羡慕那些在外面的人,就问门口的社区工作人员:“我们什么时候可以出去呀?”他说:“现在有复工证明才能出,现在主要是为了复工。”

যারা বাইরে যেতে পারে তাদেরকে আমি ঈর্ষা করি। আমি সদর দরজায় থাকা কমিউনিটি কর্মীদের জিজ্ঞেস করেছি, “আমরা কখন বাইরে যেতে পারবো?” সে বলেছে, “এখন কেবলমাত্র কাজের পাস যাদের আছে তারা বাইরে যেতে পারবে; বর্তমান ব্যবস্থাটি মূলত আবার কাজ শুরু করার জন্যে।“

গুও জিং: ২৬ মার্চ, ২০২০

今天有人在微博上发了一张照片,内容是汉口殡仪馆门口领骨灰的长队,很快这条微博就不见了。有人写下自己去汉口殡仪馆的经历,TA在里面待了两个小时,人们大都是默默地抱着遗照在对接点等待,或抱着骨灰盒离开,殡仪馆很安静。TA要离开的时候一个女人放声大哭,大家呆呆地看着她。
网友说殡仪馆到处都是便衣,甚至一抬手机就有人上前制止。有不少人说去领骨灰盒的时候有社区工作人员的“陪同”。人们的哀悼也被看管了起来,真是荒谬至极。他们的家人去世了,他们很多人都没能跟家人见上最后一面,现在又不能以自己的方式哀悼逝去的亲人,这是何等的压制。

আজ কোন একজন ওয়েইবোতে হানকাউ অন্তেষ্টিক্রিয়া প্রতিষ্ঠানের বাইরে আত্মীয় বা বন্ধুবান্ধবদের দেহভস্মের জন্যে অপেক্ষারত জনগণের একটি দীর্ঘ সারি দেখানো একটি ছবি পোস্ট করেছে। ছবিটি খুব দ্রুতই মুছে ফেলা হয়েছে। কেউ হানকাউ অন্তেষ্টিক্রিয়া প্রতিষ্ঠানে তাদের অভিজ্ঞতার কথা লিখেছে। তারা সেখানে দুই ঘন্টা অবস্থান করেছেন। বেশিরভাগ লোক মৃত ব্যক্তির প্রতিকৃতি হাতে নিয়ে নিঃশব্দে অভ্যর্থনায় অপেক্ষা করেছেন। কেউ কেউ দেহভস্ম নিয়ে গেছে। চলে যাওয়ার সময় একজন মহিলা নীরবতা ভেঙে কান্নায় ফেটে পড়ে। অন্যরা কেবল তার দিকে তাকিয়ে থাকে।

সেই একই নেটনাগরিক জানিয়েছেন যে অন্তেষ্টিক্রিয়া প্রতিষ্ঠানে অনেক সাদা পোশাকের পুলিশ ছিল। কেউ মুঠোফোন বের করলে তাকে [সাদা পোশাক পরিহিতরা] থামিয়ে দেয়। অনেকে বলেছে দেহভস্ম নিতে যাওয়ার সময় কমিউনিটি কর্মীরা তাদের “সঙ্গী” হয়েছিল। এটি খুবই হাস্যকর যে জনগণের শোক তদারকি ও পর্যবেক্ষণ করতে হয়েছে। তাদের পরিবারের সদস্যরা মৃত্যুবরণ করেছে। অনেকেই তাদের প্রিয়জনদের বিদায় জানাতে পারেনি। এখন তাদের স্বজনদের মৃত্যুতে মুক্তভাবে শোক প্রকাশ করার অনুমতিও নেই। কতটা দমনমূলক!

গুও জিং: ২৭ মার্চ, ২০২০

新冠肺炎在全球范围的传播对全球化的经济结构将会带来什么样的影响?很多外贸厂的外贸订单被取消,涉及的行业有服装、玩具、电子等,很多厂被迫关停。这些外贸厂的工人想复工也没得复了。
很多产业开始大规模地缩水,接下来会有大规模的失业。很多人都没有存款,还背负着房贷、房租等,几个月没有收入生活就会难以为继。很多人在城市里都是外来者,如果在城市里生活不下去,就必然要回到农村。
复工也并非易事。现在武汉关于复工的规定尚不明确,不知道哪些行业可以复工。湖北其它城市去外地复工的人也遇到种种困难,一个交流出城、复工经验的群里有人说,他到重庆后要做核酸检测加居家隔离7天才能上班。
还有的地方依然在拒绝湖北人。今天,江西九江拒绝湖北人入内,在湖北黄梅小池桥头设置封锁线,结果两地警察发生冲突,引来了很多人的聚集。
晚上十一点多,天又下起了雨,连续下了好几个小时。睡觉的时候,风吹得窗户晃荡地响,时而传来工地上的木板、钢条、铝片被吹倒的撞击声。
想到那些无法以自己的方式哀悼逝去的亲朋的人,想到那些在为生计焦虑着的人,想到那些住在桥洞里的人,想到那些和我一样还被困着的武汉人,我久久难以入睡。很多人和此刻的武汉一样在暴风雨的敲击中,在灾难带来的暴风雨后,人们会像那些被吹倒的房屋一样需要重建。

এই কোভিড-১৯ মহামারী কীভাবে বিশ্ব অর্থনীতি পরিবর্তন করবে? বিপুল সংখ্যক বিদেশী বাণিজ্যের আদেশ বাতিল হয়েছে। পোশাক, খেলনা, ইলেকট্রনিক্স ইত্যাদি তৈরির অনেক কারখানা বন্ধ হয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে। তাদের কর্মীরা আর কাজে ফিরতে পারবে না।

উৎপাদন খাত সংকুচিত হওয়ার সাথে সাথে কর্মচারীরা তাদের চাকরি হারাবে। অনেকের বেশি সঞ্চয় না থাকলেও তাদের বন্ধক বা ভাড়া দিতে হবে। কয়েক মাস পর তারা নিজেরাই টিকতে পারবে না। অনেক শ্রমিক পল্লী অঞ্চল থেকে শহরগুলিতে আসে। তারা শহরে নিজেদের জীবন ধরে রাখতে না পারলে তাদের গ্রামে ফিরে যেতে হবে।

উৎপাদন পুনরায় শুরু করা সহজ কাজ নয়। বর্তমানে আমাদের উহানে সুস্পষ্ট কোন নির্দেশনা নেই। আমাদের কোন ধারণা নেই যে কোন খাতগুলিকে পুনরায় উৎপাদন শুরু করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। হুবাইতে থাকা অন্যান্য অঞ্চলের লোকেরা অন্য শহরে চলে যেতে চাইলে তাদেরকে প্রচুর সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে। আমাদের চ্যাটরুমে কোন একজন বলেছিল কাজের জন্যে চঙকিংয়ে পৌঁছানোর পরে তাদের একটি পিসিআর পরীক্ষা এবং ৭দিনের জন্যে কোয়ারেন্টাইন করতে বলা হয়েছে।
কিছু কিছু অঞ্চল এখনো হুবেই প্রদেশের লোকদের প্রবেশ করতে দেয় না। আজ জিয়াংজি প্রদেশের জিউজিয়ান শহর হুবেই থেকে আসা মানুষদের জিউজিয়ানে প্রবেশ করতে বাধা দেওয়ার জন্যে হুয়াংমেই শহরের একটি সেতুর উপরে অবরোধ স্থাপন করেছে। সেতুর উপর দু'টি প্রদেশের পুলিশ সদস্যদের মধ্যে সংঘর্ষ হলে ঘটনাস্থলে বিপুল জনসমাগম হয়।

আজ রাত ১১টার দিকে আবারো বৃষ্টি শুরু হয়। কয়েক ঘন্টা ধরে বৃষ্টি চলে। আমি বিছানায় যাওয়ার সময় ঝড়ো বাতাস জানালার সাথে বাড়ি খেয়ে প্রচুর শব্দ করছিল। কাছের কোন নির্মাণ স্থল থেকে কাঠের পাটাতন, লোহার দণ্ড এবং অ্যালুমিনিয়ামের তক্তার ঝনাৎ ঝনাৎ শব্দ শুনতে পাচ্ছিলাম।

আত্মীয়স্বজন ও বন্ধুবান্ধবদের জন্যে মুক্তভাবে শোক করতে না পারা, চাকরি ও সঞ্চয় নিয়ে উদ্বিগ্ন, সেতুর নীচে বসবাস করা গৃহহীন এবং উহানে আমার মতো আটকে পড়া লোকদের নিয়ে ভাবতে থাকায় আমি ঘুমিয়ে পড়তে পারছিলাম না। এই মুহুর্তে উহানের মতোই অনেক লোক ঝড়ের মাঝে পড়ে রয়েছে। ঝড়ের পরে আমাদেরকে উড়ে যাওয়া এসব দালান-কোঠার মতোই আমাদের জীবনকেও পুনর্নির্মাণ করতে হবে

1 টি মন্তব্য

আলোচনায় যোগ দিন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .