বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

কম্বোডীয় প্রধানমন্ত্রীর কোভিড-১৯ সম্পর্কিত পরামর্শ উদ্ধৃত করায় অনলাইন সাংবাদিক আটক

পুলিশ দপ্তরের ভেতরের ছবিটিতে একমাত্র মুখোশ ছাড়া একটি স্কার্ফ পরিহিত কম্বোডীয় সাংবাদিক সোভান রিথি। উৎস: নম পেন পৌর পুলিশের ফেসবুক পাতা

কোভিড-১৯ এর বৈশ্বিক প্রভাব সম্পর্কে গ্লোবাল ভয়েসেসের বিশেষ কভারেজটি দেখুন।

প্রধানমন্ত্রী হুন সেনের বরাত দিয়ে একটি ভিডিও প্রতিবেদন প্রকাশের জন্যে ২০২০ সালের এপ্রিল মাসে ডিজিটাল সংবাদ সংস্থা এফবিটিভির কম্বোডীয় সাংবাদিক সোভান রিথিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এই প্রতিবেদনে সরকারের কাছে অনানুষ্ঠানিক কর্মীদের সহায়তার জন্যে কোন অর্থ না থাকার কারণে কোভিড -১৯ মহামারী চলাকালে দেউলিয়া না হতে মোটরবাইক ট্যাক্সি চালকদের তাদের মোটরসাইকেলগুলি বিক্রি করে দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন হুন সেন। এসময় রাষ্ট্রপতি কোভিড -১৯ এর সময় সরকারের চলাচল নিষেধাজ্ঞা এবং ব্যবসায়িক কার্যক্রম কমিয়ে দেওয়ার মতো পদক্ষেপগুলি কার্যকর করার অর্থনৈতিক প্রভাব নিয়ে আলোচনা করার সময় এই মন্তব্য করেন।

তবে পুলিশ বলেছে যে প্রধানমন্ত্রী মজা করছিলেন তাই বিভ্রান্তি এড়াতে জনসাধারণের মধ্যে এর পুনরাবৃত্তি করা উচিৎ নয়। তারা রিথকে ফৌজদারি বিধির ৪৯৪ এবং ৪৯৫ ধারায় “গুরুতর অপরাধ করার জন্যে প্ররোচিত করা”র অভিযোগে গ্রেপ্তার করেছে যার জন্যে ছয় মাস থেকে দুই বছরের কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে। নমপেন পৌর আদালত পরের দিন রিথিকে আটক করার নির্দেশ দেয়।

কর্তৃপক্ষ রিথিকে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন থেকে কোভিড-১৯ সম্পর্কিত অন্যান্য বিষয় নিয়ে প্রতিবেদন করার পরিবর্তে একটি চাঞ্চল্যকর উক্তি নির্বাচন করার দায়ে অভিযুক্ত করে। তবে খেমার ভাষায় প্রচারিত ভয়েস অব আমেরিকার একটি প্রতিবেদনে হুন সেন চালকদের মোটর সাইকেল বিক্রি করতে বলার বিষয়ে কৌতুক করার সময় না হেসেও তিনি একই পরামর্শটি পুনরাবৃত্তি করেছিলেন বলে উল্লেখ করা হয়েছে

রিথিকে গ্রেপ্তার করা ছাড়াও তথ্য মন্ত্রণালয় এফবিটিভির মিডিয়া লাইসেন্স বাতিল করে দেয়।

কম্বোডীয় সাংবাদিক জোটের নির্বাহী পরিচালক নোপ ভি কর্তৃপক্ষকে অভিযোগটি পর্যালোচনা এবং অশুদ্ধি থাকলে প্রতিবেদনটি সংশোধন করার দাবি জানিয়েছেন:

আমি মনে করি, গুরুত্বপূর্ণ দিকটি হলো তার সম্প্রচারটি জাতীয় স্বার্থের কোন ক্ষতি বা বৈষম্য সৃষ্টি করেনি, তাই সরকারকে এই বিষয়টি আবার পর্যালোচনা করার অনুরোধ করছি।

টুইটারে কম্বোডীয় মানবাধিকার কেন্দ্রের সোপহিপ চাক কর্তৃপক্ষকে মামলাটি পরিচালনার ক্ষেত্রে যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে বলেছেন:

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের উদ্ধৃতি দিয়ে করা প্রতিবেদনটি নিয়ে টিভিএফবি প্রকাশককে গ্রেপ্তার এবং জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। মামলাটি এখন আদালতে প্রক্রিয়াধীন থাকায় তাকে এবং তার প্রচার মাধ্যমকে নির্দোষ বলে গণ্য করতে হবে। (আদালতের) প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার আগেই কেন লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে? অভিযোগ প্রমাণের পূর্বে নির্দোষিতা অনুমানের আদর্শ কোথায় গেলো?

সাংবাদিক কেভিন ডোয়েল লিখেছেন গ্রেপ্তারটিকে অন্যান্য গণমাধ্যম সংস্থার জন্যেও হুমকি হিসেবে দেখা যেতে পারে:

কম্বোডিয়ার সমস্ত সাংবাদিককে একটি বার্তা দেওয়ার জন্যে একজন সাংবাদিককে নির্যাতন করা হলো। চ্যালেঞ্জিং সময়গুলিতে নম পেন শাসকগোষ্ঠীর বহুল ব্যবহৃত ব্যবস্থাগুলির একটি। (এভাবে) গ্রেপ্তার করে প্রধানমন্ত্রী কোভিড-১৯ এর কারণে বৈশ্বিক লকডাউনের ফলে পর্যটনের পতন এবং পোশাক উৎপাদনকারী খাতের উপর প্রভাবের মতো চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করা এড়িয়ে যেতে পারবেন না।

সীমান্তবিহীন প্রতিবেদক (আরএসএফ) এর এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের প্রধান ড্যানিয়েল ব্যাস্টার্ড রিথির বিরুদ্ধে করা মামলাটিকে অমূলক বলে বর্ণনা করেছেন:

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের কথাকে হুবহু উদ্ধৃত করার জন্যে একজন সাংবাদিককে কারাদন্ড দেওয়া অর্থহীনতার চেয়েও বেশি কিছু। অবশ্যই অন্ধভাবে সরকারের পথকে অনুসরণ না করা সাংবাদিকদের কাছ থেকে মুক্তি পাওয়ার কোভিড-১৯ সংকটকে অজুহাত হিসাবে ব্যবহার করা উচিৎ নয়।

রিথির বাবা ইতোমধ্যে তার ছেলের পক্ষ থেকে ক্ষমা চেয়ে পুলিশকে মামলাটি বাদ দেওয়ার জন্যে অনুরোধ করেছেন। কম্বোডিয়া কোভিড-১৯ সম্পর্কে ভুল তথ্য পোস্ট করার জন্যে কমপক্ষে ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। তবে মানবাধিকার সংগঠনগুলি বলেছে যে সমালোচক এবং বিরোধীদলীয় সদস্যদের আটক রাখতে সরকার এই সংকটটি ব্যবহার করছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .